Friday, June 1, 2018

কানাইঘাট নারাইনপুর গ্রামে শান্তির দাবিতে মিছিল ও মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক: কানাইঘাট ঝিংগাবাড়ি ইউপির আগফৌদ নারাইনপুর গ্রামে শান্তি সম্প্রীতি ফিরিয়ে আনার দাবিতে এবং অবিলম্বে গ্রামের অশান্তির মূল হোতা একাধিক মামলার আসামী ইউপি সদস্য শরীফ উদ্দিন ও তার সহযোগিদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে গ্রামবাসী ৪নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনসাধারণের উদ্যোগে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আওয়ামীল লীগ নেতা ফয়জুল্লাহ’র সভাপতিত্বে  শুক্রবার(১জুন) বিকেল আড়াইটায় গাছবাড়ী বাজার সংলগ্ন নারাইনপুর গেইট বোরহান উদ্দিন সড়কে আয়োজিত ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন
ও প্রতিবাদ সভায় ৪নং ওয়ার্ডের প্রায় হাজারো সর্বস্তরের মানুষ উপস্থিত ছিলেন। সভায় বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, ঐতিহ্যবাহী নারাইপুর গ্রামে বর্তমানে যে অবস্থা বিরাজ করছে এ জন্য এলাকার কুখ্যাত সন্ত্রাসী একসময়ের গরু চোর একাধিক মামলার আসামী অসামাজিক কার্যকলাপের হোতা চোর,ডাকাত,অপরাধী,মাদক ব্যবসায়ী ও জোয়াড়ীদের মদদদাতা গ্রামের শরীফ ও তার সহযোগি মাদক সম্রাট আব্দুল মালিক বাউলা,আবুল হোসেন ও আজির গংদের দায়ী করে বলেন, তারা গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে যাচ্ছে। গ্রামের বিশিষ্ট মুরব্বী সহ নিরীহ মানুষদের বাড়ি ঘরে হামলা ভাংচুর,লুটপাট,মসজিদে হামলা,রাস্তাঘাটে চোরা গুপ্ত হামলা নিজেদের বাড়ি ঘরে পরিকল্পিতভাবে অগ্নিসংযোগ করে দেশ পক্ষের নিরীহ লোকজনদের বিরুদ্ধে একাধিক সাজানো মামলা দিয়ে হয়রানী করে যাচ্ছে গ্রামের অশান্তির মূল নায়ক মাদক সেবী শরীফ গংরা। এদের অত্যাচার নির্যাতন নিপিড়নের কারণে গ্রামের নিরীহ সাধারণ মানুষ আজ জিম্মি হয়ে পড়েছেন। গ্রামের ইজমালী সম্পত্তির হিসাব নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচার করে যাচ্ছে শরীফ,বাউলা,আবুল,আজির গংরা। গ্রামের মানুষের সর্বসম্মতিক্রমে কমিটি পরিচালনার মাধ্যমে সব ধরণের সামাজিক ও উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড হয়ে থাকে। সমাজ বিরোধী এ চক্রের অপকর্মের কেউ প্রতিবাদ করলে তাদের উপর
নির্যাতন নেমে আসে। এদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা থাকার পরও গ্রামে একের পর এক অপকর্ম ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে তারা। সম্প্রতি বাউলা ও তাদের সহযোগিদের বাড়ি ঘর থেকে থানা পুলিশ ব্যাপক দেশীয় অস্ত্র,মাদক উদ্ধার করে। গত বুধবার শরীফ গংরা গ্রামের নিরীহ মানুষের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে কয়েকজনকে আহতের পর গ্রামে পুলিশ এসে পরিস্থিতি শান্ত করার সময় সন্ত্রাসী ও গ্রামের অপরাধ কর্মকান্ডের গডফাদার শরীফ উদ্দিনের বাড়ির লোকজন পুলিশের উপর হামলা করলে পুলিশ শরীফের দুই স্ত্রীকে গ্রেফতার করে । গ্রামে শান্তি শৃংখলা ফিরিয়ে আনতে থানা পুলিশ,স্থানীয় প্রশাসন,জনপ্রতিনিধিরা যখন তৎপর তখনই শরীফ গংরা অসৎ উদ্দ্যেশে তাদের স্বার্থসিদ্ধি হাসিল করার জন্য পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা-বানোয়াট অপপ্রচার চালিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারে লিপ্ত রয়েছে। মানববন্ধনে অর্ধশতাধিক এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ,গ্রামের আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মী,যুব ছাত্র সমাজ বলেন,নারাইনপুর গ্রামের নাম শুনলে মানুষ আজ আতংকে হয়ে উঠেন। এর জন্য গ্রামের অপরাধীদের গডফাদার চোর,ডাকাত,জোয়াড়ী,মাদক ব্যবসায়ী,মাদক সেবী,এলাকায় যাত্রা গানের আয়োজনকারী একাধিক নারীকে বিয়ের নায়ক অসামাজিক কার্যকলাপের মদদকারী শরীফ,বাউলা,আবুল,আজির গংরা দায়ী। তাদের দ্রুত গ্রেফতার করে গ্রামের জনমেন শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য সিলেটের উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা,থানা পুলিশ ও অন্যান্য আইন শৃংখলা বাহিনীর প্রতি আহবান জানানো হয়। মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীল লীগ নেতা আব্দুল মতিন,শাহাব উদ্দিন,বিলাল উদ্দিন,মাস্টার আব্দুল মালিক,মানিক উদ্দিন,রফিক আহমদ,রইছ উদ্দিন,শাহাব উদ্দিন,রজব আলী,বিশিষ্ট মুরব্বী হাজী কুদরত উল্লাহ,সিরাজ উদ্দিন,তাহির আলী,মোশাহিদ আলী,নিজাম উদ্দিন,হবিব আলী,ইলিয়াছ আলী,হাজী আব্দুছ সালাম,বশির উদ্দিন,জমির উদ্দিন,আব্দুর রহিম,হাজী আঞ্জব আলী,বশির আহমদ,হাজী আব্দুর রহমান,হাজী আজিজুর রহমান,হাজী তাজুল ইসলাম,মহররম আলী,আব্দল মজিদ প্রমূখ । 

কানাইঘাট নিউজ ডটকম/০১জুন ২০১৮ ইং

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক