Monday, October 23, 2017

কানাইঘাটে পুলিশের হাতে জুয়াড়ী'সহ আটক ৮


নিজস্ব প্রতিবেদক: কানাইঘাট রাজাগঞ্জ ইউপির ছোট মির্জারগড় গ্রামের কুখ্যাত জোয়াড়ী রসু মিয়ার বাড়ীতে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে সংঘবদ্ধ জোয়াড়ী চক্র কর্তৃক জোয়া খেলার সময় কানাইঘাট থানা পুলিশের এস.আই বশির আহমদ, স্বপন চন্দ্র সরকারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গত রবিবার গভীর রাতে সেখানে হানা দিয়ে ৭ জোয়াড়ীকে আটক করে। এ সময় জোয়াড়ীদের কাছ থেকে কয়েক বান্ডিল তাশ, নগদ ১৪৩০/- টাকা উদ্ধার করা হয়। পুলিশের অভিযানে রসময় সংঘবদ্ধ জোয়াড়ী চক্ররা জোয়া খেলার হাজার হাজার টাকা সরিয়ে ফেলে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। আটককৃত জোয়াড়ীদের সোমবার বিকেল ২টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ১ম শ্রেণির ম্যাজিষ্ট্রেট তানিয়া সুলতানার কার্যালয়ে হাজির করলে তিনি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে প্রত্যেক জোয়াড়ীকে মামলা দায়েরের মাধ্যমে ১০০/- টাকা করে জরিমানা করেন। পরে জরিমানার টাকা দিয়ে মুচলেখার মাধ্যমে জোয়াড়ীরা মুক্তি পায়। জোয়াড়ীরা হলো স্থানীয় ছোট মির্জারগড় গ্রামের জোয়াড়ী রসু মিয়ার পুত্র ওহিদ আহমদ (৩২), ফতেহগঞ্জ গ্রামের সফর আলীর পুত্র কয়েস আহমদ (৩৪), ছোট মির্জারগড় গ্রামের রফিক উদ্দিনের পুত্র আমিন উদ্দিন (৩৩), একই গ্রামের আব্দুল বারির পুত্র মাসুক আহমদ (৩২), মৃত আব্দুল মন্নানের পুত্র কবির আহমদ (৪৪), আহমদ আলীর পুত্র জামাল উদ্দিন (৩৬), ফতেহগঞ্জ গ্রামের আইয়ুব আলীর পুত্র শাহাব উদ্দিন (৫৫)। স্থানীয় এলাকাবাসী জানিয়েছেন, পুলিশের হাতে আটককৃত জোয়াড়ীরা এলাকার বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপের সাথে জড়িত, তারা নিয়মিত জোয়া খেলা, তীর খেলা সহ অনেকে গাঁজা সেবনে আসক্ত থাকে। কুখ্যাত জোয়াড়ী রসু মিয়ার বাড়ীতে নিয়মিত জোয়ার আড্ডা বসে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। অপরদিকে কানাইঘাট থানা পুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে রবিবার গভীর রাতে রাজাগঞ্জ ইউপির নয়ামাটি গ্রামের বরকত উল্লার পুত্র ৩ মাসের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী বদরুলকে গ্রেফতার করা হয়।

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক