এক নজরে কানাইঘাট

কানাইঘাটের নামকরন:
জনশ্রুতি আছে যে, বর্তমান কানাইঘাট বাজারের তীরবর্তী সুরমা নদীর ঘাটে কানাই নামক একজন মাঝির নামানুসারে ‘কানাইরঘাট’ নামকরন করা হয়। মতান্তরে একজন প্রভাবশালী ব্যক্তির নামানুসারে এই নাম পরিবতিত হয়ে কানাইঘাট হয়েছে।
২৪/০৩/১৯৮৩ তারিখে কানাইঘাট থানা উপজেলায় উন্নীত হয়।



উপজেলার মানচিত্র
 আয়তন ৪১২ বর্গ কিমি। উত্তরে ভারতের মেঘালয় রাজ্য, দক্ষিণে বিয়ানীবাজার ও জকিগঞ্জ উপজেলা, পূর্বে ভারতের আসার রাজ্য, পশ্চিমে জৈন্তাপুর গোলাপগঞ্জ উপজেলা। প্রধান নদী-সুরমা, জলমহাল-৭২টি। প্রধান -আমরি, মনিকা, চাতল, রোয়া।উপজেলা শহর ৫টি মৌজা নিয়ে গঠিত। আয়তন ৩.৩৬ বর্গ কিমি। জনসংখ্যা ৪৫৯০, পুরুষ ৫৩.৭%, মহিলা ৪৬.৩%। জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিমি ১৩৬৬ জন। শিক্ষার হার ৩১.৫%। ডাক বাংলো ১ টি।প্রশাসক থানা সৃষ্টি ১৯৩২ সালে। বর্তমানে একটি উপজেলা। ইউনিয়ন ৯, মৌজা ২৫২টি, গ্রাম ২৮৮টি।
ঐতিহাসিক ঘটনাবলি ১৯২২ সালের ২৩ মার্চ কানাইঘাট মাদ্রাসার বার্ষিক জলসা চলাকালে তখনকার সরকার ১৪৪ ধারা জারী করে সমাবেশ নিষিদ্ধ করলে উদ্যোক্তারা ১৪৪ ধারা ভংগের সিদ্ধান্ত নেয় এবঙ কমিশনারকে আক্রমন করে। এ ঘটনায় পুলিশের গুলিতে ৬ জন নিহত ও ৩৮ জন আহত হয়। এটি ‌‍কানাইঘাটের লড়াই নামে পরিচিত।জনসংখ্যা-১৭৮৬৫৪,পুরুষ-৫০.৪৯%, মহিলা৪৯.৫১%। মুসলমান ৯৫%, হিন্দু-৪.১০%, খ্রিস্টান ০.২%, আদিবাসী ০.৩%। প্রায় ৩০টি খাসিয়া পরিবার বাস করে।
ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান: মসজিদ-৪৭১টি, মন্দির-১৪টি, গির্জা ২টি। কানাইঘাট বাজার জামে মসজিদ উল্লেখযোগ্য। শিক্ষার হার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড় হার-৪১.৮৫%, পুরুষ-৫০%, মহিলা৩৩.৭% শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমুহ: কলেজ-৩টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয়-১০টি, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ৯১, বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ২০টি, মাদ্রাসা-৩৭টি।
প্রাচীন প্রতিষ্ঠান: ঝিংগাবাড়ী সিনিয়র মাদ্রাসা(১৮৮২), কানাইঘাট মনসুরিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা(১৮৮৯), গাছবাড়ী জামিউল উলূম আলিয়া মাদ্রাসা(১৯০১), ছোটদেশ উচ্চ বিদ্যালয় (১৯৪৮)।
সাংস্কৃতির প্রতিষ্ঠান: গ্রামীণ ক্লাব-২০টি, খেলার মাঠ-১০টি। জনগোষ্ঠীর প্রধান পেশা সমুহ:
কৃষি-৪৪.২৮%, মৎস্য-৩.৩৬%, কৃষি শ্রমিক-১৭.৩২%, অকৃষি শ্রমিক-৯.৩৯%, ব্যবসা-৬.৬৯%, চাকরী-৪.১৭%, অন্যান্য-১৪.৭৯%।
ভূমি ব্যবহার আবাদি জমি- ২৪৬৮৬.৩৬ হেক্টর, অনাবাদি-১৫৬৩৩.৩৫ হেক্টর। বনভূমি ৬৯০.৮১ হেক্টর, চা বাগার-৫টি। ভূমি নিয়ন্ত্রণ: ভূমিহীণ-৩৬%, ক্ষুদ্র চাষী-২৯%, মধ্যম চাষি-২০%, বড় চাষি-১৫%। মাথাপিছু আবাদি জমি ০.১৪ হেক্টর। প্রথম শ্রেণীর আবদি জমির মূল্য ০.০১ হেক্টর প্রতি ১০০০০ টাকা। 

প্রধান কৃষি ফসল : ধান, চা, আলু, তেজপাতা, পান, সুপারি, সব্জি। বিলুপ্ত প্রায় ফসলাদি: তামাক, পাট।
প্রধান ফল-ফলাদী :
 কাঠাল, আনারস, লেবু।
 মৎস্য: গবাদী পশু, হাস মুরগির খামার, মৎস্য ১৮টি, গবাদি পশু খামার ২৬টি, হাস-মুরগি-২৮টি।
যোগাযোগ :
বিশেষত্ব পাকা রাস্তা ৪০ কিমি, কাচা রাস্তা ১২২ কিমি।
বিলুপ্ত প্রায় বা বিলুপ্ত প্রায় সনাতন বাহন :
পালকি, গরুর গাড়ি। কুটির শিল্প, স্বর্ণকার-৩০ জন, কামার ৮৫ জন, কুমার ১২৫ জন।
হাট বাজার :
 মেলা হাট বাজার -১৩টি, মেলা-৩টি, কানাইঘাট বাজার, গাছবাড়ী বাজার উল্লেখযোগ্য। প্রধান রপ্তানি দ্রব্য : চা, পান, তেজপাতা। এনজিও কার্যক্রম : ব্র্যাক, আশা, গ্রামীণ ব্যাংক, সীমান্তিক।
স্বাস্থ্য কেন্দ্র : উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র ১টি, পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র- ১টি, পরিবার পরিকল্পনা উপকেন্দ্র-৯টি।


আরো আপডেট তথ্য শ্রীঘ্রই আসছে.......

+ comments + 1 comments

Post a Comment

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

 
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: মো:মহিউদ্দিন,সম্পাদক : মাহবুবুর রশিদ,নির্বাহী সম্পাদক : নিজাম উদ্দিন। সম্পাদকীয় যোগাযোগ : শাপলা পয়েন্ট,কানাইঘাট পশ্চিম বাজার,কানাইঘাট,সিলেট।+৮৮ ০১৭২৭৬৬৭৭২০,+৮৮ ০১৯১২৭৬৪৭১৬ ই-মেইল :mahbuburrashid68@yahoo.com: সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত কানাইঘাট নিউজ ২০১৩