Monday, January 15, 2018

কানাইঘাট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকটে পাঠদান ব্যাহত


নিজস্ব প্রতিবেদক: শিক্ষক সংকটের কারণে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী সিলেটের কানাইঘাট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সার্বিক শিক্ষা কার্যক্রম মুখ তুবড়ে পড়েছে। ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান ব্যবস্থা। দীর্ঘদিন ধরে স্কুলের ২৭জন শিক্ষকের মধ্যে বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সহ কর্মরত রয়েছেন মাত্র ৮জন শিক্ষক। সাড়ে ৬শত শিক্ষার্থীকে ৭জন শিক্ষক পাঠদান করতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন। এতে করে শিক্ষার্থীদের সার্বিক পাঠদান ব্যবস্থা মারাত্মক ব্যাঘাত ঘটছে। শিক্ষকরা সঠিক ভাবে শিক্ষার্থীদের ক্লাস করাতে পারছেন না। ৬ষ্ট শ্রেণি থেকে ১০ম শ্রেণি পর্যন্ত ১০টি সেকশনে বিজ্ঞান ও মানবিক শাখায় শিক্ষার্থীদের পাঠদানে শিক্ষক স্বল্পতার কারণে বিঘ্ন ঘটছে। কমার্স বিভাগ থাকলেও দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে এই বিভাগের কোন শিক্ষক স্কুলে নিয়োগ না দেওয়ায় কমার্সে লেখাপড়া করতে পারছেন না শিক্ষার্থীরা। স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সুষেন রঞ্জন তালুকদার কানাইঘাট নিউজকে জানিয়েছেন, কানাইঘাট উপজেলার সেরা শিক্ষার্থীরা এ প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়ার জন্য প্রতিযোগিতা করে থাকেন। মেধাবী শিক্ষার্থীরা এখানে লেখাপড়ার সুযোগ পেলেও দীর্ঘদিন ধরে ২৭জন শিক্ষকের মধ্যে মাত্র ৮জন দিয়ে আমরা জোড়াতালি দিয়ে ছাত্রদের পাঠদান করে যাচ্ছি। এতে করে শিক্ষার্থীদের যেভাবে পাঠদান করার কথা সেটি আমরা করতে পারছি না। শিক্ষক সংকটের পাশাপাশি ৫জন কর্মচারীর স্থলে বর্তমানে ১জন, অফিস সহকারী ২জনের মধ্যে ১জন রয়েছেন। শিক্ষক সংকট থাকার পরও সাড়ে ৬শতাধিক শিক্ষার্থীকে ৮জন শিক্ষক অত্যন্ত কঠোর পরিশ্রম করে পাঠদান করায় এসএসসি ও জেএসসি পরীক্ষায় উপজেলার মধ্যে এ প্রতিষ্ঠানটি ১ম স্থান অধিকার করে থাকে। সম্প্রতি জেএসসি পরীক্ষায় ১১৫জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে ১৫টি এ+ সহ ১১৪জন শিক্ষার্থী সাফল্যের সাথে উত্তীণ হয়েছেন। স্কুলের অভিভাবক ও সচেতন মহল শিক্ষক সংকট দূর করার জন্য নানা ভাবে সরকারের বিভিন্ন দফতরে তদবীর চালিয়ে আসলেও তার কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না। স্থানীয় সংসদ সদস্য বিরোধী দলীয় হুইপ আলহাজ্ব সেলিম উদ্দিন স্কুলের স্বাভাবিক পাঠদান অব্যাহত রাখতে শিক্ষক সল্পতা দূর করার জন্য আশ্বাস দিয়েছিলেন, কিন্তু তারপরও আমরা শিক্ষক সংকট দূর হচ্ছে না। প্রধান শিক্ষক সুষেন রঞ্জন তালকুদার বলেন আমি স্কুলের প্রশাসনিক কাজ সহ সবকিছু করে থাকি। ৭জন শিক্ষক কী করে এত শিক্ষার্থীর ক্লাস নিবেন এটা সকলকে ভাবতে হবে। তিনি বলেন, স্কুলের শিক্ষক স্বল্পতা দূর করতে পারলে সিলেটের মধ্যে কানাইঘাট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় সার্বিক ফলাফলের দিক থেকে একটি সেরা প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে, যে আশা আকাঙ্খা নিয়ে অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের এ স্কুলে পাঠান সেই প্রত্যাশা আমরা পূরণ করতে পারব।

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক