Thursday, June 1

ঈদে আসছে মিশুর নির্মাণে ‘নিষিদ্ধ নন্দিনী’ মম

ঈদে আসছে মিশুর নির্মাণে ‘নিষিদ্ধ নন্দিনী’ মম


কাহহার সামি: রুপালী পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মম। তাকে নিয়ে নির্মিত হলো ‘একটি নিষিদ্ধ ভালবাসার গল্প’। টেলিফিল্মটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন তরুণ নির্মাতা জে এস মিশু। গল্পের সাথে মিল রেখেই নামকরণ করা হয়েছে টেলিফিল্মের। এতে মম’র বিপরীতে অভিনয় করেছেন উদীয়মান পাভেল। ঈদের তৃতীয় দিন টেলিফিল্মটি বেসরকারি চ্যানেল একুশে টিভিতে প্রচার হবে বলে জানান নির্মাতা মিশু। আজ থেকে একুশে টিভিতে টেলিফিল্মিটির প্রমো প্রচার করা হবে।

নন্দিনী মফস্বল শহরে বেড়ে উঠা একটা মেয়ে। পড়াশুনার জন্য পাড়ি জমায় শহরে। সেখানে আসার পর তার জীবনটা পাল্টে যায় একরাতের ভিতর। ঐ রাতের পর নন্দিনী নামের সাথে যুক্ত হয় নিষিদ্ধ শব্দটি। নন্দিনী পেশা হিসেবে বেছে নেয় পতিতাবৃত্তিকে। ঘটনাক্রমে তার সাথে পরিচয় হয় এক অন্ধ লেখকের (নাভিদ) সাথে। তখন নন্দিনী নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখে। শুরু করতে চায় নতুন জীবন। আসলে কী নন্দিনী তার নতুন জীবন শুরু করতে পারবে? একজন পতিতা ও অন্ধ লেখকের প্রেমের শেষ পরিণতি কী হবে? তা দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে টেলিফিল্মটি প্রচারিত হওয়ার আগ পর্যন্ত।

রোমান্টিক, অ্যাকশন এবং সমাজের সম-সাময়িক বিষয় নিয়ে গড়ে উঠা টেলিফিল্মের নন্দিনী চরিত্রে অভিনয় করেছেন জাকিয়া বারী মম এবং নাভিদ চরিত্রে অভিনয় করেছেন পাভেল। অন্যান্য চরিত্রে আছেন ফারহা মিঠু, লুৎফর রহমান জর্জ, শর্মিলী আহমেদ, মনির, পারিসা ও অরিন।

এ প্রসঙ্গে মম বলেন, আমি সব সময় একটু ভিন্ন ধাঁচের গল্পে কাজ করতে স্বাচ্ছন্দবোধ করি। 'একটি নিষিদ্ধ ভালবাসার গল্প' টেলিফিল্মের গল্পটি আমি যখন শুনি নির্মাতা জে. এস. মিশু’র কাছ থেকে, তখনই আমি উনাকে হ্যাঁ বলে দেই। তবে অনেকদিন পর একটি ভিন্ন ধাঁচের গল্পে আমি কাজ করলাম। অনেক ভাল একটি অভিজ্ঞতা ছিল। জে. এস. মিশু’র সাথে এটা আমার প্রথম কাজ। তবে নির্মাতা হিসেবে জে. এস. মিশু অসাধারণ কাজ করেন। উনার কাজের দক্ষতা দেখে মনেই হয়নি উনি তরুণ নির্মাতা। আশা করছি কাজটা অনেক ভাল লাগবে দর্শকদের। দর্শক আমাকে নতুনভাবে দেখবে এ টেলিফিল্মে। তবে আমি পুরো কৃতিত্বই পরিচালককে দিতে চাই। তিনি অনেক ধরে ধরে কাজ করেন।

নির্মাতা জে. এস. মিশু বলেন, কাজটি অনেক যত্ন করে বানিয়েছি। নির্মাণের ক্ষেত্রে আমার প্রতিটা কাজের মতো এটা অনেক যত্ন করে নির্মাণ করেছি। তবে যখন আমি গল্পটা লিখি তখনই আমি নন্দিনী চরিত্রে জাকিয়া বারী মম আপুকে কাস্টিং করার সিদ্ধান্ত নিই। কারণ, আমার গল্প অনুযায়ী আমি মম আপু ছাড়া কাউকে চিন্তাই করতে পারিনি। মম আপু অসাধারণ অভিনয় করেছেন টেলিফিল্মটিতে। উনার সাথে কাজ করার আমার পূর্ব অভিজ্ঞতা ছিল না। এটাই উনার সাথে আমার প্রথম কাজ। কাজের ব্যাপারে আপু আমাকে অনেক সাপোর্ট দিয়েছে।

টেলিফিল্মটি নির্মাণের ক্ষেত্রে আমার যতটুকু মেধা, দক্ষতা এবং শ্রম সব কাজে লাগিয়ে খুব ভাল একটা কাজ দর্শককে দেবার চেষ্টা করেছি। গল্পে অনেক নতুনত্ব আছে, যা দেখে দর্শকের অনেক ভাল লাগবে আশা করছি।

গেলো ভ্যালেন্টাইনে নির্মাতা মিশুর নির্মিত নাটক 'ভালবাসার লুকানো অনুভূতি' প্রচারিত হওয়ার পর ব্যাপকভাবে প্রসংশিত হয়। এতে অভিনয় করেছিলেন চিত্রনায়ক আমিন খান ও ঈষিকা খান। কাজ করলেন রবিন্দ্রনাথের ছোট গল্প ‘সমাপ্তি’ শিরোনামের খন্ড নাটকের। এতে অভিনয় করেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা আরফান নিশো। বর্তমানে পূর্ণিমাকে নিয়ে কাজ করতে যাচ্ছেন ‘তবুও ফিরে পাব না’ নাটকের। 
সূত্র :বিডি লাইভ।

শেয়ার করুন

0 comments:

পাঠকের মতামতের জন্য কানাইঘাট নিউজ কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়

নোটিশ :   কানাইঘাট নিউজ ডটকমে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক