Saturday, November 27

কানাইঘাটে গাসকযুস বৃত্তি পরীক্ষা

কানাইঘাটে গাসকযুস বৃত্তি পরীক্ষা

কানাইঘাটে গাসকযুস বৃত্তি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও শান্তিপুর্ণভাবে অনুষ্ঠিত
বিপুল উতসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও কানাইঘাটের সামাজিক,স্বেচ্ছাসেবী ও অরাজনৈতিক সংগঠন গাছবাড়ী সমাজ কল্যাণ যুব সমিতির ১৩ তম মেধা যাচাইমুলক প্রাথমিক বৃত্তি পরীা গতকাল শুক্রবার (২৬/১১/১০) অনুষ্ঠিত হয়। এই পরীায় সমিতির কার্যক্রম এলাকার ১৪ টি শিা প্রতিষ্ঠানের চতুর্থ শ্রেণীর মোট ১০১ জন পরীাথর্ী অংশ নেয়। গাছবাড়ী মডার্ণ একাডেমী কেন্দ্রে সকাল ১০ টা হতে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত পরীা চলাকালীন সময়ে কেন্দ্র পরিদর্শন করেন কানাইঘাট প্রেসকাবের প্রতিষ্ঠাতা সহসভাপতি দেলওয়ার হোসেন সেলিম, আগফৌদ নারাইনপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক নুরুল ইসলাম , সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এখলাছুর রহমান এখলাছ প্রমুখ। পরীা নিয়ন্ত্রক ছিলেন সমিতির সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুর রহিম।সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ খসরু, অর্থ সম্পাদক বজলুর রহমান, ফখরুল ইসলাম ও মতিউর রহমান । রেজাল্ট প্রকাশ করা হবে ডিসেম্বর মাসের মধ্যে।

Monday, November 22

কানাইঘাটে সেভেন স্টার ক্রিকেট টুর্নামেনট সম্পন্ন

কানাইঘাটে সেভেন স্টার ক্রিকেট টুর্নামেনট সম্পন্ন

কানাইঘাটে সেভেন স্টার ক্রিকেট টুর্নামেনট সম্পন্ন

কানাইঘাট ভদ্রচটি সেভেন স্টার স্পোর্টিং কাব আয়োজিত ২দিন ব্যাপি সিঙ্ এ সাইড ক্রিকেট টুনর্ামেন্টের ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্টান গতকাল (২১/১১/১০) রোববার বিকেলে অনুষ্টিত হয়। সহানীয় ভদ্রচটি গ্রাম সংলগ্ন মাঠে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের মধ্যে পুরুষ্কার বিতরন করেন কানাইঘাট প্রেসকাবের প্রতিষ্ঠাতা সহসভাপতি, সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিম। সেভেন স্টার স্পোর্টিং কাবের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে এবং সেক্রেঠারী কামাল উদ্দিন ও সহ সেক্রেঠারী জামিল আহমদের যৌথ পরিচালনায় সংপ্তি বক্তব্য রাখেন কাবের উপদেষ্টা ফজলে রব্বানী, সদস্য মক্তার আহমদ, আব্দুল বাছিত, রুবেল, সুর্য তরুন ক্রিকেট কাবের অধিনায়ক শাহরিয়ার বখ্ত সাজু ও এস.এম.সি.সির অধিনায়ক আম্বিয়া প্রমুখ।টুনর্ামেন্টে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিন্দান্ত নেয় আগফৌদ নারাইনপুর সুর্য তরুন ক্রিকেট কাব। তারা ৫.৫ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ৭৩ রান সংগ্রহ করে। সরদারমাটি ক্রিকেট কাব (এস.এম.সি.সি.) ৭৪ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নেমে নিধর্ারিত ৬ ওভারে ৫ উইকেটে ৬৭ রান করতে সম হয়। ফলে ৬ রানে চ্যাম্পীয়ন হয় সুর্য তরুন ক্রিকেট কাব। ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন চ্যাম্পীয়ন কাবের ফজলে রাব্বী রিমন ও ম্যান অব দ্যা সিরিজ রানার্স আপ কাবের ইলিয়াছ। ধারা ভাষ্যকার ছিলেন সিদাম বাবু। প্রদান অতিথি চ্যাম্পীয়দের মধ্যে পুরস্কার হিসেবে ১টি ১৪ ইঞ্চি টেলিভিশন বাবদ নগদ ২হাজার ২শ টাকা ও ট্রফি, রানার্স আপের মধ্যে ৯ ইঞ্চি টেলিভিশন বাবদ নগদ ১হাজার ২শ টাকা এবং বিভিন্ন উপহার সামগ্রী বিতরন করেন। উলেখ্য, বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ভদ্রচটি সেভেন স্টার স্পোর্টিং কাব আয়োজিত ২দিন ব্যাপি সিকা্র-এ সাইড ক্রিকেট টুনর্ামেন্ট গত শনিবার শুরু হয়েছিল। # (বিজ্ঞপ্তি)

Thursday, November 18

কানাইঘাটে বিনা মূল্যে বীজ ও সার বিতরণ

কানাইঘাটে বিনা মূল্যে বীজ ও সার বিতরণ

দেশকেখাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করার লক্ষে বর্তমান সরকার কৃষকদের কল্যাণে যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে
.................হাফিজ মজুমদার এম পি
সিলেট-৫ (কানাইঘাট-জকিগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব হাফিজ আহমদ মজুমদার বলেছেন, জাতির চালিকা শক্তি কৃষক ভাইদের উন্নতি না হলে দেশের অগ্রগতি উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই বর্তমান সরকার কৃষি খাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধীকার দিয়ে কৃষকদের কল্যাণে ইতিমধ্যে যুগান্তকারী পদপে গ্রহণ করেছে। তিনি আরো বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকদের কল্যাণের জন্য তার ব্যক্তিগত প থেকে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। যাতে করে দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করার পাশাপাশি কৃষকরা তাদের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য পেতে পারে। সে ল্যে কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যে বীজ, সার, কৃষিপণ্য বিতরণ করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন ,কৃষি েেত্র সিলেট বিভাগ দেশের অন্যান্য অঞ্চল থেকে পিছিয়ে রয়েছে।সিলেটের সমস্ত অনাবাদি জমি কৃষি েেতর আওতায় আনার জন্য সরকার সিলেটের জন্য শত শত কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করেছে। হাফিজ আহমদ মজুমদার গত শনিবার সকাল ১১টায় কানাইঘাট উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা কৃষি পুনর্বাসন বাস্তবায়ন কমিটির উদ্যোগে কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যে বোরো বীজ ও সার বিতরণ উপল্যে আয়োজিত এক কৃষক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। কানাউঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকতর্া মতিউল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবীদ ড. রতন চন্দ্র দে'র পরিচালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরী, জেলা আ'লীগ নেতা লুকমান চৌধুরী, জমির উদ্দিন প্রধান, কুয়েত শাখা আ'লীগের সিনিয়র নেতা আব্দুল মুমিন চৌধুরী, উপজেলা আ'লীগের সভাপতি লুৎফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন আল মিজান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাতী রাণী দাস। বক্তব্য রাখেন ৭নং দণি বাণীগ্রাম ইউপির চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী, শফিক আহমদ প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে সংসদ সদস্য হাফিজ আহমদ মজুমদার কৃষি পুনর্বাসন কর্মসূচী-০২/২০১০ এর আওতায় ৬হাজার ২শ ৬০জন কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যে বোরো বীজ ও সার বিতরণ কার্যক্রমের শুভ উদ্ভোধন করেন।

Sunday, November 14

গাছবাড়ীতে ওপেন হাউজ ডে

গাছবাড়ীতে ওপেন হাউজ ডে


কানাইঘাট গাছবাড়ীতে ওপেন হাউজ ডে অনুষ্টিত

দেলওয়ার হোসেন সেলিম:

কানাইঘাটের গাছবাড়ী বাজারে গত কাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪ টায় ওপেন হাউজ ডে অনুষ্টিত হয়। কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ শফিকুর রহমান খানের সাভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেটের সিনিয়র এস পি আলি আশরাফ। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, গানের নামে গাজা, মদ জুয়া, গরু চুরি, ছিনতাই সহ সকল ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ কঠোরভাবে প্রতিরোধ করা হবে। এসব অপরাধের সাথে জড়িত কাউকে কোন ভাবেই ছাড় দেওয়া হবেনা। তিনি কঠোর হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন,এ সকল অপকর্ম ও অপরাধে জড়িতদের হাতে নাতে পাওয়া গেলে এবং প্রতিরোধকালে কোন বাধা আসলে প্রয়োজনে গুলি করা হবে। দণি বাণীগ্রাম ইউ পি চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন কানাইঘাট থানার নবাগত ওসি (তদন্ত) রুহুল আমিন,এস আই জাফর, ঝিংগাবাড়ী ইউ পি চেয়ারম্যান সইফ উল্লাহ, কানাইঘাট প্রেসকাবের প্রতিষ্টাতা সহ সভাপতি দেলওয়ার হোসেন সেলিম, গাছবাড়ী সমাজ কল্যান যুব সমিতির সভাপতি আতাউর রাহমান আক্তার, গাছবাড়ী উত্তর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব কুতুব উদ্দিন, সেক্রেটারি ডাক্তার নুরুজ্জামান, গাছবাড়ী দনি বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল মৌলা, মুরব্বী মরতুজা আলি, যুব নেতা নাজিম উদ্দিন প্রমুখ। উক্ত অনুষ্টানে এলাকার সর্বস্তরের লোকজন অংশ নেন এবং খোলামেলা ভাবে আলোচনা করেন। বিকেল সাড়ে ৪ টা থেকে রাত ৭ টা পর্যন্ত অনুষ্টিত এ অনুষ্টানে স্থানী জনসাধারন এলাকার বিরাজমান পরিস্তিতি ও সামপ্রতিক কালে সংঘটিত অপরাধ সমূহ সিলেটের সিনিয়র এস পি আলি আশরাফ এর কাছে তুলে ধরেন। এছাড়া জনবহুল ও গুরুত্বপূর্ণ গাছবাড়ী এলাকায় পুলিশি টহল আরো জোরদার করা সহ আইন শৃংখলা পরিস্তিতির উন্নতির ল েপ্রয়োজনীয় আশুপদপে নেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়
কানাইঘাটে জেএসসি পরীক্ষা

কানাইঘাটে জেএসসি পরীক্ষা


কানাইঘাটে জেএসসি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও শান্তিপুর্ণভাবে চলছে

ষ্টাফ রিপোর্ট:
বিপুল উতসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সারা দেশের ন্যায় সিলেটের কানাইঘাটে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীা (জেএসসি) চলছে। প্রথম বারের মতো এবার এই পরীা গত ৪ নভেম্বর থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে অনুষ্ঠিত হওয়ায় ছাত্র ছাত্রী , শিক ও অভিভাবকদের মধ্যে বাড়তি উৎসাহ ল্য করা যাচ্ছে। গতকাল উপজেলার গাছবাড়ী জেএসসি কেন্দ্র পরিদর্শনকালে উক্ত কেন্দ্রের সহ সচিব জিএম একাডেমীর প্রধান শিক মিফতাহুল বর চৌধুরী জানান, প্রথম বারের মতো এবার এই পরীা কেন্দ্রে ৩টি প্রতিষ্ঠানের মোট ২২৮ জন শিাথর্ী তালিকাভুক্ত হলেও পরীায় অংশ নিচেছ মোট ২২৫ জন। এই পরীা সম্পন্ন হবে আগামী ১৪ নভেম্বর
কানাইঘাটে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ

কানাইঘাটে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ

কানাইঘাটে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক ফুঠবল টুর্নামেন্টে নারাইনপুর পুরাতন বিদ্যালয় বিজয়ী
ষ্টাফ রিপোর্ট:
বিপুল উতসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে কানাইঘাটে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুনর্ামেন্টের উপজেলা পর্যায়ে ফাইনাল খেলায় বিজয়ী হয়েছে ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়নের আগফৌদ নারাইনপুর পুরাতন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। গত সোমবার কানাইঘাট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সকাল ১১ টায় আয়োজিত উক্ত টুনর্ামেন্টের ফাইনাল খেলায় রাজাগন্জ ইউনিয়নের খাগড়ীকান্দি নয়ামাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ১ - ০ গোলে পরাজিত করে । আক্রমনাত্বক খেলায় নির্ধারিত সময় খেলাটি গোল শূন্য ড্র হয় । অতিরিক্ত সময়ের প্রথমার্ধে আগফৌদ নারাইনপুর পুরাতন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র মোহাম্মদ আলীর দেয়া একমাত্র গোলে জয় নিশ্চিত হয়।



Wednesday, November 10

নানা সমস্যায় জর্জরিত কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজ

নানা সমস্যায় জর্জরিত কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কানাইঘাট ছাত্র কল্যাণ পরিষদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও উপজেলাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে ১৯৯০ সালের ৩০শে মে উপজেলা টিডিসি হলে এক গণসমাবেশের মাধ্যমে কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়। প্রথমে উপজেলার দুর্লভপুর মৌজার সরকারী বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রের অর্ধভাঙ্গা টিনসেটের ঘর মেরামত করে কলেজটির একাডেমিক কার্যক্রম চালু হয়। পরবর্তীতে এলাকার বিত্তবান শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিবর্গের সহযোগিতায় ও সরকারী বিভিন্ন অনুদানে পর্যায়ক্রমে কলেজের অনেকটা উন্নতি সাধিত হয়। কিন্তু দিন দিন ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় শ্রেণীকক্ষসহ একাডেমিক বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়ে কলেজটি। প্রতিদিন শত শত ছাত্রছাত্রীর পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে পুরো কলেজ ক্যাম্পাস। কলেজের বর্তমান ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা প্রায় আট শতাধিক,অধ্যক্ষ সহ কলেজের স্টাফ সংখ্যা ৪৮জন। স্টাফদের মধ্যে অধ্যক্ষ-১, শিক্ষক সংখ্যা-৩৩, শরীর চর্চা শিক্ষক-১, প্রদর্শক-১, লাইব্রেরীয়ান-১, অফিস সহকারী-২ এবং চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীর সংখ্যা-৯। কলেজের দ্বিতল বিশিষ্ট ৩টি ভবনে সর্বমোট ২২টি কক্ষ রয়েছে। এর মধ্যে বিজ্ঞানাগার ২টি, অধ্যক্ষের কার্যালয়-১টি, শিক্ষক মিলনায়তন ১টি, ছাত্রছাত্রীদের জন্য পৃথক পৃথক ২টি মিলনায়তন এবং বাকীগুলো পাঠদানের জন্য শ্রেণীকক্ষ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। কলেজের নানা সমস্যার মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য কয়েকটি সমস্যা হলো- শ্রেণী কক্ষের অভাব,কম্পিউটার স্বল্পতা,ল্যাবে ৪টি কম্পিউটার থাকলেও ২টি অকেজো রয়েছে। বিজ্ঞানাগারের অবস্থা আরো শোচনীয়। প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির অভাবে ছাত্র-ছাত্রীদের সঠিকভাবে প্রাক্টিক্যাল ক্লাস নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। কলেজে একটি লাইব্রেরী থাকলেও পর্যাপ্ত পরিমাণ বই না থাকায় ছাত্রছাত্রীরা প্রয়োজনীয় বিষয়ভিত্তিক বই না পেয়ে অনেক সময় ফিরে আসে। শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীদের জন্য নামাজের কোন ব্যবস্থা না থাকায় ক্যাম্পাসের মধ্যে ১টি মসজিদ নির্মাণ করা অতি জরুরী হয়ে পড়েছে। কলেজের বতর্মান অধ্যক্ষ শামসুল আলম জানান,নানা সমস্যার মাঝেও আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের আন্তরিকতার সাথে পাঠদান করছি।
কানাইঘাটে সুরমার ভাঙ্গনে শতাধিক গ্রাম

কানাইঘাটে সুরমার ভাঙ্গনে শতাধিক গ্রাম

কানাইঘাটে সুরমার ভাঙ্গনে শতাধিক গ্রাম
নিজস্ব প্রতিবেদক:
সিলেটের কানাইঘাট উপজেলা ঘেঁষে বয়ে যাওয়া সুরমা নদীর তীব্র ভাঙ্গনে উপজেলার ঝিঙ্গাবাড়ি ইউনিয়নের দলইমাটি, পাত্রমাটি, কোনা এবং এলাকার কয়েকটি শিা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দির, তৎকালীন বৃটিশ সরকার কতর্ৃক অনুমোদিত শিা প্রতিষ্ঠান ঝিঙ্গাবাড়ি সিনিয়র মাদ্রাসা ও দারুল কুরআন হাফিজিয়া মাদ্রাসা ঝিঙ্গাবাড়ি কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাত্রমাটি গ্রামের একমাত্র গোরস্থান এবং হিন্দু প্রাচীণতম একটি মন্দিরসহ শতাধিক ঘর-বাড়ি ইতিমধ্যে বিলীন হয়ে গেছে। বর্তমানে এ এলাকার জনসাধারণ নদী ভাঙ্গনের আশংকায় আরও বেশি আতংকিত হয়ে পড়েছেন। ভারত থেকে নেমে আসা সুরমা নদীর পানি কমতে থাকায় ও নদীতে প্রবল স্রোতের কারণে বর্তমানে নদী ভাঙ্গন ভয়াবহ আকার ধারন করেছে। উপজেলার সুরমা নদীর তীরবতর্ী এলাকা রায় ওয়াপ'দা কতর্ৃক বেড়িবাঁধ ইতিমধ্যে নদী গর্ভে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। প্রায় শতাধিক পরিবারের ঘর-বাড়ি, বসত-বাড়ি, আবাদীজমি, বাঁশ-ঝাড়, মসজিদ, গোরস্থান, মন্দির, নদীর ভাঙ্গনের কবলে পড়ে বিলীন হয়ে গেছে। তীরবতর্ী এলাকার যাদের সামর্থ ছিল তাহারা অন্যত্র পাড়ি জমিয়েছেন কিন্তু নেই যাদের কোন সামর্থ তারা এখন অসহায় হয়ে কেউ কেউ খোলা আকাশের নিচে রাস্তার ধারে অবস্থান করছেন। কোথায় যাবেন, কী করবেন এগুলো নিয়ে দিশেহারা হয়ে দিন কাটাচ্ছেন তারা বর্তমানে দলই-মাটি, পাত্র-মাটি, কোনা, ঝিঙ্গাবাড়ি কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, একটি হাফিজিয়া মাদ্রাসা, একটি গোরস্থান, একটি মন্দির, ভাঙ্গনে হুমকির মুখে পড়েছে। যে কোন সময় প্রতিষ্ঠানগুলো এবং গ্রামগুলোর অবশিষ্ট অংশ নদী গর্ভে বিলীন হতে পারে। এ নিয়ে আতংকের মধ্যে নদী পারে বসবাস করছেন শতাধিক পরিবার। দীর্ঘ দিনের এ ভাঙ্গন থেকে রা পেতে সরকারের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি এবং বিভাগের সাথে যোগযোগ করে আসছেন তারা। এরই প্রেেিত আপার সুরমা, কুশিয়ারা অনুমোদিত প্রকল্পে উক্ত এলাকার প্রায় ১৫ শত ফুট বাধ নিমর্াণের জন্য ২০০৯ সালে প্রকল্প তৈরির ল্যে পানি উন্নয়ন বোর্ড কতর্ৃপরে প থেকে পরিদর্শন করা হয়েছিল কিন্তু আজ পর্যন্ত উক্ত প্রকল্পের কোন অগ্রগতি নেই। ভাঙ্গন কবলিত এলাকাটি সরজমিনে দেখতে গেলে নদী পারে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রী, এলাকার প্রবীণ মুরবি্ব, সমাজ সেবি ব্যক্তিরা জড়ো হন। মতায় এসেছে। আমাদের এই গ্রামগুলো এবং প্রতিষ্ঠানগুলো নদী ভাঙ্গন থেকে রা করতে সরকারের সংশ্লিষ্ট কতর্ৃপরে আশু হস্তপে কামনা করেছেন এলাকাবাসী।
নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক