Friday, May 31

কানাইঘাটে জমেছে ঈদের বাজার

কানাইঘাটের একটি পোশাক বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানে পোশাক দেখছেন ক্রেতারা।
মাহবুবুর রশিদ::
আর মাত্র ক'দিন পরেই মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর। ঈদ মানেই আনন্দ,ঈদ মানেই খুশি। আর এই আনন্দকে ভাগাভাগি করে নিতে কানাইঘাটে এখন পুরোদমে চলছে ঈদের কেনাকাটা। পছন্দমতো কেনাকাটায় ব্যাস্ত সময় পার করেছেন ক্রেতারা। ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে ক্রেতা সমাগমে জমজমাট হয়ে উঠেছে কানাইঘাটের ঈদ বাজার। ঈদ উপলক্ষে কানাইঘাটের শপিংমল,মার্কেটগুলো সাজানো হয়েছে বাহারি সাজে।

কানাইঘাট বাজারের আল-মদিনা ক্লথ ষ্টোর,গ্রামীণ বাজার,আমার শপ,জননী ফ্যাশন,সিদ্দিকী মহল,এনটি বস্ত্র বিতান,সাইমুম ফ্যাশন,তাহের সু ষ্টোর,রুমা সু ষ্টোর,আব্দুল্লাহ সু ষ্টোর,মারুফ সু ষ্টোর সহ বেশ কয়েকটি দোকান ঘুরে দেখা গেছে, ঈদ উপলক্ষে এসব দোকান সাজানো হয়েছে বাহারি পোশাক আর নিত্য নতুন ডিজাইনের জুতোয়।

উপজেলার কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ক্রেতা- বিক্রেতাদের যেন দম ফেলার ফুসরত নেই। শপিংমলগুলোতে কাপড় কিনতে পুরুষের চেয়ে নারী ও শিশুদের আনাগোনা বেশ লক্ষ্য করা গেছে। সকাল থেকে রাত অবধি চলছে ঈদের কেনাকাটা। ক্রেতারা কাপড় ক্রয়ের পাশাপাশি নতুন ডিজাইনের জুতোও কিনছেন। 
দর্জি দোকানগুলোতেও বইছে ঈদের আমেজ। চরম ব্যস্ত সময় পার করছেন দর্জি কারিগররা। কাজের ব্যস্ততায় ইতোমধ্যে অনেক দর্জি দোকানী নতুন করে অর্ডার নিচ্ছেন না।

কানাইঘাট দক্ষিণ বাজারের আমার শপ'র সত্বাধিকারী সরওয়ার ফারুকী জবলেন, ‌‍‌‍'ঈদ উপলক্ষে ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী আমরা নিত্য নতুন পোশাক সংগ্রহ করছি । বেচাকেনা মোটামুটি ভালোই  চলছে।  আশা করছি আরও দুয়েকদিন গেলে বেচাকেনা পুরোদমে জমে উঠবে।'

বাজারের ইলেকট্রিক পণ্যের ব্যবসায়ী বিলাল উদ্দিন বলেন,'শেষ মুহূর্তে মার্কেটে চরম ব্যস্ততা বেড়ে যায়। তাই আমি আগে থেকেই ঈদের কেনাকাটা করে রাখছি।'

বাজারে কেনাকাটা করতে আসা পৌরসভার বাসিন্দা জাহিদ হাসান বলেন, শিশুদের জন্য পোশাক কিনতে এসেছি। অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার কাপড়ের দাম একটু বেশি। তারপরও ঈদের আনন্দ বাড়িয়ে নিতে নতুন কাপড় কিনছি। 

কানাইঘাট উত্তর বাজারের জননী ফ্যাশনের মালিক জামাল উদ্দিন জাকারিয়া বলেন,'আমাদের এখানে নিম্ন আয়ের মানুষের জন্যও কেনাকাটা করার বিরাট সুযোগ রয়েছে। আমরা অতি সল্প মূল্যে পণ্য বিক্রি করে থাকি।'

তবে,ঈদের কেনাকাট করতে আসা  বেশিরভাগ ক্রেতার অভিযোগ, বাজারে সব ধরনের পোশাক পাওয়া গেলেও দাম বেশি বলে মনে হচ্ছে।
কানাইঘাট নিউজ ডটকম/এম আর/৩১ মে ২০১৯ ইং


শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়