Previous
Next

সর্বশেষ


Thursday, February 21

কানাইঘাট উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

কানাইঘাট উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মহান শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস কানাইঘাট উপজেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে।

উপজেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের নিয়ে র‌্যালী পরবর্তী সময়ে গাছবাড়ী ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের হল রুমে এক আলােচনা সভার আয়োজন করা হয়।


উপজেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মো: মহি উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সহকারী শিক্ষক সেলিম উদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন গাছবাড়ী জামিউল উলুম ফাজিল মাদ্রাসার শিক্ষক মাও: ফিরোজ বক্ত। 


বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাছবাড়ী ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক সাহিদুর রহমান,মাও: করম উদ্দিন,খাদিজা আক্তার,জসিম উদ্দিন,বাহার উদ্দিন,তানজিনা আক্তার,তপন রাম দাস,আশিক আহমদ,আনোয়ার হুসেন,রুজিনা বেগম,তামান্না বেগম,জেসমিন বেগম প্রমূখ।


কানাইঘাট নিউজ ডটকম/২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং
কানাইঘাটে হামিদা ফাউন্ডেশনের ২৫তম মেধাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন

কানাইঘাটে হামিদা ফাউন্ডেশনের ২৫তম মেধাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক:
শিশুরা নিষ্পাপ-ফুলের মতো, তোমরা এগিয়ে গেলে পুরো জাতি এগিয়ে যাবে। শিক্ষা মানুষের মৌলিক অধিকার। শিক্ষিত জাতি গঠনে সবাইকে শিক্ষার আলোয় আলোকিত করতে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে। কানাইঘাট উপজেলায় সরকারের শিক্ষা সহায়ক কার্যক্রম দ্রুত থেকে দ্রুততর জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে সরকারের বিভিন্ন সংস্থা কাজ করছে। পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতি সংগঠন নিজ নিজ সাধ্যানুযায়ী কাজ করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করছেন। আর এ লক্ষ্যে হামিদা ফাউন্ডেশন গত ২৫ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে। 

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় স্থানীয় ছোটদেশ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কানাইঘাট হামিদা ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত ২৫তম মেধা বৃত্তি প্রদান ও রজত জয়ন্তী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কানাইঘাটের কৃতি সন্তান মোঃ এহছানে এলাহী খোকন। 

অনুষ্ঠানে হামিদা ফাউন্ডেশনের ২৫ বছর পুর্তিতে রজত জয়ন্তী স্মারক এর মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধান অতিথি।

ফাউন্ডেশনের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ আব্দুশ শাকুরের সভাপতিত্বে ও কানাইঘাট সরকারি কলেজের প্রভাষক ফয়সল উদ্দিনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, ৬নং সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মামুন রশিদ,দয়ামীর ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক আফসার উদ্দিন আহমদ চৌধুরী, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি মাস্টার মুফজ্জিল আলী, সহকারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি খাজা আজির উদ্দিন, কানাইঘাট কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, ফাউন্ডেশনের সচিব মোঃ ফখরুল ইসলাম, সদস্য মোঃ আব্দুল হাই, শামসুল আলম জাকারিয়া প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন শিক্ষক আব্দুস সাত্তার।

অনুষ্ঠানে ২০১৪-১৭ সালে ১০০ জন ও ২০১৮ সালের ৫০জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে মেধাবৃত্তি ও সনদ এবং উপজেলার শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের সানরাইজ প্রি-ক্যাডেট স্কুল ও মানিকগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়কে শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে সনদ ও ক্রেস্ট বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ।

কানাইঘাট নিউজ ডটকম/২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং
কানাইঘাটে যথাযথ মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

কানাইঘাটে যথাযথ মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:
কানাইঘাটে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে।

দিবসের প্রথম প্রহরে রাত ১২টা ১মিনিটের সময় কানাইঘাট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা আন্দোলনে শাহাদত বরণকারী শহীদদের স্মরণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন প্রশাসনিক, সামাজিক, রাজনৈতিক ও পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

দিবসের সূচনা লগ্নে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড, উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, কানাইঘাট থানা পুলিশ, উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন, কানাইঘাট প্রেসক্লাব, কানাইঘাট পল্লীবিদ্যুৎ জোনাল অফিস সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শহীদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকল প্রশাসনিক কার্যালয়, সরকারি বেসরকারী ও স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়।

সকাল ১০টায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শোক র‌্যালী পরবর্তী আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবসের গুরুত্ব তুলে ধরে আলোচনার আয়োজন করা হয়। এছাড়া মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস উপলক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা করা হয়। বাদ যোহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং শিরনি বিতরণ করা হয়।

এসব অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানিয়া সুলতানা সভাপতিত্ব করেন। এছাড়া রাজনৈতিক, সামাজিক ও পেশাজীবি সংগঠনের উদ্যোগে আলোচনা সভা এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দিনভর শহীদদের স্মরণে বিভিন্ন অনুষ্ঠান মালার আয়োজন করা হয়।

কানাইঘাট নিউজ ডটকম/২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং
কানাইঘাট পৌরসভার উদ্যোগে আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

কানাইঘাট পৌরসভার উদ্যোগে আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মহান শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস কানাইঘাট পৌরসভার উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। 

২১শে ফেব্রুয়ারি শহীদ দিবস উপলক্ষ্যে পৌরসভার উদ্যোগে সকালে শোক র‌্যালীর মাধ্যমে কানাইঘাট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন সহ পরিষদের সকল কাউন্সিলরবৃন্দ, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

এ সময় শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করেন হাফিজ শাহিন আহমদ। এছাড়া পৌর পরিষদের উদ্যোগে শহীদদের স্মরণে বাদ যোহর দুর্লভপুর জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল ও শিরনি বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া মাহফিলে দেশ ও জাতির অগ্রগতি ও শান্তি কামনা করে ভাষা শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। এছাড়া সূর্যোদয়ের সাথে সাথে পৌর কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়।

কানাইঘাট নিউজ ডটকম/২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং
নিমিষেই ক্ষোভ দূর করার উপায়

নিমিষেই ক্ষোভ দূর করার উপায়

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক:
প্রতিদিনে ঘটে চলা ঘটনাগুলো মানুষের মনে কখনো কখনো দারুণ প্রভাব ফেলে এবং মাঝেমধ্যেই তা থেকে রাগের সৃষ্টি হয়। আপনি চাইলে নিমিষেই মনের মধ্যে জমে থাকা ক্ষোভ দূর করতে পারেন। জেনে নিন, কিভাবে নিমিষেই ক্ষোভের হাত থেকে মুক্তি মিলবে-
অনলাইন আলোচনা করবেন না 
ফেসবুকে আলোচনার ক্ষেত্রে আপনার বিপক্ষ ভাবনার মানুষও থাকবে যে কমেন্ট করলে আপনার রাগ বাড়বে ছাড়া কমবে না। তাই অনলাইনে আলোচনা করবেন না। বরং তার সঙ্গে সামনাসামনি আলোচনা করুন। দেখবেন মনের কথা বেরিয়ে গেলে মেজাজ ভালো হয়ে যাবে।
ডায়েরি লিখুন
ক্ষোভ কমানোর আরেক উপায় হল নিজের অভিজ্ঞতা ও মতামত লিখে ফেলা। দেখবেন এতে রাগ অনেকটা কমে যাবে। মনের ক্ষোভ প্রকাশ করাটাই বড় কথা। ক্ষোভ বেরিয়ে গেলে আর কোনও সমস্যা হবে না। ডায়েরি এক্ষেত্রে আপনার প্রিয় বন্ধু।
মেডিটেশন করুন
মনে রাখবেন কোনো কিছুর ওপরেই আপনার হাত নেই। সুতরাং এইসব নিয়ে চিন্তা করে কিছুই হবে না। যা হওয়ার সেটাই হবে। দিনে আধ ঘণ্টা ধ্যান করুন। দেখবেন ভাবনা চিন্তা না করে মেডিটেশন করলে নিজের মধ্যে সংযম আসবে। এর ফলে আর কোনওরকম ক্ষোভ থাকবে না।
অন্যরকম ভাবুন
কাজ করুন নিজেকে ঘরে বন্ধ করে খুব জোরে জোরে চিত্কার করুন। দেখবেন রাগ অনেকটা কমছে। রাগ কমানোর জন্য এই উপায় কিন্তু ভীষণ ভালো।
প্রিয়জনের সঙ্গে সময় কাটান
সব চিন্তা বাদ দিন। বরং নিজের সঙ্গী কিংবা পরিবারের সঙ্গে সময় কাটান। আনন্দের মধ্যে থাকলে মন ভালো হতে বাধ্য।
পৃথিবীর সবচেয়ে বড় মাছের বাজার

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় মাছের বাজার

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক:
টোকিওর কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত সুকিজি বাজার। বড় বড় সামুদ্রিক মাছের জন্য বিখ্যাত এটি। ৮৩ বছরের পুরনো বাজারটি ক্রেতা-বিক্রেতাদের হাঁকডাকে মুখরিত থাকে সবসময়। ১৯৩৫ সালে এ বাজারের যাত্রা শুরু।
গত বছর ১৬ অক্টোবর বিশ্বের বৃহত্তম এ বাজারটি কৃত্রিম দ্বীপ তোয়োসুতে স্থানান্তরিত করেছে জাপান সরকার। সুকিজিকে ২০২০ টোকিও অলিম্পিকের জন্য অস্থায়ী পার্কিংয়ের স্থান করা হবে। তাই সরকারের এ সিদ্ধান্ত।
বাজারসংশ্লিষ্টদের ধারণা, সরিয়ে নেয়ার ফলে জনপ্রিয়তা হারাতে পারে ঐতিহ্যবাহী বাজারটি। বিদেশি পর্যটকদের কাছেও জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে এটি। বাজার বন্ধের সিদ্ধান্তে হতবাক অনেক পর্যটকও।
এ বাজারে নির্ভেজাল পণ্য বিক্রি হয়। তাই ভালো পণ্যের জন্য এখানে ভিড় করেন সবাই। এটি জাপানের ঐতিহ্যের অংশ। সুকিজি বাজার বন্ধের ঘোষণার প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছিলেন বাজারসংশ্লিষ্টরা। এ বাজারটি গত বছর ৬ অক্টোবর বন্ধ হয়ে যায়। এদিনও সুকিজি মার্কেটে সর্বশেষ নিলামে ১৬২ কেজির টুনা মাছ ৩৭ হাজার ৮১৮ ডলারে বিক্রি হয়।
ওই দিন দুপুরে ২ লাখ ৩০ হাজার বর্গমিটার এলাকাজুড়ে এ বাজারের বিক্রিবাট্টার আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়। এরপরই শত শত মাছ বিক্রেতা বহু বছরের পুরনো ব্যবসায় কেন্দ্রটি নতুন স্থানে স্থানান্তর প্রস্তুতির তোড়জোড় শুরু করেন।
প্রতিদিন এখানে কমপক্ষে ৪০ হাজার মানুষের আনাগোনা চোখে পড়ে। বাজারটি টুনা মাছের জন্য বিখ্যাত হলেও এখানে বিভিন্ন দামের চার শতাধিক সামুদ্রিক মাছ পাওয়া যেত। শুঁটকি থেকে শুরু করে হিমায়িত, প্যাকেটজাত- সব ধরনের মাছই এখানে মেলে। ২০১০ সালের নিবন্ধন অনুযায়ী, বাজারটিতে ৬০ থেকে ৬৫ হাজার কর্মী কাজ করছেন।
কিন্তু বাজারটি ক্রমেই অস্বাস্থ্যকর হয়ে ওঠায় কর্তৃপক্ষ একে একটি নতুন জায়গায় সরিয়ে নেয়ার পরিকল্পনা করে। এছাড়া ২০২০ টোকিও অলিম্পিকের জন্য এই অঞ্চল পুনর্নির্মাণ করা হবে।
এসব কারণেই টোকিও তোয়োসুতে বাজারটি সরিয়ে নেয়া হয়েছে। আর সুকিজিকে ২০২০ টোকিও অলিম্পিকের জন্য অস্থায়ী পার্কিং স্থান হিসেবে ব্যবহার করা হবে এবং পরবর্তী সময়ে একটি পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে।
বিশ্লেষকেরা জানান, দৈনিক প্রায় দেড় হাজার কোটি ডলারের মাছ বিক্রি হতো সুকিজি বাজারে। এছাড়া দেশটির অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখছে বাজার কেন্দ্র করে টোকিও উপসাগরের পাড়ে গড়ে ওঠা রেস্তোরাঁ ও সুপার মার্কেটগুলো।
যে কোন সময় ধ্বসে পড়তে পারে চকবাজারের ওয়াহিদ ম্যানশন

যে কোন সময় ধ্বসে পড়তে পারে চকবাজারের ওয়াহিদ ম্যানশন

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক:
রাজধানীর চকবাজারে মর্মান্তিক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৮১টি তাজা প্রাণের অবসান হয়েছে । গতকাল বুধবার রাত ১০টা ৩৮ মিনিটে রাজধানীর পুরান ঢাকার চকবাজার থানার চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদের সামনের কয়েকটি ভবনে আগুন লাগে। আগুন লাগার দীর্ঘ ১৫ ঘণ্টা পর আগুন নিভিয়ে উদ্ধার অভিযানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়েছে।
উদ্ধার অভিযানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হলেও বিকেলে থেমে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যাচ্ছিলো চকবাজারের ওয়াহিদ ম্যানশনের ভেতর থেকে। এছাড়াও কিছুক্ষণ পর পর দেখা যাচ্ছে আগুণের শিখা। যেকোন সময় ভবনটি ধসে পড়তে পারে বলে জানিয়েছেন বুয়েটের একটি বিশেষজ্ঞ দল। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহত ৮১ জনে মাঝে ৪১ জনের পরিচয় মিলেছে। ঢাকা মেডিকেলের মর্গে স্বজনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে চারপাশের পরিবেশ। এছাড়া অন্য মরদেহগুলোর পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলে ঢামেক সূত্রে জানা গেছে।
এদিকে অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধদের মধ্যে ৯ জনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। এদের প্রাণও যায় যায় অবস্থা। এই ৯ জনের মধ্যে আটজনকে পোস্ট অপারেটিভ ওয়ার্ডে এবং একজনকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। এই ৯ জনের সবাই গুরুতর দগ্ধ। তাদের সবার শ্বাসনালী পুড়ে গেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢামেক বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইউনিটের প্রধান সমন্বয়কারী সামন্ত লাল সেন।
আইসিইউতে ভর্তি থাকা সোহাগের শরীরের ৬০ শতাংশ পুড়ে গেছে। আর পোস্ট অপারেটিভে ভর্তি আটজনের মধ্যে রেজাউল করিমের শরীরের ৫৭ শতাংশ পুড়ে গেছে। জাকির হোসেনের ৩৮ শতাংশ, মুজাফফর আহমদের ৩০ শতাংশ, আনোয়ার হোসেনের ২৮ শতাংশ, হেলাল উদ্দিনের ১৬ শতাংশ, সেলিমের ১৪ শতাংশ, মাহমুদের ১৩ শতাংশ এবং সালাউদ্দিনের ১০ শতাংশ পুড়ে গেছে।
বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইউনিটের প্রধান সমন্বয়কারী সামন্ত লাল সেন জানান, ভর্তি ৯ জনের মধ্যে কারও অবস্থাই ভালো নয়। প্রায় সবারই শ্বাসনালী পুড়ে গেছে।
নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক