Thursday, June 1

রোজাদারকে ইফতার করানোর ফজিলত

রোজাদারকে ইফতার করানোর ফজিলত

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক: রোজাদারকে ইফতার করানোর মধ্যে রয়েছে সীমাহীন সওয়াব। হজরত সালমান (রা.) বর্ণিত এক হাদিসে রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, যে ব্যক্তি এ মাসে কোনো রোজাদারকে ইফতার করাবে, এর দ্বারা তার গুনাহ ক্ষমা করা হবে এবং তাকে জাহান্নাম থেকে মুক্তি দেওয়া হবে।

আর রোজাদারের সমপরিমাণ নেকি তাকে দান করা হবে অথচ রোজাদারের প্রাপ্য নেকি একটুও কমানো হবে না। সাহাবাগণ আরজ করলেন, হে আল্লাহর রাসূল! আমাদের মধ্যে সকলের তো রোজাদারকে ইফতার করানোর মতো সংগতি নেই! রাসূলুল্লাহ (সা.) বললেন, যে কেউ কোনো রোজাদারকে একটি মাত্র খেজুর দিয়ে বা পানি পান করিয়ে অথবা এক ঢোক দুধ দিয়ে ইফতার করাবে, মহান আল্লাহ তাকে এই সওয়াব দান করবেন।

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তাকে এক মহিলা ইফতারের জন্য দাওয়াত করলো, তিনি তাতে সাড়া দিয়ে বললেন, ‘আমি তোমাকে বলছি, যে গৃহবাসী কোনো রোজাদারকে ইফতার করাবে, তাদের জন্য তার অনুরূপ সাওয়াব হবে।

মহিলা বলল, আমি চাই আপনি ইফতারের জন্য আমার কাছে কিছুক্ষণ অবস্থান করুন। উত্তরে তিনি বললেন, আমি চাই এ নেকি আমার পরিবার হাসিল করুক। (মুসান্নাফ ইবনে আব্দুর রায্যাক)।

পরিশেষে…
হাদিসের ওপর আমল করতে আমরা পরস্পর ইফতার বিনিময় করাবো। অসহায় গরিবের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করবো। ইফতার পেয়ে গরীব দুঃখীর মুখের হাসি আত্মার শান্তি আল্লাহ রহমত কামনায় সবচেয়ে বেশি কার্যকর হবে।

আল্লাহর অফুরন্ত অনুগ্রহ যে, তিনি রমজানে বান্দার জন্য কল্যাণের নানা দিক উন্মুক্ত রেখেছেন। এমনকি ইফতার করানোতেও রেখেছেন দ্বিগুণ সাওয়াব। দ্বিগুণ সাওয়াব লাভের জন্য অন্য রোজাদারকে ইফতার করানোর এবং অসহায়দের মাঝে ইফতার বিতরণের তাওফিক দান করুন। আমিন।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক