Friday, November 23

মহাজোট বিপুল ভোটে জয়ী হবে : ওবায়দুল কাদের

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক:

আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট বিপুল ভোটে জয়লাভ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের  সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।  

শুক্রবার (২৩ নভেম্বর) সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে  তিনি এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে আমাদের মহাজোট বিপুল ভোটে বিজয়লাভ করবে আগামী নির্বাচনে। বিজয়ের ব্যাপারে আমরা শতভাগ আশাবাদী। 

মনোনয়নপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশের বিষয়ে তিনি বলেন, মনোনয়ন তালিকা ২৭ নভেম্বরের মধ্যে করার কোনো বিকল্প নেই। ২৭ নভেম্বর অতিক্রম করা যাবে না। আমরা আওয়ামী লীগ এবং মহাজোট- ইলেক্টেবল ও উইনেবল প্রার্থীদেরই মনোনয়ন দেবো। 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, মনোনয়নের জন্য আমরা যে তালিকা চূড়ান্ত করেছিলাম, সেখানেও শেষ মুহূর্তে অনেক পরিবর্তন আসছে।

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, কোনো ধরনের সংখ্যাতত্ত্বের হিসবে আমরা দেবো না, তবে এটুকু বলতে পারি হিসেবের অংকে আগামী নির্বাচনে আমাদের দল ও জোট বিপুল ভোটে জয়লাভ করবে। তবে এসব কথা বলা উচিত নয়, এতে জনগণকে অসম্মান করা হয়। জনগণ আমাদের যত আসনে ভোট দেবে আমরা ততই পাব। আমরা কোন সংখ্যাতত্ত্বে বিশ্বাস করতে চাই না। কে কত আসন পাবে দেশের জনগণই তা ঠিক করবে।

বিএনপি স্বপ্ন বিলাসী দল এমন উল্লেখ করে কাদের বলেন, ‘এর আগে নির্বাচনে বিএনপি আমাদের ৩০ আসন দিয়েছিল, কিন্তু নিজেইরাই পেয়েছিল ৩০ আসন। আবার তাদের কেউ কেউ আমাদের ১০ আসনও দিয়েছিল। নয়াপল্টনে বিএনপি অফিসের সামনে যে জোয়ার দেখা যাচ্ছে, সেটা শুধু দলীয় কার্যালয়ের সামনেই, সারাদেশে নয়।  এই সাময়িক জোয়ারে ক্ষমতার রঙিন খোয়াব যদি বিএনপি নেতারা দেখেন, তাহলে ৩০ ডিসেম্বর টের পাবেন।’ 

নির্বাচনকে ঘিরে বিএনপি নেতাদের হয়রানি করা হচ্ছে এমন অভিযোগে বিষয়ে করা এক প্রশ্নে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তাদের নয়াপল্টনে একজন আবাসিক প্রতিনিধি রয়েছে।  এ ধরনের আজগুবি অভিযোগ তিনি করেন। এটা হচ্ছে মিথ্যাচার প্রডাকশনের জন্যই। জনমত পক্ষে না থাকলে প্রশাসন ও স্ট্যাব্লিশমেন্ট দিয়ে কোনও ম্যাকানিজম কাজ করবে না।’

বিএনপি’র নাশকতা নিয়ে শঙ্কা করছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘নাশকতা করা বিএনপির পুরনো স্বভাব। ২০১৪ সালে তারা যে নাশকতা করেছে, যে ভয়াবহ চিত্র তারা দেখিয়েছে।  শীতকালে নির্বাচন হওয়ায় নাশকতার শঙ্কা থাকেই।’

জোট শরিকদের সঙ্গে আসন ভাগাভাগি প্রসেঙ্গ এক প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন,  আসন নিয়ে দরকষাকষি তো হবেই, এটা গণতন্ত্রের অংশ। বিশ্বের অন্য দেশেও হয়। জোটে কোনো টানাপোড়েন নেই। এখানে বানরের পিঠা ভাগ করে লাভ নেই। সবকিছুই আমাদের নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই আছে। এখানে কে কত সিটে জিততে পারবে, এটাই হলো আমাদের প্রাইম কনসিডারেশন। আসন বণ্টন মৌখিকভাবে চূড়ান্ত হয়েছে। আমি বারবার বলেছি, প্রার্থীকে ইলেক্টেবল হতে হবে, ইউনেবল হতে হবে। সে ক্ষেত্রে ৬৫-৭০ এর জায়গায় ২/৪টা বাড়তেও পারে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যেরর মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আইন বিষয়ক সম্পাদক শ ম রেজাউল করিম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুর, উপ দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক