কানাইঘাটে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মধ্যে হুইল চেয়ার ও চশমা বিতরণ

Kanaighat News on Sunday, August 31, 2014 | 9:02 PM


নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্প এর অধীনে কানাইঘাট উপজেলার বিভিন্ন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের মধ্যে এ্যাসিসটিভ ডিভাইজ (হুইল চেয়ার ও চশমা) বিতরণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে আজ রবিবার বেলা ২টায় উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের উদ্যোগে ইউটিডিসি হলে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়ার সভাপতিত্বে এবং সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শাহীন মাহবুবের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম রানা, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দিলীপ কুমার রায়, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আব্দুল লতিফ। অনুষ্ঠান শেষে উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শারীরিক ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মধ্যে চারটি হুইল চেয়ার এবং চশমা বিতরণ করা হয়। প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরী বলেন, প্রতিবন্ধীরা সমাজের বুঝা নয়, তারা আমাদের সন্তান। তাদেরকে হেয়প্রতিপন্নের চোখে না দেখে সমাজের মূলস্রোতে সম্পৃক্ত করতে হবে। প্রতিবন্ধীরা শিক্ষার উপযুক্ত পরিবেশ পেলে সমাজের জন্য ভাল উদাহরণ সৃষ্টি করতে পারবে। তিনি উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের সবসময় সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

কানাইঘাটে স্কুল পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের পুরস্কার বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
উপজেলা পর্যায়ে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে কানাইঘাট মালিগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ঢাকনাইল দক্ষিণ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। প্রাথমিক স্কুল পর্যায়ে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মালিগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং রানার্সআপ হয়েছে বাউরভাগ দক্ষিণ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং বঙ্গমাতা গোল্ডকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকনাইল দক্ষিণ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং রানার্সআপ হয়েছে রায়গড় মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিজয়ী ও রানার্সআপ টিমকে আনুষ্ঠানিক ভাবে আজ রবিবার বিকেল ৩টায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী, নির্বাহী কর্মকর্তা তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়া, ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম রানা ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দিলীপ কুমার রায়ের উপস্থিতিতে ট্রফি তুলে দেওয়া হয়।

কানাইঘাটে সড়কের বেহাল দশা

Kanaighat News on Saturday, August 30, 2014 | 10:53 PM


নিজস্ব প্রতিবেদক: 
দীর্ঘদিন থেকে সংস্কারের অভাবে কানাইঘাট উপজেলার ব্যস্ততম প্রধান প্রধান সড়কগুলোর বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে। বাড়ছে চরম জনদূর্ভোগ। প্রতিনিয়ত ঘটছে সড়ক দূর্ঘটনা। উপজেলা সদর থেকে কানাইঘাট-চতুল-দরবস্ত পর্যন্ত ১০ কিলোমিটার এবং কানাইঘাট-গাজী বুরহান উদ্দিন সড়কের গাছবাড়ী বাজার পর্যন্ত ১৮ কিলোমিটার সড়ক জুড়ে একাধিক স্থানে বড় বড় গর্ত ও রাস্তা জুড়ে খনাখন্দের সৃষ্টি হওয়ায় এ দুটি সড়ক দিয়ে প্রতিদিন শত শত ভারী ও হালকা যানবাহন ঝুঁকির মধ্যে যাতায়াত করছে। জনদুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা পড়ুয়া হাজার হাজার শিক্ষার্থী। দীর্ঘদিন ধরে টেকসই সংস্কারের অভাবে এ দুটি সড়কের এতোই বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে যা চোখে না দেখলে কেউ বিশ্বাস করবে না। বিশেষ করে কানাইঘাট পৌরসভার অন্তর্ভুক্ত কানাইঘাট বাজার থেকে উপজেলা প্রশাসন চত্ত্বর ও থানার সম্মুখ সড়ক জুড়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় এ বর্ষা মৌসুমে হাটু পানি রাস্তায় জমে একাকার হয়ে গেছে। দেখলে মনে হবে যেন রাস্তা নয় সরু খাল। জীবনের চরম ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করছে বর্তমানে। রাস্তার গর্তে আটকে অনেক সময় যানবাহন বিকল হয়ে যায়। এ ছাড়া সড়ক দূর্ঘটনাতো লেগেই আছে। বিগত মহাজোট সরকারের শেষের দিকে সড়ক ও জনপদের উদ্যোগে কয়েক কোটি টাকা ব্যয় করে কানাইঘাট-চতুল-দরবস্ত সড়কের সংস্কার হলেও দু-মাস যেতে না যেতেই রাস্তা জুড়ে গর্তের সৃষ্টি হয়। পিচ উঠে খনাখন্দে ভরপুর হয়ে যায়। এ দুটি সড়কের গুরুত্বপূর্ণ ২৮ কিলোমিটার রাস্তার বেহাল অবস্থা তুলে ধরে সম্প্রতি যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের’র দৃষ্টি আকর্ষণ করে সিলেটের একটি অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক ও পৌর মেয়র লুৎফুর রহমান বলেন, জনগণ আমাদের থুথু দিচ্ছে। রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় মুখ দেখাতে পারছি না। এমন বক্তব্য তুলে ধরে দ্রুত রাস্তা সংস্কারের দাবী জানান মন্ত্রীর কাছে। মন্ত্রী মহোদয় দ্রুত রাস্তা সংস্কারের আশ্বাস দিলেও অদ্যাবধি পর্যন্ত তার প্রতিফলন ঘটেনি। যার কারণে স্থানীয় ভাবে সরকারের ভাবমূর্তি চরম ভাবে ক্ষুন্ন হচ্ছে বলে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা জানিয়েছেন। সম্প্রতি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে সড়ক দুটির ভাঙ্গা ও জরাজীর্ণ স্থান দ্রুত সংস্কারের দাবীতে মানববন্ধনের মতো কর্মসূচি পালিত হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি কানাইঘাট নিউজকে জানান, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে উর্ধ্বতন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপরে বরাবরে পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। অর্থ বরাদ্দ হলেই রাস্তার কাজ শুরু করা হবে।

১৫ আগস্ট হত্যকাণ্ডে জিয়াউর রহমানের গ্রিন সিগন্যাল ছিলো : প্রধানমন্ত্রী


ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষকে ভালবাসতেন বলেই, বাংলাদেশকে বিশ্বসভায় তুলে ধরতে চেয়েছিলেন বলে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছে। অথচ মাত্র সাড়ে তিন বছরের মধ্যে তিনি একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ গঠন করেছিলেন। আওয়ামী লীগ শত বাধাকে অতিক্রম করে সেই আদর্শ বাস্তবায়নের জন্যই কাজ করছে। এটা কেউ ব্যাহত করতে পারবে না। বাংলাদেশের মানুষ স্বাধীনতাবিরোধী সেই শক্তিকে আর মাথাচাড়া দিয়ে দাঁড়াতে দেবে না, বলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এর আগে শনিবার দুপুর সাড়ে তিনটায় বিভিন্ন ধর্মীয় গ্রন্থ পাঠের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এ সভার কাজ শুরু হয়। এ সময় প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধ ও তার চেতনাকে ধ্বংস করাই ছিলো ১৫ আগস্ট হত্যকাণ্ডের মূল কারণ। স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিই এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। নিজেদের ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতেই এই হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। তিনি বলেন, এ হত্যাকাণ্ডের পেছনে জিয়াউর রহমানের গ্রিন সিগন্যাল ছিলো। খুনিরা হত্যাকাণ্ডের আগে জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছিলেন।জিয়া খুনিদের পুরস্কৃত করেছিলেন। বিভিন্ন দূতাবাসে খুনিদের চাকরি দিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির সঙ্গে আছেন বিএনপিনেত্রী। বিকৃত মানসিকতার না হলে কেউ ১৫ আগস্ট কেউ জন্মদিন পালন করতে পারে না। ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজ এর সভাপতিত্বে সভামঞ্চে উপস্থিত আছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, দুর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মাহবুব উল আলম হানিফ, অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, জাহাঙ্গীর কবীর নানক প্রমুখ।

আরব আমিরাতে ভবন থেকে পড়ে দুই বাংলাদেশির মৃত্যু


কানিউজ ডেস্ক : সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজায় নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ থেকে পড়ে দুই বাংলাদেশি শ্রমিকের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বুধবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৯টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। শুক্রবার গলফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, বুধবার কিং ফয়সাল রোডে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের মধ্যে একজনের বয়স উল্লেখ করা হয়েছে ৪০ বছর। তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। তার মৃতদেহ প্রথমে কুয়েতি হাসপাতাল এবং সেখানে থেকে ফরেনসিক ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয়েছে। অপরজনকে আহত অবস্থায় আল কাসেমি হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানকার চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তবে নিহতদের পরিচয় সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি ওই প্রতিবেদনে। বিষয়টির অধিকতর তদন্তের জন্য আল বুহাইরাহ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত


উত্তম সরকার, গাইবান্ধা থেকে: গাইবান্ধা সদর উপজেলার খোলাহাটি ইউনিয়নের হাসেমবাজার সরকারপাড়ার শিক্ষাবঞ্চিত নারীরা নিজ উদ্যোগে চালু করল বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্র। প্রতিনিয়ত সেখানে বাড়ছে শিক্ষাবঞ্চিত হতদরিদ্র পরিবারের নারীদের ভিড়। ৫৪ জন নারীর গড়ে তোলা হাসেমবাজার পল্লী সমাজ সংগঠনের উদ্যোগে দুই মাসব্যাপী ওই বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্রে ৩০ জন দরিদ্র পরিবারের নারী প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষা গ্রহণ করে। দুই কলেজ ছাত্রী স্বেচ্ছাশ্রমে বয়স্ক কর্মজীবী ওই নারীদের শিক্ষাদান করে থাকে। নিরক্ষর নারীদের এই ধরনের উদ্যোগ সত্যিকার অর্থেই আশা জাগায়। এতে আশপাশের নারীরা নিজেদের নিরক্ষরতা দূর করতে উৎসাহিত হচ্ছে। তাদের উদ্যোগ দেখে উপজেলা সরকারি কর্মকর্তারাও তাদের উৎসাহিত করছেন। উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, শিক্ষা অফিসার ও নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করা হয়। এটা প্রায় একটি প্রতিষ্ঠানে রূপ পেয়েছে। এতে অন্য গরিব নারীদের ভেতর জন্ম নিচ্ছে স্বপ্ন ও আত্মবিশ্বাস। বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্রে আসা অনেক নারীকেই বলতে শোনা যায় ৩০-৫০ বছর বয়সে পৌঁছেও আমরা বিভিন্ন কাজে টিপসই দেই! এ দুঃখ রাখি কোথায়? তাই স্কুলে এসে আজ সেই দুঃখ ঘোচাতে পেরেছি। এ রকমই বললেন বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্রে পড়তে আসা খোলাহাটির গৃহবধূ জহুরা বেগম (৫০)। একই ধরনের কথা হামিদা বেগম (৫৫) ও সাজেদা বানরু (৫২) কণ্ঠেও। ওই সংগঠনের অন্যতম সদস্য মর্জিনা বেগম জানালেন, ১৯৯৮ সালে গড়ে তোলা তাদের এ সংগঠনটি সমাজের অসংখ্য বাল্য বিবাহ, বহু বিবাহ, নারী নির্যাতন রোধ করেছে। এতে প্রাথমিকভাবে তাদের বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়েছে। কিন্তু সামাজিকভাবে তাদের গ্রহণযোগ্যতা বাড়ায় বিভিন্ন উদ্যোগ বাস্তবায়িত করতে এখন তারা সহযোগিতা পাচ্ছেন। এছাড়া ২০১১ সালে নিজেরা সেলাই প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে অনেকেই স্বাবলম্বী হয়েছে। প্রথম দিকে শুধু অক্ষরজ্ঞান দেওয়ার উদ্দেশ্যে এটি শুরু হলেও সদস্যরা অচিরেই বুঝতে পারে যে, তাদের অর্থনৈতিকভাবেও স্বাবলম্বী হতে হবে। এরই অংশ হিসেবে সেলাই প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। একেক ব্যাচের ২০-২৫ জন এই সেলাই প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে সফলতা অর্জন করতে সমর্থ হয়। এ রকমই একজন খোরশেদা খানুম জানালেন, এখন আমি সংসারে অর্থনৈতিক অবদান রাখতে পারি। ফলে আমার কর্তৃত্বও প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এখন আমিও সিদ্ধান্ত নিতে পারি।’ প্রথমে বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্রের সহযোগিতায় তাদের প্রশিক্ষণ শেষে সেলাই মেশিন দেওয়া হয়। পরে আস্তে আস্তে সেই মেশিনের ঋণ শোধ করে দিতে হয়। যদিও অর্থনৈতিক প্রতিকূলতার জন্য সবাইকে সেলাই মেশিন কিনে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। অন্য কোনো সংগঠন তাদের সহযোগিতায় এগিয়ে এলে উপকার হবে বলে মন্তব্য করেন বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্রের কজন সদস্য। শত প্রতিকূলতা থাকা সত্ত্বেও তারা অনেক সামাজিক কর্মকা-েও অংশগ্রহণ করছে। সামাজিকভাবে এলাকার প্রায় ৩০টি নলকূপের গোড়া পাকাকরণের কাজও নিজেরাই করেছে। এছাড়া একে অপরের সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করে নেন সংগঠনের মাধ্যমে। সামাজিকভাবে তারা অনেক পারিবারিক সমস্যা মীমাংসা করে ফেলে। অক্ষরজ্ঞান শেখার জন্য বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্র গঠন করা হলেও এখন তা একটা সামাজিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। কারণ তারা মনে করে শিক্ষার সঙ্গে অর্থনীতি, সামাজিক সমস্যার সমাধান নিজেরা করতে না পারলে এর কি অবদান থাকল। তাই নিজেদের সিদ্ধান্তে দুই মাসেই তারা নিরক্ষরমুক্ত হতে চায়। নিঃসন্দেহে এটা একটা অনুকরণীয় উদ্যোগ।

মোহামেডানের পঞ্চম শিরোপা


স্পোর্টস রিপোর্টার,ঢাকা: মেট্রোপলিটান মহিলা ক্রিকেট লিগে পঞ্চম শিরোপা দখল করেছে মোহামডোন স্পোর্টিং ক্লাব লি:। রুমানা আহমেদের শতকের উপর ভর করে ফাইনালে আবাহনীকে ৭৭ রানে হারিয়েছে তারা। শুক্রবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৪০ ওভারে ৭ উইকেটে ২০৪ রান করে মোহামেডান। মোহামেডানের সংগ্রহ দুইশ পার হয় রুমানার সৌজন্যে। ফাইনালের এই সেরা খেলোয়াড়ের ব্যাট থেকে আসে ১০০ রান। তার ৯১ বলের ইনিংসটি ১৫টি চার সমৃদ্ধ। দশম ওভারে মাঠে নামা রুমানার আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে শেষ ১৫ ওভারে ৯৯ রান সংগ্রহ করে মোহামেডান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ রান করা তাজিয়া আক্তারের সঙ্গে ষষ্ঠ উইকেটে ৮১ রানে জুটি গড়েন রুমানা। আবাহনীর পক্ষে জাহানারা আলম ৩ উইকেট নেন ৩৪ রানে। জবাবে ৪০ ওভারে ৭ উইকেটে ১২৭ রানে থেমে যায় আবাহনীর ইনিংস। সর্বোচ্চ ৫৪ রান করেন লতা মন্ডল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২২ রান আসে শারমীন আক্তার ব্যাট থেকে। এছাড়া আর কেউ ভালো করতে না পারায় লক্ষ্যের ধারে কাছেও যেতে পারেনি আবাহনী। মোহামেডানের পক্ষে জাতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন ও ইতি মন্ডল নেন তিনটি করে উইকেট।

সরকারের অপকর্ম ঢাকতেই মানববন্ধনের অনুমতি দেয়নি


স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীতে মানবন্ধন করার জন্য পুলিশ অনুমতি না দেওয়ায় প্রতিবাদ জানিয়েছে বিএনপি। শনিবার নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর লিখিত বক্তব্যে এ প্রতিবাদ জানান। আন্তর্জাতিক গুম দিবস’ পালনে শনিবার প্রেসক্লাব থেকে তোপখানা রোড পর্যন্ত সড়কে মনববন্ধনের এই কর্মসূচি দিয়েছিল ২০ দল। মির্জা ফখরুল বলেন, শনিবার সকাল ১১টা থেকে ১২ পর্যন্ত বিজয় নগরের নাইটিঙ্গেল রেঁস্তোরার মোড় থেকে নটরডেম কলেজ পর্যন্ত সড়কের দুই পাশে এই মানববন্ধন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ঢাকা মহানগর পুলিশ তাদের মানববন্ধনের অনুমতি দেয়নি। তিনি বলেন, শুক্রবার মধ্যরাতে পুলিশ ফোন দিয়ে জানায়, শনিবার আওয়ামী লীগের সমাবেশ থাকায় মানববন্ধনের অনুমতি দেওয়া হবে না। ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, সরকার নিজেদের অপকর্ম ঢাকতেই আন্তর্জাতিক গুম দিবস পালন করতে দেয়নি। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। তিনি বলেন, এই দিবসটিকে পালন করার অর্থ হচ্ছে দেশের মানুষকে গুম সম্পর্কে সোচ্ছার করা। নাগরিক সাধীনতা হরণ করার জন্য সরকার বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের গুম, খুন করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। ২০১৩ সালের জানয়ারি থেকে ২০১৪ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৩১০ গুলি করে হত্যা করেছে পুলিশ। বিশ্বব্যাপী গুম-অপহরণের প্রতিবাদে ও সচেতনতা তৈরিতে জাতিসংঘ ২০১১ সাল থেকে প্রতি বছর ৩০ অগাস্ট আন্তর্জাতিক গুম দিবস পালন করে আসছে।

জয়াবর্ধনের সম্মানে ডাক টিকেট


স্পোর্টস রিপোর্টার,ঢাকা:টি-টোয়েন্টি এবং টেস্ট ক্রিকেটকে সদ্য বিদায় জানানো শ্রীলঙ্কার তারকা ব্যাটসম্যান মাহেলা জয়াবর্ধনের সম্মানে ডাক টিকেট প্রকাশ করতে যাচ্ছে শ্রীলংকা সরকার। পোস্টাল সার্ভিসের উপমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা সাবেক ক্রিকেট লিজেন্ড সনৎ জয়সুরিয়া শুক্রবার জানিয়েছেন, টেস্ট ক্রিকেট থেকে সদ্য বিদায় নেয়া লংকার তারকা ব্যাটসম্যান জয়াবর্ধনের সম্মানে ডাক টিকেট প্রকাশের উদ্যোগ নেবেন তিনি। একই সঙ্গে শ্রীলংকা ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক জয়সুরিয়া বলেন মাহেলার সম্মানে ডাক টিকেট প্রকাশের জন্য তিনি পোস্টাল সার্ভিসের দায়িত্বে থাকা পূর্ণ মন্ত্রী জীবন কুমারাতুঙ্গাকে অনুরোধ করবেন। শ্রীলংকা ক্রিকেটের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব পেলে জয়াবর্ধনের সম্মানে একটি ডাক টিকেট প্রকাশ করবেন বলে সম্প্রতি এক বক্তব্যে জানিয়েছেন মন্ত্রী জীবন কুমারাতুঙ্গা। এ বছরের প্রথম দিকে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ের পর সংক্ষিপ্ততম ভার্সন থেকে অবসর নেয়া জয়াবর্ধনে নিজ মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর সম্প্রতি টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় নেন। নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য ২০১৫ বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে ক্রিকেট থেকেও বিদায় নেবেন তিনি। জয়সুরিয়া বলেন শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডেও আসন্ন নির্বাহী কমিটির সভায় তিনি এ বিষয়ে প্রস্তাব করবেন এবং বোর্ডের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দেবেন। গণমাধ্যমকে তিনি বলেন,নির্বাহী কমিটির আগামী সভায় আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব এবং আমার মন্ত্রীকে পদক্ষেপ নেয়ার জন্য অনুরোধ করব।

রবিবার দেশব্যাপী আধাবেলা হরতাল

স্টাফ রিপোর্টার : চ্যানেল আইয়ের ইসলামিক অনুষ্ঠান ‘হজ্ব কাফেলার’ উপস্থাপক ও বিশিষ্ট ইসলামী ব্যক্তিত্ব মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকী হত্যার প্রতিবাদে আগামীকাল (রবিবার)দেশব্যাপী আধাবেলা হরতালের ডাক দিয়েছে ইসলামী ছাত্র সেনা।
শনিবার রাজধানীর ফকিরাপুলে এক সংবাদ সম্মেলনে হরতালের ঘোষণা দেন ইসলামী ছাত্র সেনার সভাপতি নুরুল হক চিশতী।
উল্লেখ্য, গত বুধবার রাত সোয়া ৯টার দিকে ১৭৪ নম্বর পূর্ব রাজা বাজারের ভাড়া বাসায় নুরুল ইসলাম ফারুকীকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।খুনিদের গ্রেপ্তারের দাবিতে ৪৮ ঘণ্টা সময়সীমা বেধে দেয়া হলেও ওই সময়ের মধ্যে খুনিদের গ্রেপ্তার না করায় আগামীকালের হরতালের ডাক দেয়া হয়।

ভোলা-৩ আসনের কমিটি গঠন করাকে কেন্দ্র করে বিএনপিতে অভ্যন্তরীল কোন্দল তুঙ্গে


ফরহাদ হোসেন, ভোলা: ভোলা-৩ আসনের বিএনপিতে কমিটি গঠন করাকে কেন্দ্র করে অভ্যন্তরীল কোন্দল প্রকাশ্য রূপ নিয়ে ব্যাপক হারে ফাটল দেখা দিয়েছে। প্রকৃত বিএনপির ত্যাগী নেতা কর্মীদের সঠিক ভাবে মূল্যায়ন করা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ উঠেছে। যার ফলে ইমেজ হারাচ্ছে এই আসনের বিএনপির নেতাকর্মী ও অঙ্গ সংগঠন। নিজেদের ঘরে বিভেদ থাকার কারণে ফায়দা লুটে নিচ্ছে বিরোধী শিবির। এই নিয়ে সাধারণ নেতা কর্মীদের মাঝে চরম ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে। নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, আষি দশকের পর থেকে ভোলা-৩ (লালমোহন- তজুমদ্দিন) আসনটিতে একটানা ৬ বার নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী মেজর (অবঃ) হাফিজ উদ্দিন আহম্মেদ। তখন থেকে এই আসনটি বিএনপির র্দুঘ হিসেবে পরিচিত থাকলেও ১/১১ পর থেকে নিজেদের অভ্যন্তরীণ কোন্দল প্রকাশ্য রূপ নিয়ে ব্যাপক হারে ফাটল দেখা দিয়েছে। দলীয় আধিপত্য বিস্তার করাকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীরা বিভক্ত হয়েছেন কয়েক ভাগে। এখানকার বিএনপির ত্যাগী নেতাকর্মীরা বিভিন্ন সময় মামলাও হামলার শিকার হয়েছেন। এখনো মামলায় ঝুলেরয়েছেন ও এলাকায় আসতে পাছেন না সেই সকল নেতা কর্মীদের এখানকার বিএনপি কোন ভাবে মূল্যায়ন করা হচ্ছে না। এই কারণে এই খানে পালন করা হচ্ছেনা কেন্দ্রীয় ঘোষিত কোন নির্দেশ ও কর্মসূচী। এসকল বিষয়ে চাপা ক্ষোভ নিয়ে কয়েক দফায় কয়েক শত নেতা কর্মী বিরোধী দলে যোগ দিয়েছেন। এখনো কিছু যোগ দেওয়ার জন্য উৎ পেতে রয়েছেন। এই ভাবে চলতে থাকলে এক সময় এই অসনে বিএনপির কোন চিহ্ন থাকবেনা বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এখানকার সুবিধা বঞ্চিত একধিক বিএনপির নেতা কর্মীরা। নাম প্রকাশ না করার সত্ত্বে একধিক নেতা কর্মী জানান, লালমোহন ও তজমদ্দিনে যারা প্রকৃত বিএনপির ত্যাগী নেতা কর্মী ও বিভিন্ন সময় মামলাও হামলার শিকার হয়েছে এখনো যারা মামলায় ঝুলে রয়েছেন সেই সকল নেতা কর্মীদের উপজেলা কমিটি থেকে কোন ভাবে মূল্যায়ন করছে না। উপজেলা ও ইউনিয়ন কমিটিতে থাকা নেতারা নিজেদের প্রভাব বিস্তারের জন্য যে কোন কমিটিতে তাদের আত্মীয়দের সবছে বেশি মূল্যায়ন করা হচ্ছে। তাছাড়া এই খানে টাকা হলেই যোগ্যতা ছাড়াই উপজেলা ও ইউনিয়ন বিএনপিতে যে কোন স্থানে পদ পাওয়া যায়। তারা আরো জানান, শহীদ জিয়ার আদর্শে উজ্জীবিত অনেক সমর্থক ও কর্মী দল থেকে অনেকটাই দুরে সরে যাচ্ছেন। বিএনপির ৯১ সালের যে সকল ত্যাগী নেতা কর্মীরা দলের জন্য ছিল নিবেদিত প্রাণ, তারাই এখন বর্তমান বিএনপির নেতা ও নির্ধারকদের আচরণে ক্ষিপ্ত হয়ে আলাদা রয়েছে। এরই ফলে দুর্বল হয়ে পরেছে লালমোহন ও তজুমদ্দিনে উপজেলার বিএনপি। এইভাবে চলতে থাকলে সামনের রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামে শীতল হয়ে যাবে বলে মনে করছেন বিএনপির ত্যাগী কর্মীরা। এই দুটি উপজেলা বিএনপির নেতৃত ও কতৃত্ব একে ভারে ভেঙ্গে পরায় ২০০৮ সাল থেকে এখন পযর্ন্ত কেন্দ্রী ঘোষিত কোন হরতাল ও বিভিন্ন কর্মচূসী এখনো পালন করা হয়নি। লালমোহন উপজেলা বিএনপির কমিটি করাকে কেন্দ্র করে পদ পাওয়া ও বঞ্চিতদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি হয়ে দলের যে ফাটল ধরেছে তা আদৌ মিমাংসিত না হওয়ায় যেমন বিরোধ রয়েছে তেমনি রয়েছে হিংসান্তক মনোভাব। তার কারনে প্রকৃত এই খানকার বিএনপির নেতা কর্মীরা চাপা ক্ষোভ নিয়ে দিন দিন মুখ ফিরেয়ে নিচ্ছেন। আপর দিকে লালমোহন উপজেলা ছাত্রদল, পৌর ছাত্রদল ও সকল ইউনিয়নের ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এসকল অধিকাংশ কমিটিতে যারা প্রকৃত ছাত্র নয় তাদেরকে দিয়ে কমিটি করা হয়েছে। এই নিয়েও চাপা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে। পশ্চিম চর উমেদ, চরভূতা, কালমা ও লালমোহন সদর ইউনিয়ন সহ অধিকাংশ ইউনিয়ন কমিটিতে প্রকৃত ছাত্রদেরকে মূল্যান করা হয়নি। আবার কিছু কিছু কমিটিতে জুনিয়রদের দেওয়া হয়েছে সিনিয়রদের পদ। আবার এ সকল কমিটিতেও নিজেদের ক্ষমতা বিস্তারের জন্য আত্মীয় করণ ও টাকার বিনিময় অযোগ্যদের পদ দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। এই নিয়ে ছাত্রদলের মধ্যে ও রয়েছে নিজেদে বিরোধ। এই ভাবে চলতে থাকলে এক সময় এই অসনে বিএনপির কোন চিহ্ন থাকবেনা বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সুবিধা বঞ্চিত একধিক নেতা কর্মীরা। এই সকল বিরোধ পূর্ণ মনোভাব পরিহার করে দলের স্বার্থে এক হয়ে কাজ করতে সকলকে আন্তরিকভাবে দেখতে চায় এ দুটি উপজেলার বিএনপির ত্যাগী নেতা কর্মী ও সমর্থকরা। এ ব্যাপারে লালমোহন উপজেলা বিএনপির সভাপতি এনায়েত কবীরের সাথে তার ব্যাবহিত মোবাইল ফোনে একধিক বার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মানবতাবিরোধী আসামি আবদুল আলিম মারা গেছেন


কানিউজ ডেস্ক : মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় আমৃত্যু কারাদণ্ড পাওয়া আসামি বিএনপির সাবেক মন্ত্রী আবদুল আলিম আর নেই। আজ দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে । এর আগে তাকে কৃত্রিম শ্বাস-প্রশ্বাস মাধ্যমে বাঁচিয়ে রাখা হয়েছে বলে জানায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কর্তৃপক্ষ।

পঞ্চগড়ে ফারুকীর দাফন সম্পন্ন


কানিউজ ডেস্ক : জানাজার নামাজ শেষে মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীকে পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার বড়শশী ইউনিয়নের নাউতারী নবাবগঞ্জ গ্রামের গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে। শনিবার সকাল সোয়া ১১টায় তার দাফন সম্পন্ন হয়। এর আগে মরহুমের দ্বিতীয় স্ত্রীর বড় ছেলে আহমেদ রেজা ফারুকী জানাজার নামাজ পড়ান। এসময় পঞ্চগড়-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন, ফারুকীর ভাই আব্দুর রউফ, ভাই মো. আব্দুল্লাহ ও মো. মাসুম, ছেলে মাসুম বিন নুর, আহমেদ ফয়সাল ফারুকী, বড়শশী ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াজুল করিম প্রধান খোকা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীন মোহাম্মদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু আউয়ালসহ হাজার হাজার মুসল্লি জানাজায় অংশ নেন। শনিবার ভোর ৩টা ৫৫ মিনিটে লাশবাহী গাড়িতে ফারুকীর মৃতদেহ তার গ্রামের বাড়ি নাউতারী নবাবগঞ্জে পৌঁছায়। এরপর লাশবাহী গাড়িটি সকাল থেকে নাউতারী নবাবগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রাখা ছিল হয়। সেখানে পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, নীলফামারীসহ আশপাশের জেলার শত শত মানুষ তার মৃতদেহ দেখার জন্য ভীড় করেন। তারা লাইন ধরে তার মৃতদেহ দেখেন। প্রসঙ্গত, গত বুধবার রাত সোয়া ৯টার দিকে ১৭৪ নম্বর পূর্ব রাজা বাজারের ভাড়া বাসায় চ্যানেল আইয়ের ইসলামিক অনুষ্ঠান ‘হজ্ব কাফেলা’ ও ‘শান্তির পথের’ উপস্থাপক মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

কক্সবাজারে ৫৫ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার


কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজারে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৫৫ হাজার ৩শ’ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা। শনিবার সকাল ১০টা ও ১১টার দিকে টেকনাফ সড়কের দমদমিয়া বিজিবি চেকপোস্ট ও কক্সবাজারের লিংক রোডে এ অভিযান চালানো হয়। বিজিবির টেকনাফ-৪২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবুজার আল জাহিদ জানান, সকালে দমদমিয়া বিজিবি চেকপোস্টে টেকনাফ থেকে কক্সবাজারগামী নাফ সার্ভিস নামে একটি বাসে তল্লাশি চালিয়ে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়।এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। এছাড়া কক্সবাজার পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা কক্সবাজারের লিংক রোডে অভিযান চালিয়ে ৪৩ বোতল ফেন্সিডিল ও পাঁচ হাজার ৩শ’ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে। সকাল ১১টার দিকে দিকে এ অভিযান চালানো হয়। কক্সবাজার গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনজুর আলম জানান,এ ব্যাপারে মামলা করে আটক ব্যক্তিদের কক্সবাজার সদর থানায় সোপর্দ করা হচ্ছে।

মোদির জাপান মিশন শুরু আজ


অনলাইন ডেস্ক : ভুটান ও নেপাল সফরের পর শনিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পাঁচ দিনের জাপান সফর শুরু করেছেন। মহাদেশের রাজনীতিতে চীনের উত্থানের সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখতে দুই গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রকে আরও উদ্যোগী হওয়ার লক্ষ্যেই প্রধানমন্ত্রীর এই সফর। জানা গেছে, প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে দুই দেশের সম্পর্ককে আরও শক্ত করতে ও ভারতীয় সেনাবাহিনীতে জাপানী বিমান কেনার বিষয় নিয়েও কথা হবে দুই প্রধানমন্ত্রীর এ বৈঠকে। দেশটিতে হাই স্পিড বুলেট ট্রেন চালুর ব্যাপারে পরিকাঠামোগত সাহায্য চাইতে বিভিন্ন জাপানী সংস্থার সঙ্গেও কথা বলবেন মোদি। প্রধানমন্ত্রী মোদির সফরসঙ্গী হিসেবে রয়েছেন উচ্চপর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল। এদের মধ্যে রয়েছেন মুকেশ আম্বানি, আজিম প্রেমজি সহ একাধিক শিল্পপতি। আগামী ১ সেপ্টেম্বর জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবের সঙ্গে বৈঠক করবেন নরেন্দ্র মোদি।

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের টাকা ছিনতাই; চিন্তিত এজেন্টরা


কানিউজ ডেস্ক : যতই দিন যাচ্ছ, তত বাড়ছে মোবাইল ব্যাংকিং সেবার পরিসর। সাধারণ মানুষও গ্রহণ করছে হাতের নাগালে পাওয়া এই সেবা। কিন্তু এই ব্যবসার সঙ্গে জড়িত মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগও বাড়ছে। অনেক এজেন্টদের কাছ থেকে সম্প্রতি বড় অংকের টাকা ছিনতাইয়ের বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবারও ব্রাহ্মনবাড়িয়াতে বেসরকারি মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশের একজন এজেন্টের কাছ থেকে ছয় লাখ টাকা ছিনতাই হয়েছে। বাংলাদেশে ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, জুলাই মাসে মোবাইল ব্যাংকিং-এ লেনদেন হয়েছে প্রায় ১১০০০ কোটি টাকা। অর্থনীতিবিদরা মনে করেন, এই অংক দ্রুত আরও বাড়বে। কিন্তু টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা এজেন্টদের আতংকিত করে তুলছে। মাঠ পর্যায়ে এজেন্টরাই এই ব্যবসার অন্যতম চাবিকাঠি। সম্প্রতি যেসব এজেন্টের কাছ থেকে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে, সেখানে টাকার নূন্যতম অংক প্রায় ১০ লাখ টাকা। কয়েকটি ঘটনাতে সম্প্রতি এজেন্টদের কাছ থেকে প্রায় এক কোটি টাকা ছিনতাই হয়েছে। অনেক এজেন্ট মনে করেন, বড় শহরগুলোতে তাদের কাজটি আরো বেশি ঝুঁকিপুর্ণ হয়ে উঠছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আশা’র শিক্ষক শাহনুর ইসলাম মনে করেন, মোট লেনদেনের তুলনায় দুর্ঘটনার সংখ্যা অনেক কম হলেও ছিনতাইয়ের ঘটনাগুলোকে ছোট করে দেখার কোন কারণ নেই। তিনি বলেন, ‘এটা অবশ্যই বড় করে দেখতে হবে। তা না হলে এজেন্টরা তাদের পুঁজি হারিয়ে ফেলবে। এখানে এজেন্ট বলতে যাদের বোঝানো হচ্ছে তারা সবাই সাধারণ ব্যবসায়ী।” ব্যাংকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বর্তমানে মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টের সংখ্যা চার লাখের বেশি। মোবাইল ব্যাংকিং-এ নিবন্ধিত গ্রাহকের সংখ্যা এক কোটি ৭০ লাখের মতো। এসব ছিনতাইয়ের ঘটনা সাধারণ গ্রাহকদের ওপর কোন প্রভাব না পড়লেও সার্বিক ব্যবসার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ তৈরি করছে। যে কয়টি কোম্পানি গ্রাহকদের মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধা দিচ্ছে তাদের মধ্যে সবচেয়ে বিস্তৃত ব্র্যাক ব্যাংকের বিকাশ। এর মুখপাত্র জাহেদুল ইসলাম বলেন, ছিনতাইয়ের ঘটনাগুলো নিয়ে তারা উদ্বিগ্ন। তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের এজেন্ট এবং ডিষ্ট্রিবিউটরদের টাকা পরিবহনের ক্ষেত্রে সতকর্তা অবলম্বন করতে বলেছি। প্রয়োজনে পুলিশের সহায়তা নিতে বলেছি।” ছিনতাইয়ের ঘটনা কিভাবে রোধ করা যায় সেজন্য তাদের নিজস্ব নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা প্রশিক্ষণ দিচ্ছে বলে তিনি জানান। এদিকে পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, কেউ বড় অংকের টাকা বহন করার ক্ষেত্রে পুলিশকে জানালে তাদের নিরাপত্তা দেয়া হয়। তবে ছিনতাই হওয়ার পর সে টাকা কতটা উদ্ধার করা সম্ভব হয় সে ব্যাপারে কোন পরিসংখ্যান পাওয়া যায়নি।

কানাইঘাটে মৃত্যুর সাড়ে তিনমাস পর কবর থেকে বৃদ্ধের লাশ উত্তোলন

Kanaighat News on Friday, August 29, 2014 | 9:14 PM


নিজস্ব প্রতিবেদক: মারা যাওয়ার সাড়ে তিন মাস পর গত বৃহস্পতিবার কানাইঘাটে কবর থেকে এক বৃদ্ধের লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। জানা যায়, উপজেলার বাণীগ্রাম ইউপির বড়দেশ (অমরপুর) গ্রামের বৃদ্ধ হাজী আলী আহমদ (৭২) অসুস্থ অবস্থায় গত ১৬ এপ্রিল সিলেট ওমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। পরে তার লাশ গ্রামের গুরুস্থানে দাফন করা হয়। হাজী আলী আহমদ শারীরিক নির্যাতনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন এমন অভিযোগ এনে তার দ্বিতীয় স্ত্রী আফিয়া বেগম বাদী হয়ে স্বামীর তালাকপ্রাপ্তা প্রথম স্ত্রী ও তার ৫ ছেলে-মেয়েসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে সিলেটের চীফ জুড়িশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ২য় আদালতে গত ১২ জুন হত্যা মামলা দায়ের করেন। অভিযোগ দায়েরের প্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালত দরখাস্ত মামলাটি এফআইআর ভুক্ত করে আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ এবং হাজী আলী আহমদের লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়না তদন্তের জন্য কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল চৌধুরীকে নির্দেশ প্রদান করেন। এরই প্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়ার উপস্থিতিতে থানা পুলিশ বৃদ্ধ আলী আহমদের গলিত লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওমেক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। লাশ উত্তোলনের সময় আশপাশ এলাকার বিপুল সংখ্যক উৎসুক জনতা সেখানে ভিড় করেন। স্থানীয় লোকজন কানাইঘাট নিউজকে জানিয়েছেন, হাজী আলী আহমদ তিনটি বিয়ে করেছিলেন, প্রত্যেক স্ত্রীর ঘরে একাধিক সন্তান রয়েছে। জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে এ মামলার সূত্রপাত হয়েছে বলে জানান।

কানাইঘাটে মুক্তিযোদ্ধার ছেলে নিখোঁজ


নিজস্ব প্রতিবেদক: কানাইঘাটে এক বীরমুক্তিযোদ্ধার ছেলে ২৮ দিন ধরে নিখোঁজ। তাকে কোথাও খুজে পাচ্ছেন না পরিবারের লোকজন। থানায় সাধারণ ডায়রীও করা হয়েছে। জানা যায়, উপজেলার ১নং লক্ষ্মীপ্রসাদ পূর্ব ইউপির বীরমুক্তিযোদ্ধা খাইরুল আলম (৬৫) এর পুত্র আখতার হোসেন (৩৩) গত ৩১ জুলাই স্থানীয় কান্দলা নয়াবাজারে এসে আর বাড়িতে ফিরে যায়নি। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করে তাকে না পেয়ে পিতা খাইরুল আলম গত ২৪ আগষ্ট কানাইঘাট থানায় সাধারণ ডায়রী করেন। ডায়রী নং-১১৯৬। আখতার হোসেনের পিতা ও পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন সে দীর্ঘদিন ধরে মানসিক ভারসাম্যহীনতায় ভোগছিল। নিখোজ হওয়ার সময় পরনের কাল-কালো প্যান্টে ও চেক ফুলহাতা শার্ট ছিল। তার গায়ের রং শ্যামলা। সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় বাংলা এবং ইংরেজিতেও কথা বলতে পারে। কোন সুহৃদ ব্যক্তি তার সন্ধান পেলে ০১৭৮১-১৫০৫২৬ নম্বরে যোগাযোগ করার জন্য তার পরিবারের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে পাওয়া গেল নীল গলদা চিংড়ি


কানিউজ ডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেইন রাজ্যে বিরল প্রজাতির নীল রঙের গলদা চিংড়ি পাওয়া গেছে। তবে এটি না খেয়ে রাজ্যের কর্তৃপক্ষের কাছে তুলে দেয়া হয়েছে। কর্তৃপক্ষ এটি অ্যাকুরিয়ামে রাখার ব্যবস্থা করেছে। জানা গেছে, গত শনিবার সকালে জে লাপ্লেন্ট তার মেয়ে মেঘানকে (১৪) সাথে নিয়ে গলদা চিংড়ি ধরার ফাঁদ পেতেছিলেন। এ সময় মাছটি ধরা পড়ে। এটির ওজন ৯০০ গ্রাম। মেঘান মাছটি না খেয়ে রাজ্য কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেয়। যুক্তরাষ্ট্রে পাওয়া গেল নীল গলদা চিংড়ি এটি যে অ্যাকুরিয়ামে রাখা হয়েছে সেখানে আরও তিনটি নীল এবং একটি কমলা রঙের গলদা চিংড়ি রয়েছে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এটি সবাই দেখতে পারবে। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, গলদা চিংড়ি সাধারণত ধূসর, কমলা অথবা গাঢ় সবুজ রঙের হয়। প্রতি দুই বিলিয়ন গলদা চিংড়ির মধ্যে একটি নীল রঙের গলদা চিংড়ি পাওয়া যায়। গত জুন মাসে এক জেলে যুক্তরাজ্যের ওয়েলস থেকে একটি নীল রঙের গলদা চিংড়ি ধরেছিলেন। ২০১২ সালে কানাডার নোভা স্কোটিয়া উপকূলে এ প্রজাতির একটি চিংড়ি পাওয়া যায়।

নবজাতক চুরি, রাশেদা-রহিমা রিমান্ডে


কানিউজ ডেস্ক: ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের গাইনি বিভাগের ২১৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে নবজাতক চুরির ঘটনায় গ্রেপ্তার বেইলী আক্তার রহিমা ও রাশেদা খানম পারভীনের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। শুক্রবার সকালে গ্রেপ্তার রহিমা ও রাশেদাকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের (সিএমএম) আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফেরদৌস আলম সরকার। শুনানি শেষে মহানগর হাকিম জয়নাব বেগমের আদালত তাদের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গত ১৯ আগস্ট রাত আনুমানিক ৩টার দিকে প্রসবজনিত কারণে অসুস্থ হলে স্ত্রী রুনা আক্তারকে ঢামেক হাসপাতালের ২১৩ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করেন স্বামী কাওসার হোসেন বাবু। ভর্তির দুই ঘণ্টা পর জমজ দুই ছেলের জন্ম দেন রুনা আক্তার। ২০ আগস্ট সকালে রাশেদা খানম পারভীন রুনার ওয়ার্ডে আসেন। পরিচয় জানতে চাইলে তিনি জানান, পাশের ওয়ার্ডে তার রোগী আছে। এ পরিচয়ে রুনার সঙ্গে বিভিন্ন গল্প করতে থাকেন তিনি। এরপর নবজাতককে কোলে নেন তিনি। গত ২১ আগস্ট সকাল ৮টার দিকে ওই নারী আবার রুনার ওয়ার্ডে যান এবং নবজাতকটিকে কোলে নেন। এরপর নবজাতককে নিয়ে হাঁটাহাঁটির এক পর্যায়ে পালিয়ে যান। হাসপাতালে নবজাতক চুরির ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। নবজাতক উদ্ধারে তৎপরতা শুরু করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এক সপ্তাহের ব্যাপক অনুসন্ধানের পর বৃহস্পতিবার গাজীপুরের বোর্ড বাজার এলাকা থেকে রাশেদা খানম পারভীন ও বেলী আক্তার রহিমাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের কাছ থেকে নবজাতকটি উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব জানায়, রাশেদা খানম পারভীন একজন প্রশিক্ষিত ধাত্রী। এর আগেও তিনি শিশু চুরির ঘটনার সঙ্গে জড়িত। ৪০ হাজার টাকার চুক্তিতে নবজাতকটিকে চুরি করে রহিমাকে দেন রাশেদা। র‌্যাব আরও জানায়, প্রশিক্ষিত ধাত্রী হওয়ার কারণে রাশেদার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় প্রসূতি মায়েদের শিশু মৃত বলেও অন্য লোকের কাছে বিক্রি করার অভিযোগ রয়েছে।

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের ড্র অনুষ্ঠিত


স্পোর্টস রিপোর্টার,ঢাকা:উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। একই গ্রুপে পড়েছে ১০ বারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ ও পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল। বার্সেলোনার গ্রুপে শক্তিশালী দল বলতে গেলে ফ্রান্সের ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন পিএসজি। মোনাকোতে বৃহস্পতিবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের ড্র অনুষ্ঠানে ৩২টি দলকে লটারির মাধ্যমে ৮টি গ্রুপে ফেলা হয়। গত মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ খেলবে বি গ্রুপে। লিভারপুল ছাড়া তাদের সঙ্গে আছে সুইজারল্যান্ডের বাসেল ও বুলগেরিয়ার লুদোগোরেতস। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত কোনো দল টানা দুইবার এর শিরোপা জিততে পারেনি। তাই রেকর্ড দশবার এই প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন রিয়ালের সামনে এবার আরেকটি রেকর্ড গড়ার হাতছানি। চারবারের ইউরোপ সেরা বার্সেলোনা খেলবে এফ গ্রুপে। পিএসজি ছাড়া তাদের অন্য দুই গ্রুপ সঙ্গী চারবারের চ্যাম্পিয়ন নেদারল্যান্ডসের আয়াক্স ও সাইপ্রাসের আপোয়েল। ইউরোপীয় ক্লাব ফুটবলে আয়াক্স বার্সেলোনার সমান ইউরোপ সেরার শিরোপা জিতলেও ডাচ দলটির দাপট আজ আর নেই। তাই গ্রুপে বার্সেলোনার গ্রুপ সেরা হওয়ার লড়াইটা হবে ফরাসি দল পিএসজির সঙ্গেই। গতবার কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকেই দুটি দল ছিটকে পড়েছিল। অবশ্য প্রতিটি গ্রুপ থেকে দুটি করে দল দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠবে বলে বড় কোনো অঘটন না ঘটলে অনায়াসেই পরের রাউন্ডে যাবে রিয়াল ও বার্সেলোনা। স্পেনের ওই দুই ক্লাবের তুলনায় কিছুটা দুর্ভাগা বায়ার্ন মিউনিখ ও ম্যানচেস্টার সিটি। গতবারের মতো এবারও একই গ্রুপে পড়েছে তারা। সঙ্গে আবার যোগ হয়েছে ইতালির রোমা। তাই রাউন্ড অব সিক্সটিন- এ জায়গা করে নিতে কঠিন লড়াই-ই করতে হবে বায়ার্ন ও সিটিকে। এই গ্রুপের অন্য দলটি হলো রাশিয়ার সিএসকেএ মস্কো। আরেকটি কঠিন গ্রুপ হলো ডি। এর দলগুলো হলো- বুন্দেসলিগার বর্তমান শক্তিশালী দল, ১৯৯৭ সালের চ্যাম্পিয়ন জার্মানির বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, ইংল্যান্ডের আর্সেনাল, তুরস্কের গালাতাসারাই ও বেলজিয়ামের আন্ডারলেখট। এদিকে, গতবারের রানার্সআপ আতলেতিকো মাদ্রিদ খেলবে এ গ্রুপে। গত আসরের চমক জাগানো এই দলটির সঙ্গে একই গ্রুপে আছে ইতালির ইউভেন্তুস, গ্রিসের অলিম্পিয়াকোস ও সুইডেনের মালমো। এই গ্রুপের প্রতিটি দল গত মৌসুমে নিজ দেশের ঘরোয়া লিগের চ্যাম্পিয়ন। ২০১২ সালের চ্যাম্পিয়ন চেলসির সঙ্গে জি গ্রুপে আছে জার্মানির শালকে, পর্তুগালের স্পোর্তিং ও স্লোভেনিয়ার মারিবোর। এদিকে, সি গ্রুপে কোনো বড় দল না থাকলেও সবকটি দল প্রায় সম শক্তির হওয়ায় দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠতে গ্রুপের সবাইকে কঠিন লড়াই করতে হবে। এই গ্রুপে পর্তুগালের দল দুইবারের চ্যাম্পিয়ন বেনফিকার সঙ্গে আছে তারকা স্ট্রাইকার রাদামেল ফালকাওয়ের দল ফ্রান্সের মোনাকো, রাশিয়ার জেনিত ও জার্মানির বায়ার লেভারকুজেন। এইচ গ্রুপেও কোনো বড় দল নেই। তবে সি গ্রুপের মতোই সবকটি দলই কাছাকাছি শক্তির। দলগুলো হলো পর্তুগালের পোর্তো, ইউক্রেনের শাখতার দোনেৎস্ক, স্পেনের আথলেতিক বিলবাও ও বেলারুশের বাতে বরিসভ। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের আট গ্রুপ: এ গ্রুপ: আতলেতিকো মাদ্রিদ, ইউভেন্তুস, অলিম্পিয়াকোস, মালমো বি গ্রুপ: রিয়াল মাদ্রিদ, লিভারপুল, বাসেল, লুদোগোরেতস সি গ্রুপ: বেনফিকা, মোনাকো, জেনিত, বায়ার লেভারকুজেন ডি গ্রুপ: আর্সেনাল, বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, গালাতাসারাই, আন্ডারলেখট ই গ্রুপ: বায়ার্ন মিউনিখ, ম্যানচেস্টার সিটি, রোমা, সিএসকেএ মস্কো এফ গ্রুপ: বার্সেলোনা, পিএসজি, আয়াক্স, আপোয়েল জি গ্রুপ: চেলসি, শালকে, স্পোর্তিং লিসবন, মারিবোর এইচ গ্রুপ: পোর্তো, শাখতার দোনেৎস্ক, আথলেতিক বিলবাও ও বাতে বরিসভ

বিয়ে করছেন পিট-জোলি


বিনোদন ডেস্ক: অবশেষে বিয়ে করার অনুভূতি জাগল তাদের। তাই দীর্ঘ দিন একসঙ্গে থাকার পর বিয়ের গাঁটছড়া বাঁধলেন হলিউডের জনপ্রিয় জুটি ব্রাড পিট ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। খবর এএফপির। এএফপির ওই খবরে বলা হয়, ৫০ বছর বয়সী ব্রাড পিট ও ৩৯ বছর বয়সী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা গত শনিবার ফ্রান্সে সম্পন্ন হয়। তবে জাঁকজমকপূর্ণভাবে নয়, ফ্রান্সের চাতিউ মিরাভাল গ্রামে একদম ঘরোয়া পরিসরে বিয়ের পর্ব সারেন এই জুটি। এই গ্রামেরই একটি বাড়িতে তাঁরা দীর্ঘদিন এক সঙ্গে থেকেছেন। ২০০৫ সালে ‘মিস্টার অ্যান্ড মিসেস স্মিথ’ ছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে একে অপরের প্রেমে পড়েন দুই তারকা। এরপর থেকে তাঁরা একসঙ্গেই থাকতেন। অস্কারজয়ী তারকা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি এর আগে অভিনেতা জনি লী মিলার ও বব থর্টনকে বিয়ে করেছিলেন। পরে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। এটি তাঁর তৃতীয় বিয়ে। আর ব্রাড পিটের এটি দ্বিতীয় বিয়ে। এর আগে তিনি হলিউড অভিনেত্রী জেনিফার অ্যানিস্টোনকে বিয়ে করেছিলেন।

শনিবার ফারুকীর দাফন, রোববার সারাদেশে হরতাল


স্টাফ রিপোর্টার: মাওলানা নূরুল ইসলাম ফারুকী হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে রোববার সারা দেশে হরতালের ঘোষণা দিয়েছে ইসলামী ছাত্রসেনা। শুক্রবার জুমার নামাজের পর রাজধানীতে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের সামনে মিছিল করে ছাত্রসেনার নেতা-কর্মীরা। এ সময় তারা হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবির পাশাপাশি রোববার সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালনের আহ্বান জানায়। মিছিলটি প্রেসক্লাব হয়ে জাতীয় ঈদগাঁও ময়দানে এসে শেষ হয়। এদিকে শুক্রবার পবিত্র জুমার নামাজ শেষে রাজধানীর জাতীয় ঈদগাঁও ময়দানে মাওলানা ফারুকীর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার পঞ্চগড়ে বড়শ্বশীতে নিজ গ্রামে পঞ্চমবারের জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হবে। জাতীয় ঈদগাঁও ময়দানে মাওলানা নূরুল ইসলাম ফারুকীর নামাজে জানাজায় বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আতের নেতাকর্মীসহ তার ভক্ত ও অনুসারীরা অংশ নেয়। বায়তুল মোকারমের খতিব মাওলানা মো. সালাহ উদ্দিন জানাজা নামাজ পরিচালনা করেন। বুধবার রাতে ফারুকীকে (৬০) রাজধানীতে নিজের বাসায় গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। সেই রাতেই ফারুকীর ছেলে ফয়সাল ফারুকী বাদী হয়ে রাজধানীর শেরে বাংলা নগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। যদিও মামলায় আসামি হিসেবে কারো নাম উল্লেখ করা হয়নি।

রাবি ছাত্রলীগ সম্পাদক তুহিনকে অব্যাহতি


নূর মুহাম্মদ রিফাত(রাবি): রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রধান প্রকৌশলীকে মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার ঘটনায় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদ আল হোসেন তুহিনকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দিয়ে যুগ্ম-সম্পাদক খালিদ হাসান বিপ্লবকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দফতর সম্পাদক শেখ রাসেল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ‘বিভিন্ন সময়ে সংগঠনের শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজে জড়িত থাকার দায়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদ আল হোসেন তুহিনকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তার স্থলে বর্তমান কমিটির যুগ্ম-সম্পাদক খালিদ হাসান বিপ্লবকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে।’ নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের এমবিএ’র শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন কাজলার মু. হেলালউদ্দিনের ছেলে তিনি। উল্লেখ্য, চাঁদা না দেওয়ায় বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় ভিসির দফতরে গিয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী সিরাজুম মুনীরকে মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেয় ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সভাপতি তন্ময় আনন্দ অভি, ছাত্রলীগকর্মী মামুন-অর-রশিদসহ ১০-১২ নেতাকর্মীরা। এতে নেতৃত্বে দেন রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদ আল হোসেন তুহিন। তবে হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে তুহিনকে অব্যহতি দেয়া হলেও অন্যদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

গাজীপুরে সিকিউরিটি গার্ডকে গলা কেটে হত্যা


গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরে হাতিয়াব এলাকায় শুক্রবার দুপুরে ফ্যাক্টরীর ভিতরে ঢুঁকে সিকিউরিটি গার্ডকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত ব্যক্তির নাম সাইদুল হক (৬২)। তার বাড়ি নোয়াখালীর জেলা সোনাইমুড়ি থানার বিহিরগাঁও। বাবার নাম দেলোয়ার হোসেন দেলু। তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘাতকরা নিহতের লাশে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে ফেলার চেষ্টা করেছিল। এদিকে লাশের ছবি নিতে পুলিশ বাধা দেয়। পুলিশ ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুর সদর উপজেলার হাতিয়াব ময়লারটেক এলাকায় রাজেন্দ্রপুর রোডে বনের ভিতর অবস্থিত ইউনিভার্সাল এক্সসরিজ লিঃ নামক গার্মেন্টেসের বিভিন্ন মালামাল তৈরির একটি শিল্প প্রতিষ্ঠানে ৩ বছর ধরে সিকিউরিটি গার্ডের চাকরি করতেন নিহত সাইদুল হক। শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত প্রতিষ্ঠানের পিছনে গার্ড রুমে ঢুঁকে প্রথমে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে আহত করে এবং পরে তাকে গলা কেটে হত্যা করে। জয়দেবপুর থানার ওসি কামরুল ইসলাম জানান, ইউনিভার্সেল এক্সসরিজ একটি বৃহৎ শিল্প প্রতিষ্ঠান হলেও সেখানে মাত্র একজন সিকিউরিটি কর্মরত ছিল। ঘটনার সময় নিহত সাইদুল হক একাই ছিলেন। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে তাকে খুন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

সরকার সেনাবাহিনীকে মধ্যস্ততা করতে বলেনি: নওয়াজ


কানিউজ ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ বলেছেন, তার সরকার দেশের বিরাজমান সঙ্কট নিরসনে সহায়তা করার জন্য সেনাবাহিনীকে মধ্যস্ততা করার অনুরোধ জানায়নি। আর সেনাবাহিনীও নিজে থেকে ওই কাজে নামার আগ্রহ প্রকাশ করেনি। আজ শুক্রবার জাতীয় পরিষদে বক্তৃতাকালে তিনি একথা বলেন। সেনাবাহিনীর মধ্যস্ততাকারী ভূমিকা নিয়ে পাকিস্তানে তীব্র সমালোচনা হওয়ার প্রেক্ষাপটে তিনি এ মন্তব্য করলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরী নিসার একটি ফোন কল পেয়েছিলেন, যাতে বলা হয়েছিল যে ইমরান খান ও তাহির-উল-কাদরি সেনাপ্রধান রাহিল শরিফের সাথে দেখা করতে চান। তিনি পার্লামেন্ট সদস্যদের জানান, তিনি বলেছিলেন যে ইমরান ও কাদরি যদি সেনাপ্রধানের সাথে বৈঠক করতে চান, তবে তাদের তা করতে দেয়া উচিত। তিনি বলেন, ‘এমনকি আমিও গতকাল (বৃহস্পতিবার) সেনাপ্রধানের সাথে বৈঠক করিনি।’ তিনি বলেন, কয়েক দিন আগে সেনাবাহিনী তাকে বলেছিল যে রাষ্ট্রীয় ভবনাদি রক্ষা করা তাদের দায়িত্ব। প্রধানমন্ত্রী রাজনীতিবিদদের তাদের আদর্শ জলাঞ্জলি না দেয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পিপিপি চেয়ারম্যান বেনজির ভুট্টোর সাথে গণতান্ত্রিক সংগ্রামে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। ইতোপূর্বে পাকিস্তানি মিডিয়া জানিয়েছিল, নওয়াজ শরিফও সেনাপ্রধানের সাথে বৈঠক করে তাকে রাজনৈতিক সঙ্কট নিরসনে মধ্যস্ততাকারীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে বলেছেন। সেনাপ্রধানের সাথে তার আজ বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। নওয়াজ শরিফের পদত্যাগের দাবিতে ইমরান খান ও তাহির-উল-কাদির দুই সপ্তাহ ধরে আন্দোলন করছেন। তারা গত বছর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে কারচুপির কথা বলে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করছেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নে মুচকি হাসলেন নূর হোসেন

কানিউজ ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জের সেভেন মার্ডারের প্রধান আসামি পলাতক নূর হোসেন ও তার দুই সহযোগীর বিরুদ্ধে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। ভারতের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করে বাগুইয়াটি থানা পুলিশ।
১৪দিনের কারাগারের মেয়াদ শেষে আজ শুক্রবার দুপুরে আবারো নূর হোসেন ও তার দুই সহযোগী ওয়াহিদুজ্জামান সেলিম ও খান সুমনকে আদালতে হাজির করা হয়।
চার্জশিটে তাদের বিরুদ্ধে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগ এনেছে বাগুইয়াটি থানা পুলিশ। ১ সেপ্টেম্বর চার্জশিটের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।
শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে আদালতে প্রবেশের সময় নূর হোসেনকে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে তিনি মুচকি হেসে প্রিজনভ্যান থেকে নেমে আদালতের ভেতরে প্রবেশ করেন। এ মামলার অভিযুক্ত খান সুমন এসময় সাংবাদিকদের দেখে পত্রিকা দিয়ে মুখ ঢেকে ফেলেন।
প্রসঙ্গত, ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম ও আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাতজনকে অপহরণের পর হত্যা করা হয়। পরে তাদের লাশ শীতলক্ষ্যা নদীতে ভেসে উঠলে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার পর কলকাতায় পালিয়ে যান নূর হোসেন ও তার দুই সহযোগী।
১৪ জুন কলকাতার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সংলগ্ন কৈখালি এলাকার একটি বহুতল ভবন থেকে তাদের গ্রেফতার করে সেখানকার পুলিশ।
অবৈধভাবে ভারতে অনুপ্রবেশের দায়ে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়। এরপর বেশ কয়েক দফা রিমান্ড শেষে আদালত তাদের দমদম কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

হামলা-মামলা করেও সরকারের শেষ রক্ষা হবে না: মির্জা ফখরুল


স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতাসীনদের কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে দেশবাসী সোচ্চার হওয়ায় দিশেহারা হয়ে পড়েছে সরকার। হামলা-মামলা করেও সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে মির্জা আলমগীর এ কথা বলেন। বিবৃতিতে তিনি বলেন, সে কারণেই সরকার বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা, গ্রেফতার করছে। নির্যাতন, হত্যা, গুম, অপহরণ করা হচ্ছে। মির্জা ফখরুল বলেন, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলামসহ ২৪ জন নেতাকর্মীকে কারাগারে প্রেরণের ঘটনা সরকারের ধারাবাহিক অপকর্মেরই অংশ। এটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জের এসব নেতাকর্মী মামলায় আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন। তিনি বলেন, নেতাকর্মীরা যাতে অবৈধ সরকারের স্বৈরাচারী শাসনের বিরুদ্ধে কঠিন প্রতিরোধ গড়ে তুলতে না পারে সেজন্যই তাদের নামে মিথ্যা মামলা দেয়া হচ্ছে। দেশের সচেতন জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তা রুখে দেয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি। নেতাকর্মীদের কারাগারে প্রেরণের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান মির্জা ফখরুল। একইসঙ্গে তাদের মুক্তি ও দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান তিনি।

কুর্দি তরুণের শিরোচ্ছেদের ভিডিও প্রকাশ


কানিউজ ডেস্ক: ইসলামিক স্টেটের সদস্যরা এবার এক কুর্দি তরুণের শিরোচ্ছেদের ভিডিও প্রকাশ করেছে। ইরাকের উত্তরাঞ্চলে আইএসের বিরুদ্ধে হামলা বন্ধের ব্যাপারে সতর্ক করতেই তাদের তারা এই ভিডিও প্রকাশ করেছে বলে জানা গেছে। রক্তের বার্তা (ম্যাসেজ ইন ব্লাড) শিরোনামে ওই ভিডিওটিতে দেখা গেছে, কমলা রংয়ের জ্যাম্পসুট পরা বলেছেন, বেশ কয়েকজন কুর্দি যোদ্ধাদের বন্দি করা হয়েছে। পরে ওই তরুণকে আইএসের দখল করা মসুল শহরের একটি মসজিদের কাছে হাঁটু গেড়ে বসে থাকতে দেখা যায়। এরপর তাকে শিরোচ্ছেদ করা হয়। ভিডিওতে আইএসের সদস্যরা জানান, কুর্দি নেতারা যদি যুক্তরাষ্ট্রকে সমর্থন দেওয়া অব্যাহত রাখে তাহলে বন্দি বাকি যোদ্ধাদেরও হত্যা করা হবে। ইরাকের উত্তরাঞ্চলে স্বশাসিত কুর্দিস্তানের যোদ্ধারা মার্কিন বিমান হামলার পাশাপাশি আইএসের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। আইএস সদস্যরা হামা প্রদেশের তাবকা বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালানোর পর কুর্দি যোদ্ধারা পালানোর সময় তাদের বন্দি করা হয় বলে সিরিয়ান অবভারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে। এর আগে আইএস সদস্যরা সিরিয়ান সেনাদের গণহত্যার ভিডিও প্রকাশ করেছিল। সিরিয়ায় একটি সেনা ঘাঁটি দখলের পর ওই সেনাদের বন্দি করেছিল আইএস।সূত্র: বিবিসি

লবণ খেয়ে প্রতিবছর মারা যান ১৬ লাখ মানুষ


কানিউজ ডেস্ক: অতিরিক্ত লবণ খেয়ে সারা পৃথিবীতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েন বহু মানুষ। নতুন এক গবেষণার রিপোর্ট অনুযায়ী, পৃথিবীতে প্রতিবছর ১৬ লাখেরও বেশি মানুষ মারা যান শরীরে অতিরিক্ত সোডিয়াম জমা হওয়ায়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্ধারিত পরিমাণ অনুযায়ী দিনে দুই গ্রামের বেশি লবণ খাওয়া উচিত না। গবেষকরা ১৮৭টি দেশের সাধারণ মানুষের ওপর পরীক্ষা চালিয়ে দেখেছেন, বহু ক্ষেত্রেই দিনে এর থেকে বেশি পরিমাণ লবণ খেয়ে থাকেন তারা। অতিরিক্ত পরিমাণ লবণ উচ্চ রক্তচাপের অন্যতম কারণ। উচ্চ রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয় স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা। গবেষক সারা পৃথিবী জুড়ে ২০৫টি সমীক্ষা করে দেখেছেন, একজন মানুষ গড়ে প্রতিদিন প্রায় ৩.৯৫ গ্রাম লবণ খেয়ে থাকেন। অর্থাৎ যা নির্ধারিত পরিমাণের প্রায় দ্বিগুণ। মধ্য এশিয়ায় লবণ খাওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি। এই অঞ্চলের কোনও কোনও ব্যক্তি দিনে গড়ে প্রায় ৫.৫১ গ্রাম লবণ খেয়ে থাকেন।

জায়ামাত শিবিরের কোন নাশকতা জনগণ মেনে নেবে না: শাজাহান খান


মাদারীপুর প্রতিনিধি: নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, হরতাল কিংবা আন্দোলনের নামে জামায়াত শিবির কোন রকম নাশকতার পরিকল্পনা করলে এর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে সরকার। শুক্রবার মাদারীপুর জেলা ও দায়রা আদালতের পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ ও পুকুরপাড়ে গাছের চারা রোপণকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন। নৌপরিবহন মন্ত্রী বলেন, জামায়াত শিবিরের নাশকতার বিরুদ্ধে জনগণ রুখে দাঁড়াবে এবং প্রশাসনও সক্রিয় ভূমিকা পালন করবে। মন্ত্রী বলেন, আন্দোলনের নামে জায়ামাত শিবিরের কোন নাশকতা জনগণ মেনে নেবে না। আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা জনগণকে সাথে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে তাদের ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ডের মোকাবেলা করবে।

দীপালির নায়ক কলকাতার হিরণ


স্টাফ রিপোর্টার: কলকাতার ‘জ্যাকপট’, ‘বড় একা লাগে’, ‘লে হালুয়া লে’, বা ‘মজনু’ ছবি যারা দেখেছেন তাদের কাছে নায়ক হিরণ বেশ পরিচিত নাম। অল্প সময়ে জনপ্রিয়তা পাওয়া এ শিল্পী এবার অভিনয় করছেন মডেল ও অভিনয়শিল্পী দীপালির বিপরীতে। অনন্য মামুন পরিচালিত ছবিটির নাম ‘মন দিওয়ানা’। প্রযোজনায় মেঘ এন্টারটেইনমেন্ট। ছবির কাজে প্রথমবারের মতো ঢাকায় এসেছিলেন হিরণ। সব কিছু চূড়ান্ত করে বুধবার আবার কলকাতায় ফিরে গেছেন। যাওয়ার আগে তিনি জানান, ‘খুব ভালো একটি দিন কেটেছে ঢাকায়। সময় থাকলে আরও দু’একদিন থাকার ইচ্ছে ছিল তার।’ দীপালি এর আগে ‘পায়রা’ নামের একটি ছবিসহ বেশ কয়েকটি নাটকে কাজ করেছেন। ‘পায়রা’ ছবিতে তার বিপরীতে আছেন ইমন। এছাড়া তিনি ‘ব্ল্যাকমেইল’ ছবিতে অভিনয় করছেন। ‘মন দিওয়ানা’ ছবি সম্পর্কে দীপালি বলেন, ‘ছবিটি নিয়ে আমি খুব আশাবাদী। ভালো কিছু করার জন্য আমি বেশ মুখিয়ে আছি। এ সু‌যোগ আমি পুরোপুরি কাজে লাগাতে চাই।’ জানা গেছে, আগামী মাস থেকে ঢাকায় ‘মন দিওয়ানা’ ছবির দৃশ্যায়ন শুরু হবে। রোমান্টিক ধাঁচের এ ছবিতে ভারতের একজন নায়িকাও যুক্ত হওয়ার কথা রয়েছে।

চাঁদপুরের মেঘনায় কার্গোডুবি, নিহত ১


চাঁদপুর: চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলায় মেঘনা নদীতে লবণবাহী একটি কার্গোজাহাজ ডুবে মোঃ আরশাদ (৫৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে হাইমচর উপজেলার তেলিরমোড় এলাকায় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। আরশাদ কার্গোটির শ্রমিক ছিলেন। তার বাড়ি চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলায়। জানা যায়, কঙবাজারের কুতুবদিয়া থেকে ছেড়ে আসা লবণবাহী ‘এমভি ওসমান’ নামের কার্গোজাহাজটি নারায়ণগঞ্জের দিকে যাওয়ার পথে হাইমচরের মেঘনা নদী অতিক্রমকালে ডুবোচরের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ডুবে যায়। এ সময় কার্গোতে থাকা ৮ শ্রমিক সাঁতরে নদীতীরে উঠমে সক্ষম হলেও আহত হন মোঃ আরশাদ। এ সময় তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্‌্েরদ নিয়ে যাওয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

সিলেটে সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৫০


সিলেট: সিলেট সদর উপজেলার সাহেবেরবাজারে আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দুইপক্ষের সংঘর্ষে এক যুবক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন প্রায় অর্ধশত। নিহত যুবকের নাম মাসুকুর রহমান। স্থানীয় ইয়াংস্টার সমাজকল্যাণ সংস্থার সমাজকল্যাণ সম্পাদক ও দেওয়াইরবহর গ্রামের মৃত আবদুল বারীর ছেলে সে। স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কৃষক সংগ্রাম পরিষদের নেতাকর্মীদের সংঘর্ষে মাসুক নিহত হন। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত কয়েক মাস ধরে কৃষক সংগ্রাম পরিষদ এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা করে আসছিল। এ নিয়ে প্রায় ১০দিন আগে এলাকার লোকজনের সঙ্গে কৃষক সংগ্রাম পরিষদ নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটে। ওইদিন পরিষদের নেতাকর্মীরা স্থানীয় সাহেবের বাজারে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছিলেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় সূত্রে আরও জানা যায়, ওই হামলার জের ধরেই শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আবারও দুইপক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ চলাকালে ইয়াংস্টার সমাজকল্যাণ সংস্থার সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাসুকুর রহমান ঘটনাস্থলেই নিহত হন। গুরুতর আহত হন আরও অন্তত অর্ধশত। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এ ব্যাপারে বিমান বন্দার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ জামানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

শাহজালালে সাড়ে ৮ কেজি স্বর্ণসহ আটক ১


স্টাফ রিপোর্টার: হযরত শাহ জালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৮ কেজি ৪০০ গ্রাম স্বর্ণের ৭২টি বারসহ মো. আজিম উদ্দিন (২৫) একজনকে আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা সদস্যরা। শুক্রবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে দুবাই থেকে ছেড়ে আসা দুবাই এয়ারওয়েজের এফজেড ৫৮৩ ফ্লাইটে ঢাকায় আসেন মো. আজিম উদ্দিন। পরে তার দেহ তল্লাশি চালিয়ে স্বর্ণের বারগুলো পাওয়া যায়। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের সহকারী কমিশনার উম্মে নাহিদা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। শুল্ক গোয়েন্দা তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক মইনুল খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দুবাই এয়ারওয়েজের এফজেড ৫৮৩ ফ্লাইটের ওই যাত্রীর দেহ তল্লাশি করে ৭২টি স্বর্ণের বার পাওয়া গেছে। যার বর্তমান বাজার মূল্য ৪ কোটি ২০ লাখ টাকা।

তোশিবার নতুন ৮টি ল্যাপটপ বাজারে


কানিউজ ডেস্ক: তোশিবা ব্র্যান্ডের নতুন ৮টি মডেলের ল্যাপটপ দেশের বাজারে নিয়ে এল স্মার্ট টেকনোলজিস। গত বুধবার রাজধানীর এক রেস্তোঁরায় আনুষ্ঠানিকভাবে ল্যাপটপগুলো উন্মুক্ত করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্মার্ট টেকনোলজিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম এবং বিক্রয় মহাব্যবস্থাপক জাফর আহমেদ। প্রতিষ্ঠানটির উপ-মহাব্যবস্থাপক এবং ল্যাপটপ ও ব্র্যান্ড পিসি বিভাগের প্রধান মুজাহিদ আল বেরুনী সুজনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন তোশিবা পণ্য ব্যবস্থাপক রেজাউল করিম তুহিন। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সব ধরনের ব্যবহারকারীর কথা মাথায় রেখে ২৮,৭০০ টাকা থেকে শুরু করে ১৮১,৫০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে নতুন ল্যাপটগুলো। এর মধ্যে সবচেয়ে সাশ্রয়ী মডেলটি হলো স্যাটেলাইট সি৫০ যার দাম ২৮,৭০০ টাকা। অন্যদিকে উচ্চ পারফর্ম্যান্স ও গেমিংয়ের জন্য টেকরা এবং পোর্টিজি সিরিজের কয়েকটি মডেলের ল্যাপটপও নিয়ে আসা হয়েছে। অনুষ্ঠানে অবমুক্ত ল্যাপটপের মডেলগুলো হলো স্যাটেলাইট সিরিজের এনভি১০টি, সি৫০, এল৪০, এল৫০, পি৫০, টেকরা সিরিজের জেড৪০, পোর্টিজি আর৩০ এবং জেড৩০।

চুলের বেণী নিয়ে বিপত্তিতে ওজনিয়াকি


স্পোর্টস রিপোর্টার,ঢাকা: বছরের শেষ গ্র্যান্ড স্ল্যাম ইউএস ওপেনের দ্বিতীয় রাউন্ডে চুলের বেণী নিয়ে মজার এক সমস্যায় পড়েছিলেন কারোলিন ওজনিয়াকি। র‌্যাকেটের সঙ্গে বেণী জড়িয়ে যাওয়ায় একটি পয়েন্ট খোয়াতে হয় তাকে। ম্যাচের এক সময় একটি ব্যাকহ্যান্ড শট খেলতে গিয়ে র‌্যাকেটের সঙ্গে বেণী জড়িয়ে ফেলেন ডেনমার্কের এই স্বর্ণকেশী তারকা। এর কারণে পয়েন্ট হারালেও আলিয়াকসান্দ্রা সাসনোভিচের বিপক্ষে ম্যাচটি ৬-৩, ৬-৪ গেমে জেতেন টুর্নামেন্টের ১০ নম্বর বাছাই ওজনিয়াকি। জয় পাওয়াতেই ম্যাচ শেষে বিষয়টি নিয়ে মজা করতে পারেন ওজনিয়াকি। টুইটারে তিনি লেখেন, চুল নিয়ে ঝামেলা! সম্ভবত আমার চুল কাটতে হবে। একটি ছবিও টুইটারে দেন তিনি।

আজ শপথ নিচ্ছেন এরদোয়ান

Kanaighat News on Thursday, August 28, 2014 | 11:36 PM


আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তুরস্কের সাবেক প্রধানমন্ত্রী রেসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান আজ বৃহস্পতিবার দেশটির নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন। এর মাধ্যমে তাঁর এক দশকের বেশি সময় ধরে ক্ষমতায় থাকার পথ আরও দীর্ঘ হবে। আজ রাজধানী আঙ্কারায় বাংলাদেশ সময় বিকেলের দিকে এরদোয়ান প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন। এরদোয়ানের শপথ গ্রহণের মাধ্যমে দেশটিতে নতুন যুগের সূচনা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, এরদোয়ান একটি নতুন সংবিধান প্রণয়নের উদ্যোগ নেবেন এবং দেশের উন্নয়নমূলক প্রকল্পগুলোর সঙ্গে আরও সংস্কার সাধন হবে। দেশটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আহমেত দাভুতোগলু এর মধ্যে নতুন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। শপথ অনুষ্ঠানে পূর্ব ইউরোপ, আফ্রিকা, মধ্য এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানেরা উপস্থিত থাকবেন। এরদোয়ান ২০০৩ সালে তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছিলেন। এক দশকের বেশি সময় ক্ষমতায় থাকার পর ১০ আগস্ট পাঁচ বছরের জন্য রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন।

জীবন্ত কবর দেয়ার পরও বেঁচে ফিরল মেয়েটি!


আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বেত ক্ষেতের ভেতর থেকে কেমন যেন একটা গোঙানির শব্দ ভেসে আসতে থাকে। তা শুনে কিছুটা আতংকিত হন এক ব্যক্তি। তবু সাহস করে সেদিকে পা বাড়ান তিনি। দেখেন মাটি নড়াচড়া করছে। কিছুক্ষণ পর এক জোড়া পা চোখে পড়ে। তারপর আর দেরি না করে মাটি খোঁড়া শুরু করেন তিনি। বেরিয়ে আসে অর্ধমৃত এক বালিকা। বয়স পাঁচের কাছাকাছি। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের সিতাপুর জেলার মানপুর গ্রামে। গ্রামের বাসিন্দা অলক কুমার এভাবে উদ্ধার করেছেন জীবন্ত কবর দেয়া তনু নামের এক মেয়েকে। তনু বাস করত সিমরি গাউরা গ্রামে। মায়ের সঙ্গে। কয়েকদিন আগে তাকে বাড়ি থেকে নিয়ে আসে এক দম্পতি। পুলিশ ধারণা করছে, তারাই তাকে শ্বাসরোধ করার পর মৃত ভেবে মাটিতে পুঁতে রাখে। সিতাপুর পুলিশ প্রধান রাজেশ কৃষ্ণ বলেন, ‘তনু আমাদের বলেছে, তাকে একজন পুরুষ এবং মহিলা তুলে আনে। পরে শ্বাসরোধ করার চেষ্টা করে। এর পর তার আর কিছু মনে নেই।’ এদিকে তনুর বাড়ির আশপাশের লোকজন জানিয়েছে, গত ২০ আগস্ট থেকে তনুর মা এবং তনুকে তারা বাড়িতে দেখেনি। ঘর তালাবন্ধ। এদিকে তনুর এক আত্মীয়া পুলিশকে বলেছেন, ‘রেনু(তনুর মা)আমাদের কাছে গত কয়েকমাস ধরে ছিল। প্রায় ১৫ দিন আগে সে কাউকে কিছু না বলে চলে যায়।’ ধারণা করা হচ্ছে, ২০ আগস্টের পর তনুর মাকেও অপহরণ করা হয়েছে। হাসপাতালে থেকে চিকিৎসা শেষে তনুকে তার দাদির কাছে রাখা হয়েছে। পুলিশ বলছে, তনুর মাকে পাওয়া গেলে এই হত্যাচেষ্টার মোটিভ জানা যাবে। সেই সঙ্গে দুষ্কৃতিদের পরিচয় পাওয়া যাবে।

তৃতীয় রাউন্ডে শারাপোভা ও হালেপ


স্পোর্টস রিপোর্টার,ঢাকা: ইউএস ওপেনের তৃতীয় রাউন্ডে উঠেছেন ফ্রেঞ্চ ওপেন চ্যাম্পিয়ন মারিয়া শারাপোভা। প্রথম সেট পিছিয়ে থেকেও জয় তুলে নেন রাশিয়ান এ টেনিস তারকা। রোমানিয়ান আলেকজান্দ্রার বিপক্ষে শারাপোভা তেমন সুবিধা করে উঠতে পারেন নি প্রথম সেটে। ৬-৪ গেমে হেরে পিছিয়ে পড়েন তিনি। তবে, পরের সেটে ঘুরে দাঁড়ান শারাপোভা। পিছিয়ে থেকে ৪-৬, ৬-৩, ৬-২ সেটে জয় নিয়ে তৃতীয় রাউন্ডে উঠেন শারাপোভা। অন্য দিকে জয় পেয়েছেন রোমানিয়ার টেনিস তারকা সিমোনা হালেপ। তিনি ৬-২, ৬-১ সেটে সরাসরি হারিয়ে দেন স্লোভাকিয়ার জানা কাপেলোভাকে। এ জয়ের মাধ্যমে হালেপও উঠেছেন তৃতীয় রাউন্ডে।

রবিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল


কানিউজ ডেস্ক : আগামী রবিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল আহবান করা হয়েছে । মাওলানা নূরুল ইসলাম ফারুকীকে হত্যার প্রতিবাদে ফারুকীর সংগঠন আহলে সুন্নত ওয়াল জামাত সকালে এই হরতালের ডাক দিলেও পরে তারা সেখান থেকে সরে আসেন। দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে আায়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নেতার দাবি করেন, রবিবারের হরতালের সঙ্গে আহতে সুন্নত জামাতের কোনো সম্পর্ক নেই। আহলে সুন্নত নেতারা বলেন, রবিবার হরতাল ডেকেছে ইসলামী ছাত্র সেনারা। এদিকে হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে আজ সকালে রাজধনীর বিভিন্ন সড়কে বিক্ষোভ মিছিল বের করে আহলে সুন্নত জামাত ও ইসলামী ছাত্র সেনার সদস্যরা। রাজধানীর মুরাদপুর এলাকা থেকে বিশাল একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। ইসলামী ছাত্র সেনাদের বিক্ষোভ মিছিল থেকেই রবিবার হরতালের এই ঘোষণা দেয়।ঐ মিছিলে আহলে সুন্নত নেতারাও উপস্থিত ছিলেন। পরে মিছিল নিয়ে তারা জাতীয় প্রেসক্লাবে গিয়ে জড়ো হয় ইসলামী ছাত্র সেনা ও আহলে সুন্নত নেতা-কর্মীরা। পরে দুপুরে প্রেসক্লাবে আহলে সুন্নতের নেতারা সংবাদ সম্মেলন ডেকে বিষয়টি পরিস্কার করেন এবং বলেন, হরতালের ঘোষণা তাদের নয় এটা ইসলামী ছাত্র সেনাদের এবং এই হরতালের সঙ্গে আদের কোনো সম্পরক নেই। হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে আজ বিকাল তিনটায় বন্দর নগরী চট্টগ্রামে একটি বিক্ষোভে ডাক দেয়া হয়েছে। সেখানে হাজার হাজার লোক প্রস্তুতি নেয় হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে হত্যাকান্ডের পর পরই রাজধানীর পূর্ রাজাবাজারে বিক্ষোভ মিছিল করে আহলে সুন্নতে সদস্যরা। এসময় তারা বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে। এই হত্যাকাণ্ডের জন্য আহতে সুন্নতের নেতারা জামায়াতা শিবিরকে দায়ী করেছে। তবে পুলিশ বলছে তদন্ত শেষ না হওয়া অবধি কিছুই বলা যাবে না। বুধবার রাতে এশার নামাজের পর আনুমানিক ৬-৭ জন যুবক মাওলানা ফারুকীকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। ঘটনার পর রাতেই শেরেবাংলা নগর থানায় তার ছেলে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।এর আগেও তাকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়।

ফারুকী খুন : ময়নাতদন্ত রিপোর্টেও পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড


স্টাফ রিপোর্টার : চ্যানেল আইয়ের ইসলামিক অনুষ্ঠান ‘হজ্ব কাফেলা’ ও ‘শান্তির পথে’ অনুষ্ঠানের উপস্থাপক মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীর মরদেহের ময়না তদন্ত ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রভাষক ডা. হোসেন এ ময়না তদন্ত করেন। ডা. হোসেন জানান, ফারুকীর শরীরের কিছু জায়গায় আঘাতের চিহ্ন থাকলেও গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। লাশের ময়না তদন্তের আগে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন শেরে বাংলানগর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনিরুজ্জামন। তিনি প্রতিবেদনে উল্লেখ করেন, কতিপয় লোক ফারুকীর বাসায় ডাকাতির উদ্দেশে তাকে জবাই করে টাকা-পয়সা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। নিহত ফারুকীর ছেলে ফয়সাল ফারুকী বলেন, তার বাবার গোসল পক্রিয়া সম্পন্ন করে কাফনের কাপড় পরিয়ে পূর্ব রাজাবাজারের বাসায় নিয়ে যাওয়া হবে। এরপর স্থানীয় মসজিদে মাগরিবের নামাজ শেষে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর শুক্রবার বাদ জুমা শেষে রাজধানী জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে ফয়সাল বলেন, পরিবারের অন্য সদস্যদের সিদ্ধান্ত অনুসারে দাফনের স্থান ঠিক করা হবে। বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ৯টার দিকে ১৭৪নম্বর পূর্ব রাজাবাজারের নিজ বাসায় মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।এরপর রাতে খুনের ঘটনায় রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থান‍ায় মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা নং ২৭।

প্রাচীন স্থাপত্যের অনন্য নিদর্শন


রেজাউল করিম,টাঙ্গাইল: যে সব ঐতিহ্যের কারণে টাঙ্গাইলকে সহজেই পরিচয় করিয়ে দেওয়া যায় এর মধ্যে আতিয়া জামে মসজিদ অন্যতম। আশির দশকে গভর্নর খোরশেদ আহম্মেদের সময়ে বাংলাদেশ সরকারের ১০ টাকার নোটের প্রচ্ছদে জাতীয় সম্পদ হিসেবে মসজিদটি স্থান পাওয়ায় আরো সহজেই এটি পরিচিতি লাভ করে। ফলে মসজিদটি শুধু ঐতিহ্যের নিদর্শনই নয়, এটি একটি দর্শনীয় প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। টাঙ্গাইল শহরের দক্ষিণ-পশ্চিমে ৭ কিলোমিটার দূরে লৌহজং নদীর তীরে ঐতিহাসিক জামে মসজিদটির অবস্থান। এর নির্মাণ প্রায় ৪০০ বছর পূর্বে হলেও এটি প্রাচীন স্থাপত্যের এক অনন্য শিল্পকর্মের নিদর্শন হিসেবে আজও সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করে। ইতিহাসখ্যাত বারো ভূঁইয়ার এক ভূঁইয়া ঈশা খাঁর পুত্র মুসা খানের শাসনামলে মসজিদটি নির্মিত হয়। ঈশা খাঁর রাজধানী ছিল সোনারগাঁও। তিনি ছিলেন সোনারগাঁও অঞ্চলের শাসক। বৃহত্তর ঢাকা ও ময়মনসিংহ তখন সোনারগাঁও অঞ্চলের অন্তর্ভুক্ত ছিল। শাসন কার্যপরিচালনার সুবিধার্থে ঈশা খাঁ টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার আতিয়ায় পরগনা সৃষ্টি করেন। সে সময় আতিয়া পরগনার শাসনভার ন্যস্ত হয় ঈশা খাঁর পুত্র মুসা খাঁর ওপর। প্রাচীন এই মসজিদটির আয়তন বাইরের দিকে ২০ দশমিক ৯ মিটার ও ১৬ দশমিক ১৩ মিটার ( ৬র্৯ ও ৪র্০)। মসজিদের প্রাচীর ২ দশমিক ৭২ মিটার (দশমিক ৫ ফুট) প্রশস্ত বা দৈর্ঘ্য ৪২ ফুট, প্রস্থ ৩২ ফুট এবং উচ্চতা ৪৪ ফুট । মসজিদের চার কোণায় রয়েছে ৪টি বিশাল আকারের অষ্টকোণাকৃতির স্তম্ভ বা মিনার। স্ফীত রেখার সাহায্যে অলঙ্কৃত মিনারগুলো ছাদের অনেক ওপরে উঠে গেছে। চূড়ায় রয়েছে কারুকার্যময় সুন্দর ছোট ছোট গম্বুজ। গম্বুজগুলোর গায়ে বিভিন্ন রকমের কারুকার্য মসজিদটির সৌন্দর্য অনেকগুণ বাড়িয়ে তুলেছে। মসজিদটির প্রধান কক্ষ ও বারান্দা দুই ভাগে বিভক্ত। মসজিদটির পূর্ব ও মাঝের দেয়ালে রয়েছে একটি করে দরজা। বারান্দাসহ উত্তর-দক্ষিণ দেয়ালে রয়েছে দুটি করে দরজা। ভেতরের পশ্চিম দেয়ালে আছে ৩টি সুন্দর মেহরাব। প্রধান কক্ষের প্রতিটি দেয়ালের সঙ্গে দুটি করে পাথরের তৈরি স্তম্ভ আছে। প্রধান কক্ষটি বর্গাকৃতির এবং ভেতরের দিকে এর প্রতিটি বাহুর দৈর্ঘ্য ৭ দশমিক ৫৭ মিটার। প্রধান কক্ষের ওপরে রয়েছে একটি বিশাল মনোমুগ্ধকর গম্বুজ। বারান্দার পূর্ব দেয়ালে রয়েছে তিনটি প্রবেশ পথ। মাঝখানের প্রবেশপথের ওপরের অংশের নিম্নভাগে একটি শিলালিপি রয়েছে। বর্তমানে যে শিলালিপিটি রয়েছে এর আগেও এখানে একটি শিলালিপি ছিল বলে ইতিহাসে উল্লেখ আছে। এই শিলালিপিটি ফার্সিতে লেখা। কোনো কারণে আদি শিলালিপিটি বিনষ্ট হলে পরবর্তী সময়ে মসজিদ মেরামতে বর্তমান শিলালিপিটি লাগানো হয়। বর্তমানে এ শিলালিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে আতিয়া মসজিদটি নির্মাণ হয় ১০১৮ হিজরিতে। জানা যায়, ১৬০৯ সালে বায়েজিদ খান পন্নীর পুত্র সাঈদ খান পন্নী মসজিদটি নির্মাণ করেন। টাঙ্গাইলের করটিয়ার বিখ্যাত পন্নী জমিদার বংশের আদি পুরুষ হলেন সাঈদ খান পন্নী। মসজিদের পশ্চিম দিকে অবস্থিত ফটকের ডানদিকে আরেকটি শিলালিপি আছে। ইংরেজিতে লেখা এই শিলালিপি পাঠে জানা যায়, ১৬০৯ সালে সাঈদ খান পন্নী এটি নির্মাণ করেন। এরপর ১৮৩৭ সালে মসজিদটি সংস্কার করেন দেলদুয়ার জমিদার বাড়ির সদস্য রওশন খাতুন চৌধুরানী। পরে দেলদুয়ারের জমিদার আবু আহম্মদ গজনবী ও করটিয়ার জমিদার ওয়াজেদ আলী খান পন্নীসহ কজন মিলে ১৯০৯ সালে পুনরায় মসজিদটি সংস্কার করেন। বর্তমানে জাতীয় জাদুঘর এটির তত্ত্বাবধায়ক। টাঙ্গাইলের আতিয়া জামিয়া মসজিদটি দেশের অন্যতম প্রাচীন ঐতিহ্যের নিদর্শন। তবে মসজিদের দেয়ালের ওপর যে চিত্রফলক ছিল তা বহুলাংশে নষ্ট হয়েছে। মসজিদটি কতটা কারুকার্যময় ছিল তা বোঝা যায় এর নির্মাণশৈলী ও চিত্রফলক দেখে। এটি বাংলাদেশের অন্যান্য মসজিদ থেকে একটু ভিন্ন। মসজিদের প্রায় লাগোয়া পশ্চিম দিকেই রয়েছে হিন্দু-বৌদ্ধ যুগের অতি প্রাচীন একটি পুকুর। এটি উত্তর-দক্ষিণে মাঝারি আকারের মসজিদের পূর্বদিকে রয়েছে উন্মুক্ত প্রাঙ্গণ। আতিয়া জামে মসজিদকে কেন্দ্র করে প্রায় দুই বর্গকিলোমিটার স্থানজুড়ে বহু প্রাচীন কীর্তি ধ্বংসাবশেষের চিহ্ন রয়েছে। মোগল আমলে এটি ছিল প্রশাসনিক কেন্দ্র। প্রাচীন হিন্দু-বৌদ্ধ-সুলতানী আমল ও ইংরেজ আমলের প্রথম দিকেও এ স্থানের প্রাধান্য ছিল। মসজিদের খতিব মাওলানা ফরিদ আহম্মেদ জানান, ২০০১ সালের পর থেকে কোনো চুনকাম করা হয়নি। অযতœ-অবহেলা আর সংস্কারের অভাবে দেশের অন্যতম প্রাচীন নিদর্শন ৪০০ বছরের পুরনো আটিয়া জামে মসজিদটি তার ঐতিহ্য হারাতে বসেছে। এখনো মসজিদটি দেখার জন্য প্রতিদিন শত শত দর্শনার্থী ভিড় করে। এলাকাবাসী ও দর্শনার্থীরা মসজিদটির সংস্কার ও পুনরায় যেকোনো টাকার নোটে প্রচ্ছদ করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানিয়েছেন।

আন্দোলনের মাধ্যমে বাকশালীদের বিদায় করতে হবে : এমকে আনোয়ার


সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম): একদলীয় বাকশালী স্বৈরচারী শেখ হাসিনার সরকারকে সীতাকুন্ডে মত সারাদেশে অপ্রতিরুদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে ক্ষমতার মসনদ থেকে বিদায় করতে হবে। বৃহস্পতিবার বিকালে সীতাকুন্ড উপজেলা বিএনপির বিশাল কর্মীসমাবেশে প্রধান অতিথি বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য জননেতা এম কে আনোয়ার উপরোক্ত কথা বলেন। সীতাকুন্ড জোড়ামতল বাদশা প্যালেস কমিউনিটি সেন্টারে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক তোফাজ্জল হোসেনের সভাপত্বি অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রিয় বিএনপির বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আকবর খন্দকার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রিয় বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক লায়ন আসলাম চৌধুরী এফসিএ। তিনি তার বক্তব্যে বলেন দেশনেত্রী সরকার পতনের আন্দোলনে ডাক দেওয়ার সাথে সাথে সীতাকুন্ডে জনতাকে সাথে নিয়ে অপ্রতিরুদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলব। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রিয় বিএনপির সদস্য মাহবুর রহমান শামীম ও প্রফেসর কামাল উদ্দিন চৌধুরী, মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান চট্টগ্রাম জেলা কমিটি সদস্য সচিব পৌর মেয়র কাজি আব্দুল¬াহ আল হাসান,কৃষক দল কেন্দ্রিয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ হালিম ,অধ্যাপক ইউনুচ চৌধুরী,হাটহাজারী বিএনপির আহ্বায়ক নুর মোহাম্মদ, সদস্য সচিব সোলেয়মানঞ্জু, মিরসরাই বিএনপির আহ্বায়ক নুরুল আমিন ,সদস্য সচিব সালাউদ্দিন চেয়ারম্যান, রাঙ্গুনিয়া বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক জসিম উদ্দিন চৌধুরী, জাসাস কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল পাশা (বাবুল), উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক জহুরুল আলম জহুরের পরিচালনায় কমী সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবদলের সভাপতি কাজি মোঃ সালাউদ্দিন,চট্টগ্রাম উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক সাবেক ছাত্রনেতা মোঃ মুরসালিন, এড. আবু তাহের,নুর উদ্দিন মো: জাহাঙ্গীর, পৌর কাউন্সিলর সামছুল আলম আযাদ, জামায়াত নেতা এডভোকেট হুসাইন মো: আশরাফ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমুন নাহার নেলী, এড. নাছিমা আক্তার,নারগিস আক্তার, কাউন্সিলর সেলিম, ইদ্রিচ মিয়া,সরোয়ার উদ্দিন সেলিম,ফজলুল করিম চৌধুরী, আওরঙ্গজেব মোস্তফা,জাহেদুল হাসান, গোলাম সরওয়ার চৌধুরী,সোলেয়মান রাজ, শাহীন পারভেজ, শিবির নেতা আর এ শাহীন প্রমুখ।

কেঁদে ফেললেন আমির খান!


কানিউজ ডেস্ক: কান্নায় একটা সময় কথা বন্ধ হয়ে গেল। কিছুক্ষণ পর জলের গ্লাসটা এগিয়ে দিতে চাইলেন। তারপর আবার বলতে শুরু করলেন। পিকে-এর নগ্নতা বিতর্কের মাঝে আবেগে ভাসা আমির খানকে পাওয়া গেল একেবারে অন্যভাবে। টিভি শো 'সত্যমেব জয়তে'-এর তৃতীয় সংস্করণের এক সংবাদ সম্মেলনে এসে আবেগে কেঁদেই ফেললেন আমির খান। ২১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে 'সত্যমেব জয়তে থ্রি'। এই ঘোষণার পরেই আমির এ শোকে নিয়ে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানতে থাকেন। বলিউডের 'মিস্টার পারফেক্টসেনিস্ট' বলেন, এই টিভি শোয়ে শুধু ৮/১০ কিংবা বড় জোড় ১২, ১৫ জন মানুষের কথাই দেখানো সম্ভব। কিন্তু শোয়ের রিসার্চের সময় শত শত লোকের এমন সব ঘটনার কথা শুনি, যা টিভিতে দেখানো সম্ভব নয়। উদাহরণ দিতে গিয়ে বলেন, সত্যমেব জয়তের টিমের সঙ্গে তিনি দেখা করতে যান মৃত্যুর অপেক্ষায় বসে থাকা হাসপাতালে ভর্তি এক নির্যাতিতার কাছে। সেই মহিলাকে ধর্ষণ করার পর গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয়া হয়। অগ্নিদগ্ধ সেই মহিলার সঙ্গে হাসপাতালে কথা বলেন আমির। আমির বলেন, আমরা এই ভিডিওটা দেখাতে পারব না। বলতে বলতে কেঁদে ফেললেন আমির খান। কিছুক্ষণ চুপ থাকার পর চোখের জল মুছে নেন। এরপর বলেন, টিআরপির জন্য কুম্ভীরাশ্রু নয়, এসব ঘটনার কথা শুনলেই তিনি নিজের আবেগ সামলে রাখতে পারেন না। সত্যমেব জয়ত-সিশন থ্রিতে আমিরের সঙ্গে বিশেষ পর্ব দেখা যাবে কঙ্গনা রানওয়াত, পরিণতি চোপড়া, দীপিকা পাড়ুকোনকে।

৩০ আগস্টের কর্মসূচি প্রত্যাহারের আহ্বান কামরুলের


স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের ৩০ আগস্টে ঘোষিত মানববন্ধন কর্মসূচি প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার দুপুরে গুলিস্তান বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের শোক দিবসের আলোচনা সভা সফল করতে এক বর্ধিত সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। কামরুল বলেন, ৩০ আগস্ট আ্ওয়ামী লীগের পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি। হঠাৎ করে কর্মসূচি দিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করবেন না। অযথা হানাহানির চেষ্টা করবেন না। আপনাদের প্রতি বিনীত আবেদন, আপনারা ওইদিনের কর্মসূচি প্রত্যাহার করুন। তিনি বলেন, আপনাদের যদি সংঘাত, সন্ত্রাস ও ঝগড়ার ইচ্ছা না থাকে তবে ওইদিনের কর্মসূচি প্রত্যাহার করুন। ওইদিন ঢাকা মহানগরের প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে মিছিল আসবে। সেখানে কোনো ধরণের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে সমুচিত জাবাব দেওয়া হবে। তিনি বলেন, আমরা জিয়া পরিবারকে হেয় প্রতিপন্ন করছি না, করতে চাই না। তারা আমাদের নেতা-নেত্রীদের নিয়ে মিথ্যাচার করছে। এতে কোনো লাভ হবে না। পারও পাওয়া যাবে না। বর্ধিত সভায় ৩০ আগস্টের আলোচনা সভার শৃঙ্খলা রক্ষার্থে দিকনির্দেশনা দেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন সহ-সভাপতি ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, মুকুল চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী মো: সেলিম এমপি, আওলাদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

মাঝারি থেকে ভারী বষ্টিপাতের সম্ভাবনা


কানিউজ ডেস্ক : দেশের বিভিন্ন স্থানে মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারীবর্ষণ হতে পারে। আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা, রংপুর, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ একথা বলা হয়। আগামীকাল শুক্রবার ঢাকায় সূর্যোদয় ভোর ৫টা ৩৯ মিনিটে। আগামী ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, এ সময়ে আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে। আবহাওয়া দৃশ্যপটের সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়, অন্ধ্র-উড়িষ্যা উপকূলের অদূরে পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপটি অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, উড়িষ্যা, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল এবং গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

রাতে ছাত্রদলের সঙ্গে খালেদার বৈঠক


কানিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সঙ্গে বৈঠক করবেন বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার রাত ৭ টায় চেয়ারপার্সনের গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক নাজমুল হাসান ঢাকাটাইমসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে ২০ ও ২৪ আগস্ট ছাত্রদলের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন বেগম খালেদা জিয়া। গত ২০ আগস্ট বৈঠকে বেগম জিয়া ছাত্রদলের ৪০ জন নেতাকর্মীদের বক্তব্যে শুনেছিলেন এবং ২৪ আগস্ট সভাপতি ও সাধারণ সম্পাকের বক্তব্যে শোনেন। আজকের বৈঠকে খালেদা জিয়াও বক্তব্যে রাখেন। আগের বৈঠকগুলোতে ছাত্রদলের নতুন কমিটির বিষয়ে কোন ধরনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়নি। তাই আবারও ছাত্রদলের সাথে বেগম খালেদা জিয়া বৈঠকে বসছেন বলে জানা গেছে। আজকের বৈঠকে মূলত ছাত্রদলের নতুন কমিটি কবে নাগাদ দেয়া হবে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলেও জানা গেছে।

খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে মনিটরিং জোরদার করুন: প্রধানমন্ত্রী


স্টাফ রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে অফিস পরিদর্শন করেছেন। সকাল সাড়ে ১০টায় প্রধানমন্ত্রী বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে প্রবেশ করলে মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য তোফায়েল আহমেদ তাকে স্বাগত জানান। গত বেশ কিছু দিন ধরেই প্রধানমন্ত্রী ঘুরে ঘুরে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে যাচ্ছেন এবং কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখছেন। এরই অংশ হিসাবে প্রধানমন্ত্রী আজ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে যান। প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে মনিটরিং বাড়তে নির্দেশ দিয়েছেন। এ সময় মন্ত্রী ছাড়াও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন উপস্থিত ছিলেন।

মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণের চিকিৎসা অপারেশন ছাড়াই সম্পন্ন


কানিউজ ডেস্ক : দেশে প্রথমবারের মতো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) নিউরো মেডিসিন বিশেষজ্ঞরা অপারেশন ছাড়াই ৬০ বছরের এক বয়স্ক মহিলা রোগির মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণের (সাব-এরাকনয়েড হেমোরেজ) চিকিৎসা অপারেশন ছাড়াই কয়েলিং পদ্ধতিতে সফলভাবে সম্পন্ন করেছেন। বিএসএমএমইউ সূত্র জানায়, সাব এরাকনয়েড হেমোরেজ হলে রোগির মস্তিষ্কের ব্রেইনের রক্তনালী ফেটে যায় এবং রোগিকে দ্রুত যথাযথ চিকিৎসা না দেয়া হলে বেশিরভাগ রোগিই মারা যায়। এ ধরণের রোগে আক্রান্ত যেসব রোগি অপারেশন করতে আগ্রহী নয় বা ভয় পায় তাঁদের জন্য কয়েলিং চিকিৎসা পদ্ধতি নিউরোলজিক্যাল চিকিৎসা বিজ্ঞানের জগতে আশার সঞ্চার করেছে। মঙ্গলবার দেশে প্রথমবারের মতো কোনো বিদেশি চিকিৎসক বা বিদেশি চিকিৎসকদের সহযোগিতা ছাড়াই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন জন স্ট্রোক নিউরোলজিস্ট ডা. মোঃ শহীদুল্লাহ সবুজ, ডা. আনিস আহমেদ ও ডা. সুভাষ কান্তি দে দুঘণ্টার প্রচেষ্টায় ৬০ বছরের এক বয়স্ক মহিলা রোগির মস্তিষ্কে অপারেশন ছাড়াই সফলভাবে কয়েলিং পদ্ধতিতে চিকিৎসা করতে সক্ষম হন। মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণজনিত সমস্যায় আক্রান্ত ওই মহিলা রোগিরর কয়েলিং করার পর এখন সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন।
 
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: মো:মহিউদ্দিন,সম্পাদক : মাহবুবুর রশিদ,নির্বাহী সম্পাদক : নিজাম উদ্দিন। সম্পাদকীয় যোগাযোগ : শাপলা পয়েন্ট,কানাইঘাট পশ্চিম বাজার,কানাইঘাট,সিলেট।+৮৮ ০১৭২৭৬৬৭৭২০,+৮৮ ০১৯১২৭৬৪৭১৬ ই-মেইল :mahbuburrashid68@yahoo.com: সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত কানাইঘাট নিউজ ২০১৩