Previous
Next

সর্বশেষ


Tuesday, June 25

পানিশূন্য হচ্ছে চেন্নাই!

পানিশূন্য হচ্ছে চেন্নাই!

ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের রাজধানী চেন্নাই মিঠা পানিশূন্য হয়ে যাচ্ছে। অতি সম্প্রতি স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবিতে সেখানকার জলাধারগুলোর ভয়ানক চিত্র দেখা গেছে। 

ভারত মহাসাগরের উপকূলের এই শুষ্ক শহরে ৫০ লাখ মানুষের বসবাস। চেন্নাইয়ের জলাধারগুলো প্রায়ই এখন শুকিয়ে গেছে। 
গেল ১৫ জন স্যাটেলাইট থেকে নেয়া ছবিগুলোতে দেখা যায়, শহরের সবচেয়ে বড় জলাধার লেক পুঝাল পানিশূন্য হয়ে যাচ্ছে। গত বছরের একই সময়ের চিত্রতে দেখা গেছে, সেখানে প্রচুর পানি ছিল। তবে এক বছরের ব্যবধানে তা মারাত্মক রূপ নিয়েছে।
এছাড়া শহরের ছেমবারামবাক্কাম লেকের পানিও খুব তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাচ্ছে। এতদিনে ওই অঞ্চলে বর্ষা শুরু হওয়ার সময় হলেও তা হয়নি।
প্রসঙ্গত, চেন্নাই শিল্প ও বাণিজ্যের জন্য একটি বড় কেন্দ্র। এছাড়া সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও মন্দির স্থাপত্যের জন্য বিখ্যাত। এই শহরকে ভারতের মোটরগাড়ি শিল্পের রাজধানী বলা হয়। 
ওয়াও সাকিব

ওয়াও সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক ::

এ যেন তার জন্য ডালভাত। বলছি সাকিবের কথা, একের পর এক ঘূর্ণি আক্রমণে আফগান দুর্গ ধ্বংস করে চলেছেন সাকিব আল হাসান। তার এ্যান্টি এ্যাকশনে আফগান শিবিরে দলের ৭ম ও নিজের ৫ম আঘাত করেন সাকিব। রান চেজ করতে গিয়ে এখন পর্যন্ত ৭ উইকেটের পতন হয়েছে আফগানদের।

সাকিব তার প্রথম ওভারে এসেই তুলে নিয়েছেন রহমত শাহ কে। তামিমের ক্যাচে পরিণত হওয়ার আগে তিনি করেন ২৪ রান। ২৯তম ওভারে সাকিব হানেন জোড়া আঘাত। লিটনের দর্শনীয় ক্যাচে ৪৭ রানে নাইব ফেরার পরপরই নবীকে ০ রানে বোল্ড করেন সাকিব। তারপর সিরিয়ালে আসেন আসগর আফগান। সাকিবের বলে সাবস্টিটিউট ফিল্ডার সাব্বিরের হাতে ক্যাচ দেন ২০ রান করা আসগর। তার ৫ম শিকার হলে ২৫ রান করা নাজিবুল্লা জাদরান।   
বিশ্বকাপের আজকের খেলায় টস হেরে শুরুতে ব্যাট করে আফগানদের সামনে ২৬৩ রানের টার্গেট দেয় মুশি-সাকিবরা। 
সাকিব ছাড়া মোসাদ্দেকের বলে হাসমতউল্লাহ শাহিদীকে স্ট্যাম্পট আউট করেন মুশফিকুর রহিম। আউট হবার আগে তিনি ৩১ বলে করেন ১১ রান।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আফগানদের সংগ্রহ ৪৩ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৯১ রান। 
৩১তম ম্যাচে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরে সেমিফাইনাল খেলার স্বপ্ন নিয়ে ইংল্যান্ডে পা রেখেছিল বাংলাদেশ।
টুর্নামেন্টের অনেকটা পথ পাড়ি দেয়ার পর এখনো সেমি খেলার আশা বাঁচিয়ে রেখেছে টাইগাররা।
সাকিবের দিনে টাইগারদের জয়

সাকিবের দিনে টাইগারদের জয়

স্পোর্টস ডেস্ক ::

বিশ্বকাপের আজকের খেলায় প্রত্যাশিত জয় তুলে নিল টাইগাররা। বিশেষ করে সাকিব তাণ্ডবে কোনভাবেই মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি আফগানিস্তান।   

শুরুতে টস হেরে ব্যাট করে বাংলাদেশ। মুশফিক-সাকিবের ব্যাটে ভর করে আফগানদের সামনে ২৬৩ রানের টার্গেট ছুড়ে দেয় টাইগাররা। সে রান চেজ করতে গিয়ে একের পর এক উইকেট হারিয়ে দিশেহারা আফগান শিবিরি। শেষ পর্যন্ত টাইগারদের জয় হয় ৬২ রানের।
মূলত আজকে বিশ্ব দেখে সাকিবের মিডনাইট শো। সাকিব তার প্রথম ওভারে এসেই তুলে নেন রহমত শাহ কে। তামিমের ক্যাচে পরিণত হওয়ার আগে তিনি করেন ২৪ রান। এরপর আউট হন হাসমতউল্লাহ শাহিদী। মোসাদ্দেকের বলে তাকে স্ট্যাম্পড করেন মুশফিকুর রহিম। আউট হবার আগে তিনি ৩১ বলে করেন ১১ রান। 
২৯তম ওভারে সাকিব হানেন জোড়া আঘাত। লিটনের দর্শনীয় ক্যাচে ৪৭ রানে নাইব ফেরার পরপরই নবীকে ০ রানে বোল্ড করেন সাকিব। নতুন জুটি জমে ওঠার আগে আসগর আফগানকে সাব্বিরের তালুবন্দি করে আবারও নায়ক সাকিব। ইকরাম খিলকে দুর্দান্ত থ্রো থেকে রান আউট করেন লিটন দাস। 
বিশ্বকাপের ৩১তম ম্যাচে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরে সেমিফাইনাল খেলার স্বপ্ন নিয়ে ইংল্যান্ডে পা রেখেছিল টাইগাররা।
সাউদাম্পটনের রোজ বোলে টস হেরে ব্যাটে নামে বাংলাদেশ। সৌম্যের বদলে তামিমের সঙ্গে ওপেন করতে নামেন লিটন দাস। স্পিনার মুজিবের বলে শাহিদির কাছে ক্যাচ তুলে দেন এই ব্যাটসম্যান। বিতর্কিত ক্যাচে ঘরে ফেরেন লিটন দাস।
এর আগে লিটনের ব্যাট থেকে আসে ১৭ বলে ১৬ রান। শুরুতেই উইকেট হারানোর পর সাকিব তামিমের জুটিতে ঘুরে দাড়িয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু তামিমের দিনটা ভালো ছিলনা। নবীর বলে ৩৬ করে বোল্ড হয়ে যান তামিম। 
সাকিব ৫০ করার পর মুজিবের বলে সাজঘরে ফেরেন। সৌম্যকেও শিকার হতে হয় আম্পায়ারের বিতর্কিত সিদ্ধান্তের। বোলার সেই মুজিব। ফেরার আগে সৌম্য করেন ৩ রান। 
রিয়াদ ও মুশি মিলে পঞ্চাশোর্ধ পার্টনারশিপ গড়ার পর উড়িয়ে মারতে যেয়ে ক্যাচ আউট হন রিয়াদ। এর আগে ৩৮ বলে করেন ২৭ রান। 
মুশি এগোচ্ছিলেন সেঞ্চুরির পথে। কিন্তু তাকে থামিয়ে দেন দৌলত জাদরান। ৮৭ বলে ৮৩ রানের দর্শনীয় ইনিংস খেলেন মুশফিক।
শেষদিকে মোসাদ্দেক ও সাইফউদ্দিন মিলে বাকী পথ বিপদ ছাড়াই পার করেন। ইনিংসের শেষ বলে আউট হওয়ার আগে মোসাদ্দেক খেলেন ২৪ বলে ৩৫ রানের ঝড়ো ইনিংস।  
মুজিব একাই শিকার করেন ৩ উইকেট। এছাড়া দৌলত, নবী ও নাইব নেন একটি করে উইকেট। 

Monday, June 24

কানাইঘাট পৌরসভার ৫৬ কোটি ২৭ লক্ষ টাকার বাজেট ঘোষণা

কানাইঘাট পৌরসভার ৫৬ কোটি ২৭ লক্ষ টাকার বাজেট ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
কোন ধরনের নতুন করারোপ ছাড়াই কানাইঘাট পৌরসভার ২০১৯-২০ অর্থ বছরের ৫৬ কোটি ২৭ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। বাজেটে মোট ব্যায় দেখানো হয়েছে ৫৬ কোটি কোটি ও উদ্বৃত্ত রাখা হয়েছে ২৭ লক্ষ ৫০হাজার টাকা।
সোমবার বিকেল ৩টায় পৌরসভার নিজস্ব মার্কেট মিলনায়তনে বাজেট পেশ করেন পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন।
বাজেটে পৌরসভার নিজস্ব সম্ভাব্য রাজস্ব আয় দেখানো হয়েছে ১ কোটি ৫৫ লক্ষ ১০ হাজার টাকা ও ব্যায় দেখানো হয়েছে ১ কোটি ৪৭ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা। রাজস্ব উদ্বৃত্ত দেখানো হয়েছে ৭ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা। ঘোষিত বাজেটে পৌরসভার রাজস্ব খাত, এডিপিসহ অন্যান্য সরকারি, দাতা গোষ্ঠীর অনুদানের উপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।
পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও পৌর সচিব মো. মনির উদ্দিনের পরিচালনায় বাজেট অধিবেশনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ব্যবসায়ী, পৌরসভার কাউন্সিলর ও কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ ও কানাইঘাট প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও নানা শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
বাজেট পেশকালে পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, ২০১৯-২০ অর্থ বছরের ৫৬ কোটি ২৭ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণার মধ্য দিয়ে নাগরিকদের জীবন মানের ব্যাপক পরিবর্তন সাধনের মাধ্যমে নব-দিগন্তের সূচনা ঘটবে।
সকলের সম্মিলিত সহযোগিতার মাধ্যমে বাজেট বাস্তবায়ন করা সম্ভব উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, বাজেটে উন্নয়ন খাতের উপর সিংহ ভাগ অর্থ বরাদ্ধ রাখা হয়েছে। পৌরসভায় বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ এবং দু’টি জৈব সার কারখানার মাধ্যমে ইসলামী ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের অর্থায়নে ৩০ কোটি টাকার কাজ চলমান রয়েছে। এরমধ্যে ১৬ কোটি টাকার কাজের টেন্ডার ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। পৌরসভার অবকাঠামো উন্নয়নে কোটি কোটি টাকার কাজ এগিয়ে চলছে।
নাগরিকদের সেবা প্রাপ্তির জন্য পৌরসভার নিজস্ব দৃষ্টিনন্দন কার্যালয় নির্মাণ করা হবে বলে তিনি জানান।
কানাইঘাট নিউজ ডটকম/২৪জুন ২০১৯
আমিরের লাশ ফের ময়নাতদন্তের নির্দেশ

আমিরের লাশ ফের ময়নাতদন্তের নির্দেশ

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক:
কানাইঘাট উপজেলার ঝিঙ্গাবাড়ী ইউনিয়নের বৃহত্তর ঢাকনাইল ৯ মৌজার হাওর এলাকার এজমালী সম্পত্তির হিসাব নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত আমির উদ্দিন (৫০) এর লাশ ফের ময়নাতদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

লাশ উত্তোলন মামলার বাদী ফখরুল ইসলামের আবেদনের প্রেক্ষিতে আজ সোমবার দুপুরে আমলী আদালত -৫ এর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: মাহবুবুর রহমান ভূইয়া এ আদেশ দেন। 

বাদী পক্ষে আইনজীবি ছিলেন সিলেট জজ কোর্টের তরুণ আইনজীবি খায়রুল আলম বকুল। তিনি আদেশের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এটা আমার আইন পেশার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। আশা করি বাদীপক্ষ ন্যায়বিচার পাবেন। 

উল্লেখ্য, আমির উদ্দিনের মৃত্যুকে স্বাভাবিক মৃত্যু বলে ময়না তদন্ত রিপোর্ট দিয়েছিলেন ডাক্তার। রিপোর্টে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যুর কথা বলা হয়েছিল। আর সে রিপোর্টকে বানোয়াট রিপোর্ট বলেছেন বাদী পক্ষ। তাই বাদী পক্ষ ন্যায় ও সুবিচারের স্বার্থে মৃত আমির আলীর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ নির্ণয়ার্থে তার লাশ কবর হইতে উত্তোলনের আদেশ প্রদান পূর্বক মেডিকেল বোর্ডের অধীন লাশের পুন: ময়না তদন্তের দাবী জানিয়ে গত ১৫ মে ২০১৯ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ৫ম আদালতে লাশ উত্তোলনের আবেদন করেন ।

ম্যাজিষ্ট্রেট ফারজানা শাকিলা চৌধুরী সুমু আবেদন নামঞ্জুর করে দেন।  আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে বাদী জেলা ও দায়রা জজ আদালতে  রিভিশন মোকদ্দমা দায়ের করেন গত ১৬ জুন ২০১৯। 

মামলাটি মঞ্জুর করে পুন: শুনানির জন্য মাহবুবুর রহমানের আদালতে পাঠান জেলা ও দায়রা জজ রাশেদুজ্জামান রাজা । আজ মাহবুবুর রহমানের আদালত এ আদেশ প্রদান করেন।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, এলাকায় আধিপত্য ও এজমালী সম্পত্তির দখল ও জলমহালের টাকার হিসাব নিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে গোয়ালজুর গ্রামের আব্দুল লতিফ ও ফখরচটি গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল জলিল লোকজন গত ১৩ মার্চ বুধবার এলাকার বাখাইরপাড় গ্রামে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এতে আমীর আলী ঘটনাস্থলেই মারা যান।

কানাইঘাট নিউজ ডটকম/ডেস্ক/২৪জুন ২০১৯
যেভাবে ঘটল মৌলভীবাজারের ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা (ভিডিও)

যেভাবে ঘটল মৌলভীবাজারের ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা (ভিডিও)

সিলেট থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেস ট্রেন মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় বরমচাল রেলক্রসিং এলাকায় কালভার্ট ভেঙে লাইনচ্যুত হয়েছে। এ ঘটনায় একটি বগি খালে পড়ে যায় এবং অপর দুটি বগি ছিটকে রেললাইনের বাইরে সরে যায়। এখনও পর্যন্ত এ ঘটনায় ৬ জনের মৃত্যুর খবর জানা গেছে। এছাড়াও আহত হয়েছেন কয়েক শ মানুষ।
রোববার (২৩ জুন) দিবাগত রাত ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যায়।
প্রতিদিনের মতো রোববারও (২৩ জুন) রাতে সিলেট ছেড়ে যায় গন্তব্যের উদ্দেশে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি সেতু ভেঙে পড়ায় ৫দিন ধরে বন্ধ সড়ক পথ। তাই রেলপথই ছিল মানুষের ভরসা। ফলে এদিন ট্রেনে ছিল যাত্রীদের ভিড়। আসন সংকট দেখা দেওয়াতে অসংখ্য যাত্রী দাঁড়িয়ে যেতে হয়।
সিলেট ছাড়ার পর পরবর্তী স্টেশন মাইজগাঁও বিরতি নিয়ে পারম্ভিক স্টেশন কুলাউড়া জংশনে থামার কথা ছিল ট্রেনটি।
পথে লোকাল স্টেশন বরমচাল ছেড়ে চা বাগান থেকে নেমে আসা মনছড়া রেল সেতু অতিক্রম করতে গিয়েই ঘটে দুর্ঘটনা। দুর্ঘটনায় পেছনের গার্ডের ব্যবহৃত বগিটি ছড়ার পানিতে পড়ে যায়, ২ টি জমিনে উল্টে যায় ও ৩টি বগি লাইনচ্যুত হয়। অন্যগুলো রেল লাইনের উপরেই থেকে যায়।
এতে ঘটনাস্থলে নারীসহ ৩ জন যাত্রী মারা যান। পরবর্তীতে নিহতের সংখ্যা দাঁড়ায় ৬ জনে।
স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক আহতদের অনেককে উদ্ধার করে নিযে যান বিভিন্ন হাসপাতালে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১০ টি ইউনিট ঘটনাস্থলে উদ্ধার কাজ শুরু করে। পাশাপাশি উদ্ধার কাজে ১০ টি অ্যাম্বুলেন্সে ব্যবহার করে আহতদের কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ আশপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়া হয়।
এমন ভয়াবহ দুর্ঘটনা কিভাবে ঘটলো? সে বিষয়টি নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। তবে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, রেল ব্রিজটি অনেক পুরোনো। গাড়ি সেতু অতিক্রম করার সময় কোথাও স্লিপারে লুজ কানেকশন থাকার কারণে রেল সরে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রেলওয়ে কুলাউড়ার উদ্ধারকারী দলের দুই সদস্য গণমাধ্যমকে এমন তথ্য নিশ্চিত করেন।
তারা বলেন, ট্রেনের পেছনের দিক থেকে ৬ নম্বর বগিটি লাইনচ্যুত হতেই সংযোগস্থলের হুকগুলো ভেঙে একটি বগি অন্যগুলোকে ধাক্কা দিলে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। আর ট্রেনটির ভারে সেতুও বেঁকে গেছে। এ ঘটনার পর থেকে সিলেটের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।
ভোর ৫টার দিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উদ্ধারকারী দলের এক সদস্য জানান, রেলওয়ের শতাধিক কর্মী হতাহতদের উদ্ধারের পর ভোর ৫টা পর্যন্ত সামনের ৭টি বগি তারা উদ্ধার করেছেন। অন্য বগিগুলো উদ্ধারে সক্ষমতা তাদের নেই। তাই আখাউড়া থেকে উদ্ধারকারী ট্রেন আনা হবে।
ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ার বিষয়ে কুলাউড়া জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল মালেক জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্লিপার সরে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
সকাল সাড়ে ৯টায় ঘটনাস্থলে পৌঁছান রেল সচিব মোফাজ্জেল হোসাইন। তখন চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়।
ভিডিও-- </
যেসব কারণে গুরুত্বপূর্ণ বাংলাদেশের আজকের ম্যাচ

যেসব কারণে গুরুত্বপূর্ণ বাংলাদেশের আজকের ম্যাচ

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সপ্তম ম্যাচের প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। নিজেদের ৬টি ম্যাচেই হেরে যাওয়ায় তাদের সেমিফাইনালের সম্ভাবনা শেষ হয়ে গেলেও বাংলাদেশের বিপক্ষে জয় ছাড়া অন্য কিছু চিন্তা করছেন না বলে ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন আফগান অধিনায়ক গুলবদন নাইব।
এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পারফরমেন্স তাদের তুলনায় ভাল হলেও আফগানিস্তানের অধিনায়ক নিজেদেরকে বাংলাদেশের চেয়ে ‘দুর্বল দল’ বা ‘আন্ডারডগ’ হিসেবে মানতে নারাজ বলে প্রতিবেদনে তুলে ধরেছে বিবিসি বাংলা।

ওই প্রতিবেদনে আরও তুলে ধরা হয়- সোমবার (২৪ জুন) বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচের পরে পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলা বাকি থাকবে আফগানিস্তানের।

বিশ্বকাপের খবর সংগ্রহ করতে যাওয়া বাংলাদেশের একটি টেলিভিশন চ্যানেলের সাংবাদিক তাওসিয়া ইসলাম বিবিসি বাংলার সাথে সাক্ষাতকারে বলেছেন, তিনি মনে করেন বেশ কয়েকটি কারণে বাংলাদেশের জন্য এই ম্যাচটি বিশেষ গুরুত্ব বহন করে। আর সেসব কারণেই এবারের বিশ্বকাপের অন্যান্য ম্যাচের চেয়ে অনেক ক্ষেত্রে আলাদা এই ম্যাচ।
অন্তত একটি জয় চায় আফগানিস্তান
মিজ ইসলাম বলেন, ‘ছয়টি ম্যাচের সবকটিতে হারা আফগানদের আর হারানোর কিছু নেই। এবারের বিশ্বকাপে অন্তত একটি জয় চায় তারা। আর নিজেদের শেষ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ভাল পারফর্ম করে দলের আত্মবিশ্বাস অনেক বেড়েছে। আর সেই জয়টা যে তারা বাংলাদেশের বিপক্ষেই তুলে নিতে চায়, সেবিষয়টিও বেশ আত্মবিশ্বাসের সাথেই সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা করেন আফগান অধিনায়ক।’
মিজ. ইসলাম মনে করেন আফগানদের এই মরীয়া মানসিকতা বাংলাদেশের বিপক্ষে তাদের প্রধান অনুপ্রেরণা হতে পারে।
একই মাঠে টানা দ্বিতীয় ম্যাচ আফগানদের
বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচের ভেন্যু সাউদাম্পটনের রোজ বোল স্টেডিয়ামে ২২শে জুন ভারতের বিপক্ষে খেলেছে আফগানিস্তান। একদিনের ব্যবধানে আবার একই মাঠে নামছে তারা।
মিজ. ইসলাম জানান, ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচটি যেই পিচে হয়েছে, সে পিচেই হবে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচও।
এবারের আসরে ওভালের যেই পিচে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ হয়েছিল, বাংলাদেশ – নিউজিল্যান্ড ম্যাচটিও হয়েছিল একই পিচে। কিন্তু ঐ দুই ম্যাচের মধ্যে তিনদিনের ব্যবধান ছিল, বলেন মিজ. তাওসিয়া।
তার মতে, একদিনের ব্যবধানে একই পিচে খেলা হলে ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচের মতই দারুণ স্পিন সহায়ক উইকেট হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।
কয়েকদিন ধরে সাউদাম্পটনে থাকার কারণে এবং এই মাঠে এরই মধ্যে একটি ম্যাচ খেলায় আবহাওয়ার সাথে খাপ খাওয়ানো বা মাঠের সাথে পরিচিতির হিসেবে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের চেয়ে আফগানরা কিছুটা সুবিধা পেতে পারেন বলে মনে করেন মিজ. ইসলাম।
স্পিনারদের ম্যাচ!
ইংল্যান্ডের আবহাওয়া অনুযায়ী তাদের পিচ তৈরির ধরণের হিসেব অথবা এবারের বিশ্বকাপের দলগুলোর বোলিংয়ের পরিসংখ্যানের হিসেব – যে কোনো ভাবে বিবেচনা করলে সহজেই বোঝা যায় যে ঐ কন্ডিশনে একটি দলের বোলিংয়ের মূল অস্ত্র পেসাররা।
তবে মিজ. ইসলাম মনে করেন, বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচে এই ধারার বিপরীত দেখা যেতে পারে।
ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচে আফগান স্পিনারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের কারণে খুব একটা বেশি রান তুলতে পারেনি ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন আপ।
আর ঐ পিচেই একদিনের ব্যবধানে ম্যাচ হওয়ায় উইকেট আরো বেশি স্পিনারদের সহায়তা করবে বলে মনে করেন মিজ .ইসলাম।
তিনি বলেন, এই উইকেটে যত বেশি সময় খেলা হবে, পিচ ততই স্পিন সহায়ক হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। কাজেই দ্বিতীয় ইনিংসে বোলিং করা দল উইকেট থেকে বেশি টার্ন পেতে পারে।
তবে ম্যাচের দিনের আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হচ্ছে, প্রায় সারাদিনই আকাশ মেঘলা থাকতে পারে এবং বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণও থাকবে বেশি। সেই হিসেবে স্পিনাররা যথেষ্ট টার্ন না’ও পেতে পারে।
বাংলাদেশ দলে ইনজুরি
টুর্নামেন্টের প্রথম কয়েকটি ম্যাচে দলের খেলোয়াড়দের ফিটনেস নিয়ে কোনো সমস্যার কথা শোনা না গেলেও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি মোসাদ্দেক হোসেন এবং মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন।
এ ছাড়া রোববার অনুশীলনের সময় মেহেদি হাসান মিরাজও চোট পান বলে খবর পাওয়া যায়।
মিজ. ইসলাম জানান, আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে অফস্পিনার মোসাদ্দেক হোসেন একাদশে আসতে পারেন বলে ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে ইঙ্গিত দিয়েছেন বাংলাদেশের কোচ স্টিভ রোডস।
আর কিছুটা আঘাত পাওয়া মিরাজও খেলার জন্য পুরোপুরি ফিট রয়েছেন বলে নিশ্চিত করেন।
নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক