Previous
Next

সর্বশেষ


Wednesday, September 23

সিলেটে তৃণমূলের আস্থা আ. লীগের মোহাম্মদ আলী দুলাল       

সিলেটে তৃণমূলের আস্থা আ. লীগের মোহাম্মদ আলী দুলাল       

 

আফসার উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী:
ক্লীন ইমেজ, ত্যাগী, সৎ ও সাদা মনের সাবেক তুখোড় ছাত্র নেতা, হাজার হাজার নেতা কর্মীর অভিভাবক, কোম্পানীগঞ্জ ভাটরাই স্কুল এন্ড কলেজের গভর্নিং বডির বার বার নির্বাচিত সফল সভাপতি, তৃণমুল থেকে গড়ে উঠা সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, তৃণমুল নেতা কর্মীর আস্থা, ভালোবাসা ও বিশ্বাসের প্রতীক জননেতা মোহাম্মদ আলী দুলাল। স্কুল জীবন থেকে গড়ে উঠা মুজিব আদর্শের এক বীর সৈনিক। 

ছাত্র জীবনে ছাত্রলীগকে সুসংগঠিত  করতে গিয়ে তিনি বার বার জাসদ, জামাত- শিবিরের নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে  আল্লাহর রহমতে এখনও বেঁচে  আছেন। সৈরাচার এরশাদ বিরুধী আন্দোলন যখন চরম আকার ধারণ করেছিল, এবং সিলেটের রাজপথে যখন ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছিল, তখন সিলেটের রাজপথে  ছাত্রলীগের প্রতিবাদের কারণে এরশাদ সরকারের পতন একধাপ এগিয়েছিল। 

সেই আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সিলেট জেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও এমসি কলেজ  ছাত্রলীগের তৎকালীন সভাপতি  মোহাম্মদ আলী দুলাল। ছাত্রনেতা  অবস্থায় তাঁর নিজ উপজেলা কোম্পানীগঞ্জে একাধারে  আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ  সহ সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন মোহাম্মদ আলী দুলাল। 

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়ীত্ব পালনের পাশাপাশি কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতা ছিলেন মোহাম্মদ আলী দুলাল। 

উনার নেতৃত্বে কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগ সুসংগঠিত হয়েছে। তিনি কানাইঘাটের ৯টি ইউনিয়ন এবং ১টি পৌরসভা তৃণমূলের নেতৃবৃন্দের মতামত এবং সাংগঠনের গঠনতন্ত্র অনুসারে তৃণমূলের  প্রত্যক্ষ ভোটের মাধ্যমে নিরপেক্ষ ও দলের ত্যাগী নেতৃত্বের মাধ্যমে কমিটি গঠন করেছেন, যা কানাইঘাটের রাজনৈতিক ইতিহাসের এক বিরল দৃষ্টান্ত। 

উনার বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্ব কিংবা আর্থিক লেনদেনের কোন অভিযোগ কেউ কখনো করতে পারবে না।   প্রতিটি ইউনিয়নের প্রত্যেক পাড়া মহল্লায় গিয়েছিলেন এবং ত্যাগী নেতা-কর্মীদের খোঁজে বাহির করে মুল্যায়ন করেছিলেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এবং জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠনের এক আদর্শ মুজিব সৈনিক মোহাম্মদ আলী দুলাল । 

সফল সংগঠক সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের  সাবেক সাংগঠনিক  সম্পাদক মোহাম্মদ আলী দুলালকে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের আগামী পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে  গুরুত্বপূর্ণ পদে দেখতে চায় তৃণমুল আওয়ামী লীগ। 
.  জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু ।

Sunday, September 20

কানাইঘাট উপজেলা নির্বাচনে প্রস্তুতি নিচ্ছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিএনপি নেতা টুটুল

কানাইঘাট উপজেলা নির্বাচনে প্রস্তুতি নিচ্ছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিএনপি নেতা টুটুল

 কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক :

কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন যুক্তরাজ্য শাখা বিএনপির উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ৯০ দশ

কের তুখোড় ছাত্রনেতা বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা জাকি মোস্তফা টুটুল। যদিও বা কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের নির্বাচন এখনো সাড়ে তিন বছর সময় রয়েছে তারপরও দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের অনুরোধের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে এক প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন জাকি মোস্তফা টুটুল। সংগঠনের নেতাকর্মীরা জানান, সিলেট এমসি বিশ^ বিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত থাকাবস্থায় জাকি মোস্তফা টুটুল জাতীয়বাদী ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন। ৯০ এর এরশাদ বিরোধী আন্দোলন সংগ্রামে সিলেটের রাজপথে অগ্রভাগে থেকে নেতৃত্ব দেন এই সাবেক ছাত্রনেতা। শিক্ষার্থী থাকাবস্থায় এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচনে শিক্ষার্থীদের বিপুল ভোটে সাহিত্য, বিতর্ক ও বক্তৃতা বিষয়ক সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন তিনি। এমসি কলেজ শাখা ছাত্রদলের গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকাবস্থায় সাংগঠনিক দক্ষতা স্বরুপ সিলেট জেলা শাখা জাতীয়বাদী সাংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাসের) সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি কানাইঘাট উপজেলা শাখা ছাত্রদলের সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়ে ৯০ দশকে ছাত্রদলকে কানাইঘাটে সুসংগঠিত করেন জাকি মোস্তফা টুটুল। সংগঠনের কাজ করতে গিয়ে কয়েকবার প্রতিপক্ষ ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের হাতে নির্যাতন ও হামলার শিকার হন ত্যাগী এ নেতা। পরবর্তী কানাইঘাট উপজেলা বিএনপির সহ সভাপতি থাকাবস্থায় প্রায় দু’দশক পূর্বে যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমান জাকি মোস্তফা টুটুল। প্রবাসে থেকেও মাঝে মধ্যে দেশে এসে দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের খোঁজ খবর নেয়া সহ কানাইঘাটে বিএনপি ও সহযোগি সংগঠনের কার্যক্রম শক্তিশালী করতে দলের এ দুর্দিনে টুটুল নানা ভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন বলে দলের তৃনমূলের নেতাকর্মীরা জানিয়েছেন। সংগঠনের নেতাকর্মীদের কাছে তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয় এক মুখ। যুক্তরাজ্য শাখা জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির উপদেষ্টা মন্ডলীর দায়িত্ব সক্রিয় ভাবে পালনের পাশাপাশি সেখানকার বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন টুটুল। যুক্তরাজ্যের একটি বিশ^বিদ্যালয়ে অধ্যাপক হিসাবে কর্মরত রয়েছেন তিনি। সেখানকার বিভিন্ন বাংলা টিভি চ্যানেলের টকশোর প্রিয় মুখ হচ্ছেন টুটুল। টকশোতে অংশ নিয়ে দলের পক্ষে কথা বলেন তিনি। জাকি মোস্তফা টুটুলের বাড়ী হচ্ছে কানাইঘাট সাতবাঁক ইউনিয়নের জুলাই পীরনগর গ্রামে। তিনি এক সমভ্রান্ত পরিবারের সন্তান। তার প্রয়াত বাবা বাংলাদেশ ইস্পাহানি জুটমিল কোম্পানীর একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছিলেন। কানাইঘাট উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাবেক ছাত্রদল নেতা জালাল আহমদ জনি, উপজেলা জাসাসের সহ সভাপতি শাহিন আহমদ সহ দলের নেতাকর্মীরা জানান, জাকি মোস্তফা টুটুল জাতীয়বাদী আদর্শের বিশ^াসী একজন নির্বিক সৈনিক। ছাত্র থাকাকালীন ও অদ্যবধি পর্যন্ত তিনি জাতীয়বাদী দলের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন। কানাইঘাটে ৯০ দশক পরবর্তী দলকে সুসংগঠিত করতে তার অনেক ত্যাগ রয়েছে। যুক্তরাজ্যে বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত থেকে সক্রিয় ভাবে দলের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। দলের নেতাকর্মীদের সার্বক্ষনিক খোঁজ খবর নিচ্ছেন তিনি। তার মতো দলের নিবেদিত একজন প্রাণকর্মী কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে দলের প্র্রার্থী হওয়ার জন্য সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা দীর্ঘদিন ধরে আহ্বান জানিয়ে আসছেন। নেতাকর্মীদের অনুরোধের প্রেক্ষিতে জাকি মোস্তফা টুটুল উপজেলা নির্বাচন করার জন্য সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রাখছেন বলে তারা জানান। এব্যাপারে জাকি মোস্তফা টুটুলের সাথে যোগাযোগ করা হলে যুক্তরাজ্য থেকে তিনি জানান নেতাকর্মীরা আমাকে উপজেলা নির্বাচন করার জন্য নানা ভাবে উৎসাহ ও অনুরোধ করে আসছেন, আমি তাদের মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। যেহেতু আমি বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত রয়েছি। আমরা দেশ ও দলের স্বার্থে রাজনীতি করি। মানুষের খেদমত করতে চাই। সকলের দোয়া, ভালবাসা ও দলীয় সিদ্ধান্ত নিয়ে উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবেন বলে জাকি মোস্তফা টুটুল জানিয়েছেন।


Friday, September 18

হেফাজত আমির আল্লামা আহমদ শফী আর নেই

হেফাজত আমির আল্লামা আহমদ শফী আর নেই


হেফাজত আমির আল্লামা আহমদ শফী আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন।

ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা আলতাফ হোসেন যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় হেফাজত ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর শারীরিক অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকায় আনা হয়েছিল। এরপরই তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের আইসিইউতে থাকা আল্লামা শফীকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে শুক্রবার সন্ধ্যার আগে ঢাকায় এনে আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

উল্লেখ্য, প্রায় শতবর্ষী আল্লামা আহমদ শফী দীর্ঘদিন যাবৎ তিনি বার্ধক্যজনিত দুর্বলতার পাশাপাশি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন।


জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদ কানাইঘাট উপজেলা শাখার আহবায়ক কমিটি গঠন

জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদ কানাইঘাট উপজেলা শাখার আহবায়ক কমিটি গঠন


কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক :                                          

জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদের     উদ্যোগে বৃহস্পতিবার  ১৭সেপ্টেম্বর ২০২০ ইংরেজি রোজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৮ ঘটিকার সময়  কানাইঘাট উপজেলা শাখার আহবায়ক কমিটি গঠনের লক্ষে শহরের একটি অভিজাত হোটেলে এক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। 


উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদের ভাইস প্রেসিডেন্ট, কানাইঘাট ৭নং দক্ষিণ বানিগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ এবং অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গিয়াস আহমদ। 


উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদের সভাপতি এটিএম বদরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ও গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট জামাল উদ্দিন, সিলেট জজ কোটের এপিপি এডভোকেট মামুন রশিদ, কানাইঘাট সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক জনাব ফরিদুল হক(ভুঁইয়া) সহ সংগঠনের নেতৃবন্দ। 


সভায় কেন্দ্রীয় নেতৃবৃনেদর উপস্তিতিতে সর্বসম্মতিক্রমে ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। 


কমিটিকে সংগঠনের বিধি মোতাবেক আগামী ৯০দিনের মধ্যে কানাইঘাটের ৯টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার  পুর্নাংঘ কমিটি করার সিদ্ধান্তে  গৃহীত হয়। 


কমিটির সদস্যরা হলেন: আহবায়ক বিশিষ্ট সাহিত্যিক, লেখক ও গবেষক এবং বিশিষ্ট ব্যাংকার  মো: মুস্তাক চৌধুরী, যুগ্ন- আহবায়ক বড়চতুল ইউনিয়নের কৃতি সন্তান পুবালী ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার জনাব মো: জাকারিয়া , যুগ্ন আহবায়ক সদর ইউনিয়নের আরেক কৃতি সন্তান, দয়ামীর ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক  আফসার উদ্দিন আহমদ চৌধুরী। 


অন্যান্য সদস্যরা হলেন  মাসুদ আহমদ চেয়ারম্যান,  এডভোকেট মামুন রশিদ এপিপি, গিয়াস আহমদ, জনাব হুমায়ুন কবীর , মাসুক আহমদ রুমেল , জহিরুল ইসলাম তুহেল , হুমায়ুন আজাদ, আবদুল মালিক রিপন, জনাব সোহেল আহমদ চৌধুরী, মো: কয়ছর আহমদ,  জাফর ইকবাল, হুমায়ুন আজাদ, মামুন রশিদ,  খাজা আজির উদ্দিন, ফজলুল বাছিত বেলাল, মুহিত রহমান, জাহেদুল ইসলাম রুবেল, এস.এ.কামরুল।


নির্বাচিত নেতৃবন্দ তাদের প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেন এবং সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। পরিশেষে সভাপতি সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

কানাইঘাটে বছরজুড়ে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন শুরু

কানাইঘাটে বছরজুড়ে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন শুরু

 

নিজস্ব প্রতিবেদক    :: 
স্বেচ্ছায় রক্তদানে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সিলেটের কানাইঘাট উপজেলায় বছরজুড়ে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন যাত্রা শুরু করেছে।


স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ও রক্তদানে উদ্ধুদ্ধ করতে বৃহস্পতিবার বিকেলে এ ক্যাম্পেইনের আয়োজন করে তারুণ্যদীপ্ত স্বেচ্চাসেবী সংগঠন'ইউনাইটেড সোশ্যাল অর্গানাইজেশন'।

সংগঠনের একদল স্বাপ্নিক তরুণ সম্পূর্ণ নিজেদের উদ্যোগে বিনামূল্যে ১২ মাস রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করে দেয়ার কার্যক্রম হাতে নিয়েছে।

'ইউনাইটেড সোশ্যাল অর্গানাইজেশনের সদস্য আলবাব জান্নাতের সঞ্চালনায় সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ে উদ্বোধনী ক্যাম্পেইনে উপস্থিত ছিলেন- কানাইঘাট প্রেসক্লাবের সহ সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রশিদ, সংগঠনের উপদেষ্টা ও কানাইঘাট প্রি-ক্যাডেট স্কুলের প্রধান শিক্ষক ঝলক দাস, সংবাদকর্মী আবুল হাসনাত রুহিন, হাসান আহমেদ, জাহিদ হাসান, সংগঠনের সিনিয়র সদস্য এখলাছুর রহমান, কাওছার আহমদ, জাহিদুল ইসলাম, ফয়েজ আহমদ, কাশিম, শাকিল আহমদ, রহিম উদ্দিন, বাসার রানা, কামরুল ইসলাম প্রমূখ।

এ আয়োজন সম্পর্কে সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা জানান, প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত এবং রমজান মাসে ইফতারের পর থেকে রাত ৩টা পর্যন্ত যে কেউ আমাদের অফিসে এসে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করতে পারবে। আমরা মনে করি প্রতিটি মানুষের রক্তের গ্রুপ জানা থাকা দরকার ‘মানুষকে স্বেচ্ছায় রক্তদানে উৎসাহিত করতে আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।

এর আগে গত ৯ সেপ্টেম্বর ইউনাইটেড সোশ্যাল অর্গানাইজেশনের বর্ষপূর্তি উপলক্ষে দিনব্যাপী স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচির আয়োজন করে সংগঠনটি।

কানাইঘাট নিউজ ডটকম/১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

Thursday, September 17

কানাইঘাটের ইএনওকে পরিকল্পনা কমিশনে বদলী

কানাইঘাটের ইএনওকে পরিকল্পনা কমিশনে বদলী

 


নিজস্ব প্রতিবেদক: 

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ বারিউল করিম খানকে পরিকল্পনা কমিশনে বদলী করা হয়েছে। 

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব আলিয়া মেহের স্বাক্ষর সম্বলিত এক আদেশে গত ১৬ সেপ্টেম্বর কানাইঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বারিউল করিম খানকে বদলী পূর্বক পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য এর একান্ত সচিব হিসেবে স্থলাবিষিক্ত করে বদলী করা হয়। প্রসজ্ঞত যে, ২০১৯ইং সনের ২ সেপ্টেম্বর বারিউল করিম খান কানাইঘাটের ইউএনও হিসেবে যোগদান করেন। কর্ম দক্ষতা স্বরূপ চাকুরীকালীন সময়ে সরকারি বৃত্তি নিয়ে অষ্ট্রেলিয়ায় উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেন। এছাড়া তিনি সহকারী কমিশনার ভূমি থাকাকালীন পূর্বে বেসরকারি বিশ^বিদ্যালয়ে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি, নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এছাড়াও বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা হিসেবেও কর্মরত ছিলেন। তিনি ৩০’তম ব্যাচের একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা। জানা গেছে, পরিকল্পনা কমিশনের সচিব ইউএনও বারিউল করিম খানকে তার একান্ত সচিব হিসেবে যোগদানের ইচ্ছা প্রকাশ করলে এতে সদয় সম্মতি দেন বারিউল করিম খাঁন। এরপর তার বদলীর আদেশ সরকারি ভাবে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। 

এ ব্যাপারে নির্বাহী কর্মকর্তা বারিউল করিম খানের সাথে যোগাযোগ করা হলে পরিকল্পনা কমিশনের একান্ত সচিব হিসেবে বদলীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে তার স্থলাবিশিক্ত না হওয়া পর্যন্ত তিনি কানাইঘাটের ইউএনও হিসেবে কর্মরত থাকবেন বলে জানা গেছে। 

এদিকে গত বৃহস্পতিবার উপজেলা সমন্বয় কমিটির মাসিক উন্নয়ন সভায় কর্মদক্ষতা ও সততা স্বরূপ ইউএনও বারিউল করিম খানকে পরিকল্পনা কমিশনের একান্ত সচিব হিসেবে বদলী হওয়ায় তার উত্তোরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করেছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী সহ কমিটির সকল সদস্যরা।


কানাইঘাট নিউজ ডটকম /১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০


Monday, September 14

কানাইঘাটে মাসিক আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা

কানাইঘাটে মাসিক আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক:   
কানাইঘাট উপজেলার মাসিক আইন শৃঙ্খলা ও চোরা চালান প্রতিরোধ কমিটির সভা আজ সোমবার সকাল ১০টায় উপজেলা সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।
কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ বারিউল করিম খানের সভাপতিত্বে উপজেলার সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক মহল সহ সবাইকে থানা পুলিশকে সহযোগিতা করার জন্য আহবান করা হয়।

সভায় থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুদ্দোহা পিপিএম বিগত মাসের উপজেলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি তুলে ধরে বলেন, গত মাসের থানায় ২২টি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে, ২৩টি মামলার চার্জশীট দেয়া হয়েছে এবং ২৩টি মামলা নিষ্পত্তি করা হয়েছে। উপজেলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অবক্ষয়ের কারনে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, ইভটিজিং ও অপমৃত্যুর ঘটনা বাড়ছে।

ওসি শামসুদ্দোহা বলেন, সম্প্রতি ফেসবুকে পরিচয়ের মাধ্যমে এক প্রবাসী তরুণের সাথে কানাইঘাটের লুবাবা নামে একটি মেয়ের পরিচয় হয়, তারপর বিয়ে হয়। কিন্তু এখন এই মেয়েটির বিরুদ্ধে ফেসবুকে নানা ধরনের বাজে মন্তব্য করা হচ্ছে, এ ধরনের ঘটনার মাধ্যমে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের মতো ঘটনা আশংকা থাকে। এসব প্রতিরোধ আমাদের সবাইকে সম্মিলিত ভাবে করতে হবে।

সভায় আইন শৃঙ্খলা কমিটির অনেক সদস্য বলেন, ইদানিং কিছু কু-চক্রী ব্যক্তি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও সাধারণ মানুষের বিরুদ্ধে নানা ধরনের মিথ্যা অপপ্রচার ও গুজব রটাচ্ছে। এসব ফেসবুক আইডি শনাক্ত করে অপপ্রচার বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।

সভার শুরুতে দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমের উপর হামলার ঘটনায় নিন্দা প্রস্তাব সর্বসম্মতিক্রমে পাশ হয় এবং ইউএনওদের নিরাপত্তা জোরদারের লক্ষ্যে সরকার কর্তৃক তাদের বাসভবনে সশস্ত্র আনসার মোতায়েন করায় সরকারের প্রতি ধন্যবাদ জানানো হয়।

সভায় নির্বাহী কর্মকর্তা বারিউল করিম খান বলেন, উপজেলার সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি আরো উন্নতি করতে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে। সব ধরনের তথ্য দিয়ে প্রশাসন ও থানা পুলিশকে সহযোগিতা করতে হবে। নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, বাল্য বিবাহের মতো ঘটনা এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব ও অপপ্রচার বন্ধে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা জোরদার ও জনপ্রতিনিধিদের সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, জঙ্গিবাদ, ভারত থেকে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ এবং যাতে করে কোন রোহিঙ্গারা জাতীয় পরিচয়পত্র অর্ন্তভুক্ত হতে না পারে এজন্য সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। তিনি বলেন, সরকার ইউএনও ও উপজেলা পরিষদ এলাকার নিরাপত্তার জোরদারের জন্য ১২জন আনসার সদস্য সার্বক্ষণিক মোতায়েনের সিন্ধান্ত নিয়েছেন, তা শীঘ্রই বাস্তবায়ন করা হবে।

লোভাছড়া পাথর কোয়ারীর বিষয়ে তিনি সভায় বলেন, সরকারের উচ্চ মহলে পাথর কোয়ারীর বিষয়টি সমাধানের জন্য আলোচনা হচ্ছে। আসা করছি দ্রæত বিষয়টি সমাধান করা হবে।

আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় বিভিন্ন মতামত তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজা বেগম, লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান জেমস্ লিও ফারগুসন নানকা, বাণীগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ, সমাজসেবা কর্মকর্তা মোহাম্মদ জিলানী, কানাইঘাট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মাষ্টার মহি উদ্দিন, কানাইঘাট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক আব্দুশ শুক্কুর সহ আইন শৃঙ্খলা কমিটির সদস্যরা। একই দিনে উপজেলা সন্ত্রাস, নারী শিশু নির্যাতন, বাল্য বিবাহ, গুজব প্রতিরোধ ও এনজিও কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কানাইঘাট নিউজ ডটকম/১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০    
প্রবীণ মুরব্বী হাজী জমসের আলী’র মৃত্যুতে মাসিক প্রতিভাত ও প্রতিভাত সাহিত্য পরিষদের শোক

প্রবীণ মুরব্বী হাজী জমসের আলী’র মৃত্যুতে মাসিক প্রতিভাত ও প্রতিভাত সাহিত্য পরিষদের শোক

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক:   
প্রবীণ মুরব্বী হাজী মো: জমসের আলী সাহেবের মৃত্যুতে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও বিদেহী আত্মার শান্তি কামনায় শোক প্রকাশ করেছেন- মাসিক প্রতিভাত ও প্রতিভাত সাহিত্য পরিষদ সিলেট এর নেতৃবৃন্দ।
নেতৃবৃন্দ এক শোক বার্তায় বলেন- প্রবীণ মুরব্বী হাজী মোঃ জমসের আলী ছিলেন অত্যন্ত বিনয়ী, নম্র, ভদ্র, অমায়িক ও সজ্জন। তিনি অত্যন্ত সাদামাটা জীবন যাপন করতেন এবং স্পষ্টবাদী লোক ছিলেন। এলাকায় তাঁর অবদান ছিলো অনস্বীকার্য। তাঁর মৃত্যুতে যে ক্ষতি হয়েছে তা সহজে পূরণ হওয়ার নয়।
মাসিক প্রতিভাত ও প্রতিভাত সাহিত্য পরিষদের পক্ষ থেকে শোক জ্ঞাপন করেন- প্রসাপ সভাপতি, মাসিক প্রতিভাত সম্পাদক কবি এম আলী হোসাইন, সহ সভাপতি কবি নাজমীন আক্তার ঝর্ণা, সাধারণ সম্পাদক ও মাসিক প্রতিভাত-এর নির্বাহী সম্পাদক মো. নাসির উদ্দিন, প্রসাপ’র সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান, সাহিত্য সম্পাদক কবি মো. আলমগীর চৌধুরী, অর্থ সম্পাদক মো. আব্দুল করিম, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক জুনাইদ আহমদ, অফিস সম্পাদক এখলাছুর রহমান নাহিদ, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক লোকমান আহমদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম, প্রশিক্ষণ সম্পাদক কামরুন নাহার কলি, চিকিৎসা বিষয়ক সম্পাদক ফারহানা বেগম, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক সোহানা আক্তার, সহ সাহিত্য সম্পাদক আয়শা সিদ্দিকা আশা, সহ অফিস সম্পাদক সোহেল আহমদ, সদস্য কবি সৈয়দ আছলাম হোসেন, সাংবাদিক মাহবুবুর রশিদ, আব্দুছ ছাত্তার, রইছ আহমদ, শাহেদ আহমদ, মারজানা বেগম, ফয়জুল আলম, সেলিনা আক্তার, ফাতেমা বেগম সুমা, ফাহমিদা জাহান ফারহানা, মো. আজির উদ্দিন, রেহেনা পারভিন, জোবায়দা কামাল আঁখি, শারমিনা বেগম, আলী বোরহান রাতুল, আতিকুর রহমান আতিক প্রমুখ।
এছাড়াও শোক প্রকাশ করেছেন পরিষদের উপদেষ্টামণ্ডলীর মধ্যে সাংবাদিক কলামিস্ট আফতাব চৌধুরী, ডা. আরমান আহমদ শিপলু ও ব্যাংকার আলী আহমদ এবং সম্মানিত সদস্যদের মধ্যে কবি কামাল আহমদ, মাসিক টেংরাবার্তা সম্পাদক মোঃ শাহিন উদ্দিন, এডভোকেট সুদিপ রঞ্জন রায়, কবি আতাউর রহমান বঙ্গী, মানবাধিকার কর্মী শফিকুর রহমান শফিক, ফয়ছল আহমদ মামুন ও সুমন আহমদ প্রমুখ।
বিবৃতিদাতারা মাসিক প্রতিভাত এর সহ সম্পাদক ও প্রতিভাত সাহিত্য পরিষদের অফিস সম্পাদক এখলাছুর রহমান নাহিদএর পিতা হাজী মো: জমশের আলী সাহেবের  বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারে প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।
উল্লেখ্য, শহরতলীর কামাল বাজার ছোট দিঘলী নিবাসী প্রবীণ মুরব্বী হাজী মো: জমসের আলী  গত ১৩  সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল ৮:০০ ঘটিকার সময় নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯২ বছর।   তিনি ৫ ছেলে,  ২ মেয়ে, নাতি-নাতনী সহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন।
শনিবার বাদ আসর ছোট দিঘলী (পঞ্চগ্রাম শাহী ঈদগাহ) মাঠে মরহুমের জানাযার নামাজ  অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় সাংবাদিক, রাজনৈতিক, সামাজিক ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতবৃন্দ সহ এলাকার সর্বস্থরের হাজার হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। জানাযা শেষে তাঁকে পারিবারিক গোরস্থানে  দাফন করা হয়।
ব্যক্তিগত জীবনে তিনি ছিলেন অত্যন্ত বিনয়ী, নম্র, ভদ্র, অমায়িক ও স্পষ্টবাদী।

Sunday, September 13

কানাইঘাটে ছাত্রদলের নতুন কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল

কানাইঘাটে ছাত্রদলের নতুন কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক:   
কানাইঘাট উপজেলা, পৌর ও কলেজ শাখা ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে কানাইঘাট বাজারে আনন্দ মিছিল করেছে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। 

আজ রবিবার বিকেল ২টায় কানাইঘাট দক্ষিণ বাজার থেকে আনন্দ মিছিল বের হয়ে পূর্ব বাজারে গিয়ে এক সংক্ষিপ্ত পথ সভায় মিলিত হয়। 

আনন্দ মিছিলকালে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা দলের পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের দিয়ে কানাইঘাট উপজেলা ও পৌর এবং কানাইঘাট সরকারি কলেজ শাখার আহ্বায়ক কমিটি উপহার দেয়ায় সিলেট জেলা যুবদলের আহ্বায়ক সিদ্দিকুর রহমান পাপলু, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নাদিমকে অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ মিছিলে নানা ধরনের স্লোগান দেন। 

উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মোয়াজ্জেম হোসেন আল-আমিনের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী রাসেলের পরিচালনায় মিছিল পরবর্তী পথসভায় বক্তব্য দেন কানাইঘাট পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক রেদওয়ান করিম, সদস্য সচিব সুহেল আহমদ, কলেজ শাখার আহ্বায়ক ইকবাল আহমদ, সদস্য সচিব জুয়েল রানা সহ ৩টি ইউনিট আহ্বায়ক কমিটির নেতৃবৃন্দ। 

পথ সভায় সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য দলের সকল আন্দোলন সংগ্রামে ঐক্যবদ্ধ ভাবে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের মাঠে ময়দানে কাজ করার আহ্বান জানানো হয়।

কানাইঘাট নিউজ ডটকম/১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০    
কানাইঘাটে সড়কে মিনি পুকুর ! ভোগান্তি চরমে

কানাইঘাটে সড়কে মিনি পুকুর ! ভোগান্তি চরমে

মাহবুবুর রশিদ :
সংস্কারের অভাবে বেহাল সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার গাজী বোরহান উদ্দিন সড়কের পৌর এলাকার প্রায় ২ কিলোমিটার রাস্তা। হঠাৎ করে রাস্তাটি দেখলে মনে হবে সড়ক নয়, যেন ছোটখাটো জলাশয়! খানাখন্দে ভরা এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করতে পথচারীদের পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ। রাস্তাটি দিয়ে যানবাহন চলা দূরের কথা, হেঁটে চলাও মুশকিল হয়ে দাঁড়িয়েছে।

মুশাহিদ সেতুর নন্দিরাই বাইপাস মোড় থেকে কানাইঘাট থানা পর্যন্ত সড়কের এমন নাজেহাল অবস্থা। সংস্কারবিহীন ওই রাস্তায় সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। একটু বৃষ্টিতেই পানি জমে থাকে এসব গর্তে। এক একটি গর্ত যেন মৃত্যুফাঁদ! ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে সড়কটি সংস্কার না করায় কার্পেটিং উঠে এমন দশার সৃষ্টি হয়েছে। রাস্তা সংস্কারের ব্যাপারে কতৃপক্ষের উদাসীনতায় জনমনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী বলেন, 'রাস্তাটির বেহাল দশা সম্পর্কে আমি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা অচিরেই রাস্তাটির মেরামত কাজ শুরু করবে।'

কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন বলেন, 'গাজী বোরহান উদ্দিন রাস্তাটি মূলত এলজিইডির রাস্তা। কানাইঘাটবাসীর দূরবস্থা দেখে দুর্ভোগ লাঘবে আমার অনুরোধে আর আমাদের মাননীয় সংসদ সদস্য হাফিজ আহমদ মজুমদারের সহযোগিতায় সিলেটের জেলা প্রশাসক ও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনায় রাস্তাটি সংস্কার কাজের অনুমোদন পেয়েছে। আমরা রাস্তাটির গর্ত ভরাট করে ড্রেনেজ ব্যবস্থা রেখে ১৮ ফুট প্রশস্ত করে রাস্তাটির কাজ সম্পন্ন করব।'

উপজেলা প্রকৌশলী রিয়াজ মাহমুদ বলেন, '২০২০-২১ অর্থবছরের জরুরি মেরামত কাজের আওতায় সড়কের জন্য আমরা ১ কোটি ৪০ লাখ টাকার একটি প্রাক্কলন প্রস্তুত করেছি। জরুরি মেরামত কাজের আওতায় শিগগির প্রাক্কলনটি অনুমোদন হবে। এরপর আমরা দরপত্র আহ্বান করে কাজ শুরু করব।'

কানাইঘাট নিউজ ডটকম /১৩সেপ্টেম্বর ২০২০


Friday, September 11

কানাইঘাটে শিওরক্যাশ এজেন্টদের অর্ধ কোটি টাকা নিয়ে ডিস্ট্রিবিউটর উধাও

কানাইঘাটে শিওরক্যাশ এজেন্টদের অর্ধ কোটি টাকা নিয়ে ডিস্ট্রিবিউটর উধাও

নিজস্ব প্রতিবেদক:  
কানাইঘাট-জকিগঞ্জ ও বিয়ানীবাজার উপজেলার আওতাধীন রূপালী ব্যাংকের শিওরক্যাশ এর ডিস্ট্রিবিউটর সাহেদ আহমদ চৌধুরী কর্তৃক কানাইঘাট শিওরক্যাশ এজেন্টদের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় শিওরক্যাশ এজেন্টর ব্যবসায়ীরা সংবাদ সম্মেলন করেছেন।  

শুক্রবার বিকেল ৩টায় কানাইঘাট প্রেসক্লাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠকালে শিওরক্যাশ এজেন্ট আব্দুল কাহির বলেন, সম্প্রতি ০১/০৭/২০২০ইং তারিখ হতে বিভিন্ন সময়ে জকিগঞ্জ উপজেলার কাজলশার গ্রামের মারুফ আহমদ চৌধুরীর পুত্র বিয়ানীবাজারস্থ এম,এস কালার্স প্রতিষ্ঠানের প্রোপাইটর শিওরক্যাশ এর তিন উপজেলার ডিস্ট্রিবিউটর সাহেদ আহমদ চৌধুরী কানাইঘাট উপজেলার বিভিন্ন বাজারের শিওরক্যাশ মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টের কাছ থেকে বিটুবি করে বিভিন্ন তারিখে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা রয়েছেন। 

অনেক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে তার একাউন্টের ব্যাংকের চেক দিয়ে নগদ ও বিটুবি করে টাকা নেয়। শিওরক্যাশ এর এজেন্টদের লক্ষ লক্ষ টাকা সাহেদ চৌধুরী কর্তৃক হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় শিওরক্যাশ এজেন্টরা প্রাথমিক পড়ুয়া উপজেলার শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি এবং করোকালীন সরকারের বিভিন্ন অনুদানের টাকা গ্রাহকদের দিতে পারছেন না। 

যার কারনে তাদের ব্যবসা পরিচালনা করতে মারাত্মক সমস্যায় পড়তে হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল কাহির লিখিত বক্তব্যে আরো বলেন, তাদের শিওরক্যাশ এজেন্টদের টাকা সাহেদ চৌধুরী হাতিয়ে নেওয়ার পর তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাড়িতে গিয়ে তাকে খোঁজে পাচ্ছেন না, কোন ব্যবসায়ীর ফোনও ধরছেন না সে। 

প্রতিকার চেয়ে গত ৮ই সেপ্টেম্বের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে কানাইঘাটের শিওরক্যাশ এজেন্টরা লিখিত দরখাস্ত দিয়েছেন। রূপালী ব্যাংকের শিওরক্যাশের কর্মকর্তাদের স্মরণাপন্ন হয়েও তারা কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না। 

এমতাবস্থায় সাহেদ চৌধুরী কর্তৃক শিওরক্যাশ এজেন্টদের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নেয়া টাকা উদ্ধার এবং তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ এবং সুষ্ঠু ভাবে শিওরক্যাশ এজেন্ট মোবাইল ব্যাংকিং কার্যক্রম সচল রাখতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন শিওরক্যাশ এজেন্টরা। সংবাদ সম্মেলনে শিওরক্যাশ এজেন্টদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মোঃ ইয়াহিয়া, শিব্বির আহমদ, জাকারিয়া, সেলিম উদ্দিন, আব্দুস শহিদ, জিল্লুর রহমান, বদরুল ইসলাম, মাহমুদ হোসেন, হেলাল আহমদ, আলমাছ উদ্দিন, হেলাল উদ্দিন সহ আরো বেশ কয়েকজন।

কানাইঘাট নিউজ ডটকম /১১ সেপ্টেম্বর ২০২০

Thursday, September 10

কানাইঘাট উপজেলা, পৌর ও কলেজ ছাত্রদলের কমিটিতে স্থান পেলেন যারা

কানাইঘাট উপজেলা, পৌর ও কলেজ ছাত্রদলের কমিটিতে স্থান পেলেন যারা

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক :
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল সিলেট জেলা শাখার আওতাধীন কানাইঘাট উপজেলা, পৌর ও কলেজ শাখার আহবায়ক কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। গত মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) সিলেট জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নাদিম স্বাক্ষরিত এক পত্রে কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়।

এতে বলা হয় আগামী ৬০ দিনের মধ্যে কানাইঘাট উপজেলা শাখার আওতাধীন সকল ইউপি কমিটি, পৌর শাখার আওতাধীন সকল ওয়ার্ড কমিটি এবং কানাইঘাট সরকারী কলেজ ও গাছবাড়ী ডিগ্রী কলেজ শাখার পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করতে হবে।

কানাইঘাট উপজেলা শাখার আহবায়ক কমিটির দায়িত্বশীলরা হলেন- আহবায়ক মোয়াজ্জেম হোসেন আল আমীন, যুগ্ম আহবায়ক শাহ আলম পারভেজ, আবু রায়হান পাভেল, ছালিম আসলাম, লুৎফুর রহমান, সাইদুল ইসলাম মাসুম, আলিম উদ্দিন, রুহুল ইসলাম, সালমান আহমদ, জাকারিয়া আহমদ সুমন, মোশাররফ হোসেন রাসেল ও সদস্য সচিব রাসেল আহমদ চৌধুরী, সদস্যরা হলেন- জুনেদ আহমদ বুলবুল, মোঃ জসিম উদ্দিন, সেলিম আহমদ বেনী, আব্দুল করিম চৌধুরী, আব্দুর রহমান, সাদিক আহমদ, মারুফ আহমদ, নুর আহমদ, রায়হান আহমদ রিমন।


কানাইঘাট পৌর শাখার আহবায়ক কমিটির দায়িত্বশীলরা হলেন- আহবায়ক রেদওয়ান আহমদ, যুগ্ম আহবায়ক আব্দুর রহমান, আব্দুল মোমিন, ফাহিম আহমদ, আবু হেনা, আবুল হোসেন, রেজওয়ান আহমদ ও সদস্য সচিব সোহেল আহমদ।
কানাইঘাট সরকারী কলেজ শাখার আহবায়ক কমিটির দায়িত্বশীলরা হলেন- আহবায়ক ইকবাল আহমদ, যুগ্ম আহবায়ক তোফায়েল আহমদ, মোঃ সুলতান, আক্তার হোসেন, মেহেদী হাসান, রেজওয়ান আহমদ পলাশ, মোঃ ছয়ফুল্লাহ, সদস্য সচিব জুয়েল আহমদ রানা এবং সদস্য সাকিব আহমদ।

গাছবাড়ি ডিগ্রী কলেজ শাখার আহবায়ক কমিটির দায়িত্বশীলরা হলেন- আহবায়ক মজনু আহমদ, যুগ্ম আহবায়ক ফয়সাল আহমদ, আব্দুল্লাহ আল মামুন, সায়েম আহমদ, জসিম উদ্দিন, নাসিম আহমদ, জাকির হোসেন, হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী সোহেল, নুর আহমদ, হিফজুর রহমান, সদস্য সচিব আবিদুর রহমান, সদস্যরা হলেন মেহেদী হাসান মাহিন, জুনেদ আহমদ, আনোয়ার হোসেন, আশরাফ আহমদ, মফিজুর রহমান, কামিল আহমদ।

Wednesday, September 9

কানাইঘাট উপজেলা ও পৌর ছাত্রদলের কমিটি গঠন

কানাইঘাট উপজেলা ও পৌর ছাত্রদলের কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
কানাইঘাট উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্য, পৌর ছাত্রদলের ৮ সদস্য,কানাইঘাট সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রদলের ৯ সদস্য ও গাছবাড়ী ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রদলের ১৭ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বাহক কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর)  সিলেট জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নাদিম এ কমিটি গুলাের অনুমোদন দেন। 

কমিটিগুলোকে আগামী দুই মাসের মধ্যে আওতাধীন সকল ইউনিটের কমিটি গঠন ও কলেজ শাখার পূর্ণাঙ্গ  কমিটি গঠন করা জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। 

কানাইঘাট নিউজ ডটকম/০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০