Thursday, April 19, 2018

কানাইঘাটে ইফজালের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম

 নিজস্ব প্রতিবেদক:
ইফজাল আহমদ। সদা হাস্যোজ্জ্বল, প্রাণখোলা এক মানুষ। এলাকার লোকজনের কাছে চেয়ারম্যান নামে পরিচিত ছিলেন। ছোট, বড় সকলের সাথে ছিল তার সুসম্পর্ক। দীর্ঘদিন তিনি সৌদি আরবে ছিলেন। ইফজালের ২ ভাই স্পেন ও ৩ ভাই সৌদি আরবে থাকেন। বাড়ির দেখাশােনার পাশাপাশি স্থানীয় ইটকলা বাজারে একটি ভূষিমালের দোকানও অাছে ইফজালের। এ বাজারের ব্যাবসায়ী সমিতির বর্তমান সেক্রেটারিও তিনি। বাড়িতে বাবা-মা, স্ত্রী ও চার সন্তানকে নিয়ে সুখের সংসার ছিল তার। কিন্তু এ সাজানো সংসার মুহূর্তেই তছনছ করে দেয় দুর্ধর্ষ ডাকাতদল।
বুধবার দিবাগত রাতে ডাকাতের ছোড়া গুলিতে প্রাণ হারান ইফজাল। পরিবারের বড় ছেলেকে হারিয়ে বৃদ্ধ মা-বাবা এখন পাগলপ্রায়। নিহতের স্ত্রী, ৪ সন্তান ও পরিবারের লোকজনের কান্নায় এলাকার বাতাস ভারি হয়ে উঠেছে। নিহত ইফজালের বাড়িতে চলছে এখন শোকের মাতম। প্রিয় মানুষটিকে হারিয়ে এলাকাবাসীও নির্বাক। তারা ডাকাতি ও হত্যার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানান ।
প্রসঙ্গত, গতকাল বুধবার রাত অনুমান ২টার দিকে ১২-১৫ জনের একটি অস্ত্রধারী ডাকাতদল ছোটদেশ গ্রামের আব্দুল জলিলের বাড়িতে হানা দিয়ে কলাপসিবল গেইটের তালা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে পড়ে। পরে বসত ঘরের একটি কক্ষের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে ঘরের নারী-পুরুষসহ সবাইকে অস্ত্রের মাধ্যমে জিম্মি করে ঘরের মালামাল তছনছ শুরু করে। এ সময় ইফজালের ভাই সৌদি প্রবাসী নিজাম উদ্দিনের স্ত্রী নাছিমা বেগম চিৎকার শুরু করলে তার শ্বশুর গৃহকর্তা আব্দুল জলিল একটি কক্ষ থেকে বের হলে ডাকাতরা তাকে মারধর করে বেঁধে ফেলে। তার চিৎকারে বাড়ীর অন্য একটি ঘর থেকে ইফজাল অাহমদ বের হয়ে ডাকাতদের প্রতিরোধের চেষ্টা করলে ডাকাতরা তাকে গুলি করে। পরে এলাকাবাসী গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ইফজালকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নেওয়ার পথে জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত নামকস্থানে তিনি মারা যান।

কানাইঘাট নিউজ ডট.কম/ ১৯ এপ্রিল।

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক