Thursday, November 29

লাশ ৭ টুকরো করে ফ্রিজে, পুলিশের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত আসামি

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক:
সাভারের আশুলিয়ায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জানিয়েছে, তিনি একটি হত্যা মামলার আসামি। বৃহস্পতিবার ভোররাতে আশুলিয়ার ইয়ারপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশের দাবি। নিহত ব্যক্তির নাম বাবুল মিয়া (২৭)। তিনি ইয়ারপুর এলাকার পোশাকশ্রমিক মেহেদী হাসান টিপু হত্যা মামলার প্রধান আসামি। তার বাড়ি বগুড়া জেলার সোনাতলা থানার টেকনিমুন্সীপাড়া গ্রামে। আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপু দাবি করেন, কয়েক দিন আগে মেহেদী হাসান টিপুকে অপহরণ করা হয়। পরে তার সাত টুকরা লাশ ফ্রিজের মধ্যে পাওয়া যায়। ‘এ ঘটনায় মেহেদী হাসান টিপুর স্ত্রী শম্পা বেগম আশুলিয়া থানায় বাবুল মিয়াকে প্রধান আসামি করে অপহরণ ও হত্যা মামলা করেন। আজ ভোরে পুলিশ খবর পায়, বাবুল মিয়া ইয়ারপুরের মুন্নার বাঁশবাগানে অবস্থান করছে।’ ওসি আরো দাবি করেন, পুলিশ আসামি ধরার জন্য সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় বাবুল মিয়া ও তার সহযোগীরা পুলিশের ওপর গুলি চালায়। পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে বাবুল মিয়া গুরুতর আহত হন। পরে তাকে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। বাবুল মিয়ার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওসি। তিনি আরো বলেন, ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক