Saturday, June 3

জঙ্গি দমনে যৌথ টহল মিন্দানাওয়ে: মালয়েশিয়া

জঙ্গি দমনে যৌথ টহল মিন্দানাওয়ে: মালয়েশিয়া

কানাইঘাট নিউজ ডেস্ক: মালয়েশিয়া, ফিলিপাইন ও ইন্দোনেশিয়া চলতি মাস থেকে ইসলামী স্টেট (আইএস) জঙ্গি দমনের জন্য মিন্দানাও অঞ্চলের সমুদ্র এলাকায় যৌথ টহল অভিযান শুরু করবে।

শনিবার মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিশামুদ্দিন হোসেইন সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত নিরাপত্তা বিষয়ক সম্মেলনে এই ঘোষনা দেন।

গত দুই সপ্তাহ আগে ফিলিপাইনের মিন্দানাও দ্বীপের মারাই শহরে আইএস জঙ্গিরা হামলা চালায়।

ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে আইএসের হামলার পর পরিস্থিতি মোকাবেলায় মারাই এলাকায় সামরিক আইন জারি করেছেন।

নিরাপত্তা বিশ্লেষকগণ মনে করেন, আইএস দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় খেলাফত প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে মিন্দানাওয়ে প্রদেশ প্রতিষ্ঠিত করতে চাচ্ছে।

সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত বার্ষিক নিরাপত্তা সংক্রান্ত সাংগ্রী লা ডায়লগ সম্মেলনে মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিশামুদ্দিন বলেন, তিনটি দেশ মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও সিঙ্গাপুর সাগরে জলদস্যুদের প্রতিরোধে ইতিমধ্যে মালাক্কা প্রনালীতে সফল যৌথ টহল প্রদান করছে। তিন দেশের কড়া সমুদ্র টহলের কারণে এই এলাকার সমুদ্রসীমায় জঙ্গিরা প্রবেশ করতে পারছে না। তিন দেশ সমুদ্রসীমায় টহল অভিযান শুরু হবে ১৯ জুন থেকে। পরবর্তী সময়ে বিমান টহল অভিযান শুরু করা হবে।

আইএইচএস জেনস টেররিজম এন্ড ইনসারজেন্সি সেন্টার (জেটিআইসি) এর সিনিয়র বিশ্লেষক ওটসো আইহু বলেন, “মিন্দানাও হলো আইএস জঙ্গিদের প্রাথমিক টার্গেট এলাকা। যেখানে তারা মুক্তভাবে অভিযান পরিচালনা ও প্রশিক্ষণ ক্যাম্প গড়ে তুলতে পারছে।”

ইরাক ও সিরিয়া থেকে বিতাড়িত হয়ে আইএস জঙ্গিরা দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে স্থান করে নিতে চাচ্ছে বলে সম্মেলনে হিশামুদ্দিনসহ অন্য দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীরা সতর্ক করেছেন।

হিশামুদ্দিন বলেন, ‘আগামীতে আমাদেরকে সেইসব জঙ্গিদের ফিরে আসার হুমকি মোকাবেলা করতে হবে যারা ইরাক ও সিরিয়ায় আইএসের সঙ্গে যুদ্ধ করছে। আর আইএস ওইসব অঞ্চলে তাদের দখল হারাচ্ছে।’

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক