Wednesday, October 25, 2017

সবজি চাষে স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন শফিকুল


নিজস্ব প্রতিবেদক: সবজি চাষ করে স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন কানাইঘাট পৌরসভার মহেশপুর গ্রামের মরহুম শামছুল হকের পুত্র শফিকুল হক। তিনি পেশায় একজন কৃষক। তার একটাই স্বপ্ন ফরমালিন মুক্ত সবজি চাষ করে তিনি বাজারজাত করবেন। বর্তমানে তার উৎপাদিত সবজি কানাইঘাটে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বর্তমানে ফরমালিন মুক্ত সবজি চাষে আশানুরূপ উৎপাদন হওয়ায় তিনি নিজেকে আর্তিক ভাবে স্বাবলম্বি হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। জানা যায়, কানাইঘাট পৌরসভার মহেষপুর শফিকুল হক বিভিন্ন জাতের সবজী চাষের মাধ্যমে বেকারত্ব ও দরিদ্রতা দুর করতে নিজস্ব জমি-জমা না থাকায় অন্যের জমিতে বর্গা চাষ করে কঠিন পরিশ্রমের মাধ্যমে নিজের ভাগ্যকে পরিবর্তন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। বর্তমানে ফরমালিন মুক্ত সবজি চাষে আশানুরুপ উৎপাদন হওয়ায় তিনি নিজেকে আর্থিক ভাবে স্বাবলম্বি হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। শফিকুল হক মনে করেন তার প্রতিদিনের হাড় ভাঙ্গা পরিশ্রমের ফরমালিন মুক্ত ফসল জনগনের কিছুটা হলেও পুষ্টির চাহিদা পুরণ করবে। বর্তমানে তার উৎপাদিত ফসলের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল- বরবটি, লাউ, শীম, কচুরাজ, লালশাক, করলা ইত্যাদী। তিনি প্রায় ৪ একর জায়গার উপর বিভিন্ন জাতের ৪টি সবজি বাগান করেছেন। কানাইঘাট উপজেলা প্রশাসনের বাউন্ডারী এলাকায় রয়েছে তার সকল সবজি বাগান। এছাড়া বর্তমানে শফিকুল হকের প্রতিটি সবজী বাগানের নিচে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তির মাধ্যমে রয়েছে মৎস্য চাষের খামার। তিনি তার লাউ ও শীম বাগানের নিচে চাষ করছেন তেলাপিয়া ও পাংকাস মাছ। সবকিছু মিলিয়ে দরিদ্র কৃষক শফিকুর রহমানের চোখে মুখে এবার স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন। কানাইঘাট উপজেলা প্রশাসনের আশেপাশে তার সবজী বাগানের চাষাবাদ হওয়ায় তাকে সার্বিক ভাবে সহযোগীতা করছেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মুন্সী তোফায়েল হোসেন। এছাড়া উক্ত চাষাবাদে তাকে সহযোগীতা করছেন উপজেলা উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা মনসুর আলম, পৌরসভা ব্লকের উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কবির আহমদ। কৃষক শফিকুল হক বলেন, উপজেলা কৃষি অফিস তাকে যে ভাবে পরামর্শ ও সহযোগিতা করে আসছেন। এভাবে তিনি সব সময় সহযোগীতা পেলে ফরমালিনমুক্ত সবজী চাষ করে তিনি সফলতার শিকড়ে পৌছতে পারবেন। এছাড়া তিনি মাছ ও সবজী চাষের জন্য আরো কয়েক বিগা জায়গা বর্গা নিয়ে তার চাষাবাদ এরিয়া বাড়াবেন। এতে এলাকার কয়েকজন বেকার যুবককে তিনি কাজে লাগাতে পারবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এদিকে গত বৃহস্পতিবার তার ফরমালিন মুক্ত সবজী বাগান পরিদর্শন করেন, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাতবাঁক ইউপি চেয়ারম্যান মস্তাক আহমদ পলাশ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মুন্সী তোফায়েল হোসেন, কানাইঘাট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, কানাইঘাট পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তাজ উদ্দিন, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জুনেদ হাসান জিবান, সাতবাক ইউপি সদস্য শাব্বির আহমদ প্রমূখ।

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক