Wednesday, May 22

লাশ দিয়ে তৈরি করবে জৈব সার!

নিউজ ডেস্ক:

মৃত্যুর পর মানব শরীর দিয়ে কম্পোস্ট বা জৈব সার তৈরির অনুমতি দিয়ে একটি আইনের অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন অঙ্গরাজ্য।

ওয়াশিংটন অঙ্গরাজ্যের গভর্নর জে ইনস্লে মঙ্গলবার স্বাক্ষর করার পর ওই বিলটি আইনে পরিণত হয়েছে। 
বিলের পক্ষে আন্দোলনকারী ক্যাটরিনা স্পাড বলেন, সাধারণ কবর দেয়ার বদলে এরকম মাটির সাথে মিশে যাওয়ার বিকল্প পদ্ধতি হবে প্রাকৃতিক, নিরাপদ এবং স্থায়ী। এটি পৃথিবীতে মাটির ব্যবহার ও কার্বন নিঃসরণ কমাতে ভূমিকা রাখবে।
এই আইন অনুযায়ী, যে কেউ নিজের মৃত্যুর পর মরদেহ মাটির সঙ্গে মিশিয়ে কম্পোস্ট সার তৈরির নির্দেশনা দিয়ে যেতে পারবেন।  
প্রচলিত রীতিতে কবর দেয়ার বিকল্প হিসেবে এই পদ্ধতিকে দেখা হচ্ছে। মাটির সঙ্গে মিশে মৃতদেহ সারে পরিণত হওয়ার পর সেই মাটি প্রিয়জনদের দেয়া হবে। যেন তারা এতে ফুলগাছ, সবজির চারা বা বৃক্ষ রোপণ করতে পারেন।
ক্যাটরিনা স্পাড আরো বলেন, ছয়টি কোণ বিশিষ্ট একটি ইস্পাতের বাক্সের ভেতর এক ধরণের উদ্ভিদ-যা প্রাণীদেহ কেন্দ্র করে বেড়ে ওঠে, কাঠের টুকরো আর খড়কুটো দিয়ে মৃতদেহ রাখা হবে। এরপর সেই বাক্সটি বন্ধ করে দেয়া হবে। পরবর্তী ৩০ দিনের মধ্যে প্রাকৃতিকভাবেই মৃতদেহ পচে যাবে এবং মাটিতে পরিণত হবে। 
তিনি বলেন, পরিবেশ-বান্ধব এমন সমাধি দিনে দিনে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। চলতি মাসের শুরুতে প্রয়াত অভিনেতা লুক পেরিকে ক্যালিফোর্নিয়ার একটি মাশরুম স্যুইটে সমাধি দেয়া হয়।
ওই স্যুইটের নির্মাতা জে রাইম লি বলেন, যখন কোনো মৃতদেহ মাটিতে সমাধি দেয়া হয় বা পুড়িয়ে ফেলা হয়, তখন যে বিষাক্ত গ্যাস পরিবেশে মেশে এই প্রক্রিয়ার ফলে সেটি কমে যাবে।

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়