ঈদ মোবারক আসসালাম

Kanaighat News on Tuesday, August 30, 2011 | 2:30 AM

















কানাইঘাট নিউজ টুয়েন্টিফোর ডট টিকের

পক্ষ থেকে সবাইকে ঈদ শুভেচ্ছা















Kanaighat News on Sunday, August 28, 2011 | 2:20 PM

শেষ মুহূর্তের কেনাকাটায়

জমে উঠেছে কানাইঘাটের ঈদ বাজার

মাহবুবুর রশিদ:







ঈদুল ফিতর আসন্ন। আর মাত্র ক,দিন বাকি। ঈদকে সামনে রেখে কানাইঘাটে ঈদের কেনাকাটা বেশ জমে উঠেছে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারো যেন ঈদ উদযাপনের প্রস্তুতিতে কারো কোন কমতি নেই। প্রত্যেকেই নিজ নিজ সামর্থ্যের মধ্যে থেকে সবচেয়ে বড় এ ধর্মীয় উৎসব পালনের ল্যে ঈদের কেনাকাটায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছে । ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়ে মার্কেট ও বিপনিবিতানগুলো সরগরম হয়ে উঠছে। ১৫ রোজার পর থেকেই এ ভিড় বাড়তে শুরু করেছে। বিশেষ করে সকাল থেকে দুপুর এবং সন্ধার পর দোকানগুলোতে মাত্রাতিরিক্ত ভিড় ল্য করা যাচ্ছে। ক্রমেই ভিড়ের মাত্রা বাড়ছে। ক্রেতাদের সামাল দিতে ব্যবসায়ীরা ও এখন রীতিমত হিমশিম খাচ্ছেন। ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে কাপড়ের দোকানগুলো সাজানো হয়েছে নবরূপে বাহারি সাজে। তবে গতবারের চেয়ে এবারের ঈদে বাজারে দাম অনেক চড়া, সাধারণ ও মধ্যবিত্ত পরিবারের অনেকটাই নাগালের বাইরে হওয়ায় এসব ক্রেতা তাদের সবচেয়ে পছন্দের জিনিসটি কিনতে পারছেন না। কানাইঘাটের বিভিন্ন হাট বাজার ঘুরে দেখা গেছে নারী-শিশুদের পোশাকের দোকানগুলোতে বেশী ভিড়। পুরুষদের পোশাকের কেনাকাটা তেমন এখনো সেইভাবে শুরু হয়নি। বিভিন্ন্ মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে পুরুষদের চেয়ে নারীদের উপচে পড়া ভিড় বেশী। দোকানগুলোতে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভীড় ল্য করা যাচ্ছে। বাজারের আল-মদিনা কথ ষ্টোর,ঢাকা শাড়ী ঘর,আল-হেরা কথ ষ্টোর,সাম্মী এন্ড সুমি ড্রেস হাউস,গ্রামীন বাজার,আবুল সু ষ্টোর,তছির সু ষ্টোর, এন,টি,বস্ত্র বিতান সহ আরো অনেক প্রতিষ্ঠান ঘুরে দেখা গেছে এসব প্রতিষ্ঠান ঈদ উপল েসাজানো হয়েছে বাহারি পোশাক আর নিত্য নতুন ডিজাইনের জুতোয়। এছাড়া ও কসমেটিক্র,চুড়ি,জুয়েলারি ও জুতার দোকানে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড় লেগেই আছে । থান কাপড়ের দোকান গুলোতে ও ভীড় কম নয় । শুরু থেকেই থান কাপড়ের দোকান গুলোতে ভীড় থাকায় টেইলাররাও এখন মহাব্যাস্ত । এদিকে ঈদ উপল েঅভিজাত মার্কেট গুলোর পাশাপাশি ফুটপাতে ও ক্রেতাদের আনাগোনা বেশ বেড়েছে । হকাররা নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য সব ধরনের পোশাকের কালেকশন রেখেছেন । যার জন্য নিম্ন আয়ের লোকেরা কম মূল্যে নিজেদের স্বাচ্ছন্দমত কেনাকাটা করতে পারছেন । উপজেলা সদরের বাজার ছাড়াও গাছবাড়ী বাজার,বীরদল বাজার,সুরইঘাট বাজার,মুলাগুল বাজার,মুকিগজ্ঞ,বড়দেশ বাজারগুলোতেও ঈদ মার্কেটিং জমে উঠেছে । এন,টি,বস্ত্র,বিতানের প্রোপ্রাইটর বিলাল আহমদ জানান,বেচাকেনা ভালই চলছে । গ্রামীণ বাজারের প্রোপ্রাইটর আব জ্বর জানান,আমাদের এখানে নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য ও কেনাকাটার বিরাট সুযোগ রয়েছে,আমরা অতি স্বল্প মূল্যে পন্য বিক্রি করে থাকি । সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দোকান গুলো খোলা থাকছে । যতই ঈদ ঘনিয়ে আসছে তথই কেনাকাটা বেড়েই চলছে ।

Kanaighat News on Wednesday, August 24, 2011 | 10:29 PM

ফিতরা ৫৩ টাকা



এবারে ফিতরা সর্বনিম্ন ৫৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। সর্বোচ্চ নির্ধারণ করা হয়েছে এক হাজার ৩২০ টাকা। বুধবার বাদ জোহর ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে এ বছরের সাদকাতুল ফিতরা নির্ধারণী সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের খতিব প্রফেসর মাওলানা মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন। সভায় সিদ্ধান্ত হয় গম, আটা, খেজুর, কিসমিস, পনির ও যব ইত্যাদি খাদ্যদ্রব্যের যে কোনো একটি দিয়ে ফিতরা প্রদান করা যায়। সভায় সিদ্ধান্ত হয় গম বা আটা দিয়ে ফিতরা আদায় করলে এক কেজি ৬৫০ গ্রাম বা বাজার মূল্য ৫৩ টাকা দিতে হবে। খেজুর দিয়ে আদায় করলে ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম বা বাজার মূল্য ৬৬০ টাকা দিতে হবে। কিসমিস দিয়ে আদায় করলে ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম বা বাজার মূল্য এক হাজার ৩২০ টাকা দিতে হবে। এছাড়া যব দিয়ে আদায় করলে ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য ২১৫ টাকা আদায় করতে হবে। সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের মহাসচিব মাওলানা আব্দুল জব্বার, সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা ঢাকার প্রিন্সিপাল ড. একেএম ইয়াকুব হোসাইন, দৈনিক ইনকিলাবের নির্বাহী সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমিন খান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের দ্বীনি দাওয়াত ও সংস্কৃতি বিভাগের পরিচালক মাওলানা হাবিবুল মতিন সরকার।

থানায় মামলা কানাইঘাট পৌরশহরে মোবাইলের দোকান চুরি

সমপ্রতি কানাইঘাট পৌরশহরে অস্বাভাবিক হারে চুরি বৃদ্ধি পাওয়ায় ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। গত রবিবার(২১ আগষ্ট) গভীর রাতে পৌর মেয়র লুৎফুর রহমানের মালিকানাধীন কানাইঘাট উত্তর বাজারে একটি মার্কেটের মোবাইল ফোনের দোকানে এক দুঃসাহসিক চুরি সংগঠিত হয়। এজাহারে জানা যায়, কানাইঘাট বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফারুক আহমদের মাহাদি টেলিকম নামক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পিছনের পাঁকা দেয়াল ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে প্রায় চার ল টাকার বিভিন্ন কোম্পানীর মোবাইল সেট, মোবাইলের ব্যাটারী চুরি করে নিয়ে যায়। পরদিন সকাল সাড়ে ১০টায় দোকানের ম্যানেজার মোঃ কিবরিয়া দোকান খুলে প্রবেশ করে মোবাইল সেট ও মালামাল দেখতে না পেয়ে বিষয়টি প্রথমে কানাইঘাট বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দকে অবহিত করেন। পরে খবর পেয়ে বেলা ১টায় পৌর মেয়র লুৎফুর রহমানের উপস্থিতিতে কানাইঘাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ঘটনায় দোকানের ম্যানেজার মোঃ কিবরিয়া বাদী হয়ে গত সোমবার রাতে কানাইঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- (৩০) ২২/০৮/০১১ইং।

Kanaighat News on Thursday, August 18, 2011 | 12:43 PM

কানাইঘাট পৌর শহরে প্রধান প্রধান রাস্থাগুলোর বেহাল দশা: কর্তৃপক্ষ উদাসীন



কানাইঘাট পৌরশহরের রাস্থাগুলোর বেহালদশা মানব জীবন যেন প্রতিনিয়ত মরণ ফাঁদে মুখোমুখি হতে হয়। জনসাধারণকে প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলা ফেরা করতে হয়। বিশেষ করে অপারেশনের রোগীদের জন্য মরণ ফাঁদ। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে কানাইঘাট বাজার, সি.এনজি ষ্টেশন থেকে কানাইঘাট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, কানাইঘাট দনি বাজার থেকে শ্রীপুর টুক পর্যন্ত রাস্থা, কানাইঘাট বাজার থেকে উপজেলা পরিষদ হয়ে পৌরসভার শেষ সীমানা পর্যন্ত, কানাইঘাট বাজারের উত্তর-দণি প্রান্থ, শহীদ জিয়াউর রহমান রাস্থার একাংশ, কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজ রাস্থা, কানাইঘাট দুর্লভপুর রাস্তা, কানাইঘাট বাজার থেকে ডালাইচরমুখী রাস্থা, খেয়াঘাট বাসস্ট্যান্ড থেকে রামপুরগামী ও বায়মপুরগামী দুটি রাস্থা বিশেষ করে এ রাস্থা গুলো ভেঙ্গে চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। যানবাহন চলাচলে অনেকটা অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। একটু বৃষ্টি হলেই গর্তে পানি জমে যায়। সাধারন মানুষের পায়ে হেটেঁ চলা-চল বন্ধ হয়ে যায়। বড় গর্ত গুলোতে সি.এনজি, মোটর সাইকেল, বাই সাইকেল, রিক্সা, ভ্যান গাড়ি আটকে গিয়ে অনেক সময় উল্টে দুর্ঘটনার কবলে পড়তে হয় যাত্রীদের। এলাকাবাসীর প থেকে বার বার পৌর কতৃপরে নিকট আবেদন করলেও কোন ফল হয়নি। দীর্ঘ দিন থেকে পৌরবাসীকে রাস্থা নির্মাণের আশার বাণী শুনানো হচ্ছে। বিশেষ করে গত জানুয়ারী মাসে নির্বাচন পূর্ববর্তী সভা-সমাবেশে জোরালো ভাবে সরকার দলের কিছু নেতা বলেছিলেন কানাইঘাট পৌরসভা একটি মডেল পৌরসভায় রূপান্তরিত করা হবে, আর তা করতে হলে ভোট দিতে হবে বর্তমান সরকার দলীয় প্রার্থীকে। ভোটাররা তাতে কোন কালপেন না করে ঠিকই সরকারদলীয় প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি লুৎফুর রহমান এর জাহাজ প্রতীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছিলেন। কিন্তু আজ অনেকের প্রশ্ন কি লাভ হল? সরকারী দলীয় মেয়র হয়েও আমাদের আশা-আকাঙ্খার কোন প্রতিফলন ঘটছে না। এব্যাপারে পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি লুৎফুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমরা ইতিমধ্যে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রকল্প হাতে নিয়েছি এবং সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপরে সাথে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে। যাতে করে যত দ্রুত সম্ভব কানাইঘাট পৌরসভার সকল সমস্যা সমাধান করব। পৌরবাসীর আশা পৌর মেয়রসহ বর্তমান ডিজিটাল বাংলাদেশের উর্ধ্বতন মহলসহ সকলের কাছে যতদ্রুত সম্ভব কানাইঘাট পৌরসভার সমস্যাগুলো সমাধান করতে সচেষ্ট হবেন।



কানাইঘাটে অবৈধভাবে চাঁদা আদায়কালে ট্রাক শ্রমিক আটক



কানাইঘাট পৌরসভার পল্লীবিদ্যুৎ অফিসের সামনে বাঁশ ফেলে মালবাহী ট্রাক থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগে কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ শফিকুর রহমান খান গত রবিবার এক ট্রাক শ্রমিককে আটক করেন। পরে ঐ দিন রাতে থানায় আটক ট্রাক শ্রমিক এবাদুর রহমানের কাছ থেকে মোছলেকা রেখে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। জানা যায়, কানাইঘাট ট্রাক চালক শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ জেলা ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের নামে মালবাহী সবধরনের ট্রাক থেকে নির্দিষ্ট হারে পৌরসভার পল্ল¬ীবিদ্যুৎ অফিসের সামনে বাঁশ ফেলে চাঁদা আদায় করে আসছিল। খবর পেয়ে গত রবিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে থানার ওসি শফিকুর রহমান খান একদল ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে চাঁদা আদায়কারী ট্রাক শ্রমিক এবাদুর রহমানকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। পরে রাতে কানাইঘাট পৌরসভার কাউন্সিলার ফখরুদ্দিন শামীম ও রহিম উদ্দিন ভরসা উপস্থিতিতে কানাইঘাট ট্রাক চালক শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন ও আটককৃত ট্রাক শ্রমিক এবাদুর রহমান রাস্তায় বাঁশ ফেলে চাঁদা আদায় করবেন না মর্মে থানায় মোছলেকা দিয়ে ছাড়া পান। ট্রাক চালক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন জানিয়েছেন, তারা বৈধভাবে সংগঠনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে শুধুমাত্র মালবাহি ট্রাক থেকে শ্রমিক সংগঠনের তহবিলের জন্য নির্দিষ্ট হারে চাঁদা আদায় করে থাকেন। বাঁশ ফেলে পৌর কর্তৃপক্ষ সবধরণের মালবাহী যানবাহন থেকে টোল আদায় করে থাকে বলে তিনি জানিয়েছেন। এব্যাপারে থানার ওসি শফিকুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের নামে বাঁশ ফেলে পল্লীবিদ্যুৎ অফিসের সামনে থেকে মালবাহী ট্রাক থেকে চাঁদা আদায়ের ঘটনায় ট্রাক শ্রমিক এবাদুর রহমানকে আটক করা হয়। পরে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন অবৈধভাবে চাঁদা আদায় করবেন না মর্মে মুছলেকা দিলে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। এদিক পৌর মেয়র লুৎফুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, পল্লীবিদ্যুৎ অফিসের সামনে থেকে মালবাহী সবধরণের যানবাহন থেকে পৌরসভার নির্দিষ্ট লোকদিয়ে টোল আদায় করা হচ্ছে। কিন্তু কানাইঘাট ট্রাক চালক শ্রমিক ইউনিয়নের নামে একই জায়গা থেকে চাঁদা আদায়ের ঘটনায় সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।

, জিন্দাবাজার সিলেট মোবাইল : +৮৮ ০১৭১
কানাইঘাট মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়



উপজেলার শ্রেষ্ঠ এস.এম.সি কমিটি নির্বাচিত



কানাইঘাট উপজেলার ৯২টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে কানাইঘাট মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এস.এম.সি কমিটিকে উপজেলার শ্রেষ্ঠ এস.এম.সি কমিটি হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে। নিররতা দূরীকরণের ল্যে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় এলাকার স্কুলগামী সকল শিশুদের বিদ্যালয়ে ভর্তি ও তাদের উপস্থিতি নিশ্চিত করণ, শিার্থীদের ঝরে পড়া রোধ করে প্রথম শ্রেণী থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত সকল শিার্থীকে বিদ্যালয়ে ধরে রাখা, পরীায় শতভাগ সফলতা অর্জন, শিক ও অভিভাবক সম্পর্ক জোরদার করাসহ বিদ্যালয়ে শিার সামগ্রিক মানন্নোয়নে অবদান রাখায় উক্ত কমিটিকে উপজেলার শ্রেষ্ঠ এস.এম.সি কমিটি হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে। এছাড়া, জুলাই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়কে শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয়, সিতাংশু রঞ্জন দাস ও শামীম আরা বেগমকে শ্রেষ্ঠ শিক ও শিকিা এবং রেজিষ্টার্ড বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে মাহবুবুর রহমান কে উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক নির্বাচিত করা হয়েছে।
ইফতার মাহফিল-------------



কানাইঘাট সড়কের বাজার উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্র সংসদ :


কানাইঘাট সড়কের বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের উদ্যোগে গত মঙ্গলবার বিকেল ৪টার সময় স্কুল অডিটোরিয়াম হলে মাহে রমজানের তাৎপর্য তুলে ধরে এক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ফয়জুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক ওদুদ হাসান মনিরের পরিচালনায় উক্ত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, স্কুলের প্রধান শিক মোঃ জমির উদ্দিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সোনালী ক্রীড়া চক্রের সভাপতি যুবনেতা আলী হোসেন কাজল, সমাজসেবী মনিরুল ইসলাম মামুন, ছাত্র সংসদ নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ছাত্রসংসদের সভাপতি মাহমুদ হোসেন রানা, আব্দুশ শহিদ, আবুল কালাম, রুহেল, শিবি্বর, আছাব, জুয়েল, হামিদ, তপন, লিটন প্রমুখ। ইফতার মাহফিলে স্কুলের ছাত্র-শিক ম্যানেজিং কমিটির নেতৃবৃন্দ ও গনমান্য লোকজন শরীক হন।




কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজ ছাত্রদল:


কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজ একাদশ শ্রেণীর ছাত্রদলের উদ্যোগে মাহে রমজান উপল্যে এক ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভা গত বুধবার ১৬ রমজান বিকেল ৪টায় সংগঠনের কানাইঘাট বাজারস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। কলেজ ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং সহসাহিত্য প্রকাশনা সম্পাদক দেলোওয়ার হোসেনের পরিচালনায় উক্ত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পৌর ছাত্রদলের সভাপতি মোঃ রুহুল আমীন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পৌর ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক, মোঃ আলমগীর হোসাইন। কলেজ ছাত্রদল নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জাহাঙ্গীর আলম, হুমায়ুন রশিদ চৌঃ, তাজুল ইসলাম, মোস্তফা, আজমল, আলম, আব্দুল কাদির, আব্দুল কুদ্দুস, পারভেজ, মুন্না, রাহাত, জাহাঙ্গীর, কামরান, আমীন, তান্না, ইমন, তায়েফ, দুলাল, ইকবাল, দেলোয়ার, আফজল, জামিল, জুবায়ের, আখতার, সফি, সাদেক, আকরাম, আখতার, ইমরান, ইমন, বিজয়, অর্পন, মীরা, বিদু, আমিন, আবুল, মামুন, সালেহ, জাহান, তারেখ, অলক প্রমুখ।

Kanaighat News on Wednesday, August 17, 2011 | 1:11 PM

কানাইঘাট লেখক ফোরামের

নতুন কমিটি গঠন



কানাইঘাট উপজেলার লেখক লেখিকাদের নিয়ে অরাজনৈতিক সংগঠন ‘‘কানাইঘাট লেখক ফোরাম(কালেফো)’’ এর ২০১১-১৩ মেয়াদের নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে।সাংবাদিক মাহবুবুর রশিদ-কে সভাপতি ও সাংবাদিক নিজাম উদ্দিনকে সাধারন সম্পাদক করে ১৮সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন সহ-সভাপতি জামাল আহমদ, কাওছার আহমদ, সহ-সাধারন সম্পাদক তাওহীদুল ইসলাম, যুগ্নসাধারন সম্পাদক রুমান আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল ইসলাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুব আলম বাবুল, অর্থসম্পাদক ফয়সল আহমদ চৌধূরী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবু সালেহ মোঃ মাছুম, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাজমুল ইসলাম, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক জাহিদ হাসান, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক জাবেদুল ইসলাম, কার্যনির্বাহী সদস্য মাছুমা বেগম, আহসান হাবিব, আব্দুল্লাহ আল নোমান, সাদিক হোসেন, হাবিব উল্লাহ। উল্লেখ্য ২০০৯ সালের ১২ই ফেব্রুয়ারি‘‘কানাইঘাট লেখক ফোরাম(কালেফো)’’যাত্রা শুরু করে।

Kanaighat News on Monday, August 15, 2011 | 10:36 PM

কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজে



জাতীয় শোক দিবস পালিত

অশ্রুসিক্ত পরিবেশে কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। সকাল সাড়ে ১১টায় কলেজ অডিটোরিয়ামে এ উপল্যে ক্বোরআন খানি, আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্য শামসুল আলমের সভাপতিত্বে ও স্টাফ কাউন্সিলের সচিব ফরিদ আহমদের পরিচালনায় আলোচনায় অংশ নেন অধ্যাপক সিরাজুল হক, দেলোয়ার হোসেইন, মঈনুল হক চৌঃ, বশির উদ্দিন আহমদ ও ক্রীড়া শিক ওলিউর রহমান। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, প্রভাষক শফিউল আজম চৌধুরী, দিপু কুমার গোপ, তাজ উদ্দিন ও নুরুল আলম প্রমুখ। আলোচনা শেষে হাফিজ মোঃ জাকারিয়ার পরিচালনায় ক্বোরআন খানি ও মিলাদ মাহফিলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনা করা হয়।
কানাইঘাট বিএনপিতে ঐক্যের উদ্যোগ

কাওছার আহমদ: শিগগিরই কানাইঘাট উপজেলা বিএনপির বিবাদ মিটছে_ এমন খবরে নেতাকর্মীদের মধ্যে চাঙ্গা ভাব ফিরে এসেছে। তবে পদ-পদবী হারানোর আশঙ্কায় অনেকে চিন্তিত। দলীয় সূত্রে জানা যায়, আড়াই বছর আগে উপজেলা বিএনপির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ওই সম্মেলনে কমিটি গঠন নিয়ে বিএনপি নেতা প্রয়াত এম সাইফুর রহমান ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক এম ইলিয়াস আলীর সমর্থকদের মধ্যে হট্টগোল বাধে। এক পর্যায়ে ইলিয়াস আলী উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মামুনুর রশিদ চাকসুকে সভাপতি ঘোষণা করে সম্মেলনস্থল ত্যাগ করেন। তাৎক্ষণিকভাবে সাইফুর অনুসারী ও সাবেক সাংসদ আবদুল কাহির চৌধুরী, উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরী ও যুবদলের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক মামুন রশিদ চেয়ারম্যান উপস্থিত কাউন্সিলরদের ভোটে বিজয়ী সাধারণ সম্পাদক হাজি এমএ মতিন ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কাউন্সিলর শরিফুল হককে নির্বাচিত করে কমিটি ঘোষণা করেন। এ কমিটি গঠনের এক সপ্তাহের মধ্যে ইলিয়াস অনুসারীরা চ্যালেঞ্জ করে প্রবীণ বিএনপি নেতা এমএ লতিফকে সভাপতি ও অধ্যাপক হাবিব আহমদকে সাধারণ সম্পাদক করে পাল্টা আরেকটি কমিটি গঠন করেন। জেলা আহ্বায়ক ইলিয়াস আলী এ কমিটি অনুমোদন দেন। এরপর থেকে দুটি কমিটির ব্যানারে কানাইঘাটে বিএনপির সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এ ব্যাপারে উপজেলা বিএনপির নির্বাচিত সভাপতি মামুনুর রশিদ বলেন, দলের বৃহত্তর স্বার্থে দ্বিধা-দ্বন্দ্ব ভুলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা উচিত। অন্যদিকে উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরী বলেন, 'বিএনপির মতো বড় দলে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকতে পারে। তবে দলের অস্তিত্বের প্রশ্নে আমরা ঐক্যবদ্ধ।'

Kanaighat News on Sunday, August 14, 2011 | 5:37 PM

কানাইঘাটে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু



কানাইঘাট পৌরসভার নয়াতালুক গ্রামে পুকুরে ডুবে সাজিয়া বেগম (৩) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সে ওই গ্রামের সফর আলীর মেয়ে। সে সবার অজান্তে গত রবিবার সকাল সাড়ে ৭টায় পুকুরে পড়ে যায়। পরে তাকে দ্রুত উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন।
কানাইঘাটে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পাঁচটি

গরু সহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ভষ্মিভূত



সিলেটের সীমান্তবর্তী কানাইঘাটে উপজেলায় এক ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পাঁচটি গরু আগুনে পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েছে। আহত হয়েছেন গরু মালিক সহ কমপক্ষে ১০ জন।জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার ভোর রাত ৩ টায় কানাইঘাট থানার লামাঝিঙ্গাবাড়ী গ্রামের মৃত কৃষক কুমোদ চন্দ্র নাথের ছেলে রণ চন্দ্র নাথের বাড়ীতে এই অগ্নিকান্ড সংঘটিত হয়। আগুনের লেলিহান শিখায় বসতঘরের মালপত্র সহ পাঁচটি গরু পুড়ে ছাই হয়। আগুনের শিখায় গুরুতর আহত হয়ে ওসমানী হাসপাতালে আশংকাজনক অবস'ায় ভর্তি হয়েছেন গরুর মালিক রণ চন্দ্র নাথ (৩৮)।আগুন নেভাতে এসে গুরুতর আহত হয়েছেন একই গ্রামের দিলিপ চন্দ্র নাথ, এনামুল হক, গৌরা চন্দ্র নাথ, বাবু চন্দ্র নাথ, সুবিদ চন্দ্র নাথ, সত্য চন্দ্র নাথ, হাজী এবাদুর রহমান, নিজাম উদ্দিন, খালেদ ও মাশুক। এলাকাবাসী ধারণা করছেন বিদ্যুতের বিল মিটার থেকেই এই অগ্নিকান্ডের ঘটতে পারে। অগ্নিকান্ডে গরু সহ কয়েক লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়েছে বলে এলাকাবাসী ধারণা করছেন। ক্ষতিগ্রস' পরিবারটি এলাকাবাসীর কাছে মানবিক সহযোগিতা কামনা করছেন।

Kanaighat News on Saturday, August 13, 2011 | 11:56 PM

কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের মাসিক সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের মাসিক সমন্বয় কমিটির সভা সম্প্রত্তি বিকেল ৩টার সময় উপজেলা সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চোধূরীরর সভাপতিত্বে বিভিন্ন সরকারী দপ্তরের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে সভার শুরুতে উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক চোধূরী সভায় অংশগ্রহনকারী সদস্য নয় ইউনিয়নের নির্বাচিত চেয়ারম্যানদের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। সভায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন নির্মাণ সহ বিভিন্ন সিন্ধান্ত নেওয়া হয়। এছাড়া নির্বাচিত চেয়ারম্যানদের তৃণমূল পর্যায়ে সরকারের চলমান উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড ও ইউনিয়ন পরিষদ কর্তৃক সকল জনকল্যাণমূলক সেবা সততা ও নিষ্ঠার সাথে বাস্তবায়নের উপর গুরুত্বারুপ করা হয়। নির্বাচিত চেয়ারম্যানরা তাদের বক্তব্যে বলেন, তাদের নিজ নিজ ইউনিয়নের জনসাধারণের সমস্যা নিরশন এবং সব ধরনের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার দায়িত্ব পালন করতে পারেন তার জন্য প্রশাসনের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কানাইঘাট পৌর সভার মেয়র লুৎফুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান ইকবাল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রবাতি রাণী দাস, কানাইঘাট সদর ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, ৪নং সাঁতবাক ইউপি চেয়ারম্যান মাষ্টার ফয়জুল ইসলাম, ২নং লক্ষীপ্রসাদ ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক চৌঃ, ৫নং বড়চতুল ইউপি চেয়ারম্যান মুবেশ্বর আলী, ৭নং বাণীগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন, ৮নং ঝিংগাবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমদ চৌধুরী, ৯নং রাজাগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান মানিক মিয়া, ৩নং দিঘীর পার ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌঃ, ১নং লক্ষীপ্রসাদ ইউপি চেয়ারম্যান ডাঃ ফয়েজ আহমদ প্রমুখ।
কানাইঘাট ইনডেস্ক-আলোকিত কানাইঘাট



গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান ঈদের পরের দিন

সাপ্তাহিক অপূর্ব সিলেট পত্রিকার সম্পাদক, তরুন সাংবাদিক ও কলাম লেখক তাওহীদুল ইসলামের সম্পাদনায় কানাইঘাট ইনডেস্ক-আলোকিত কানাইঘাট গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান ঈদুল ফিতরের পরের দিন কানাইঘাট উপজেলা গাছবাড়ী বাজারস্থ শারমিন কমিউনিটি সেন্টারে বিকাল ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত প্রকাশনা অনুষ্ঠানে কানাইঘাটের বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত থাকবেন। উল্লেখ্য কানাইঘাট ইনডেস্ক-আলোকিত কানাইঘাট গ্রন্থে কানাইঘাটের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সম্পর্কে ধারনা, কানাইঘাটের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস-ঐতিহ্য, কানাইঘাটের বীরসেনানী, আলোকিত ব্যক্তিদের জীবনীসহ এলাকার বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে জানা যাবে। বইটির মূল্য রাখা হয়েছে ১৫০ টাকা ।

Kanaighat News on Monday, August 8, 2011 | 11:25 PM

বিত্তবানদের সহযোগিতায়



বাঁচতে চায় প্রতিবন্ধী বাহার


সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার বানীগ্রামে ১৯৮৩ সালের ১১ জুন প্রতিবন্ধী যুবক বাহার উদ্দিনের জন্ম। ১৯৮৯ সালে বাহার আক্রান- হয় অজ্ঞাত রোগে। এ কারনে তার দুটি পা চিরতরে পঙ্গু হয়ে যায়। তার বাবার আর্থিক অসচ্ছলতার জন্য সে উপযুক্ত চিকিৎসা করাতেব্যর্থ হয়। কিন' থেমে থাকেনি বাহার উদ্দিনের জীবন সংগ্রাম। স'ানীয় স্কুলে ভর্তি হয়ে চালিয়ে যেতে থাকে তার পড়ালেখা। পাশ করে এসএসসি। ভর্তি হয় এইচএসসিতে। কিন' নিয়তির করুন পরিনতিতে আবার তার দুটি হাতে ব্যারাম দেখা দেয়। কলেজে ভর্তি হওয়ার তিন মাসের মাথায় অসুখ বেড়ে যাওয়ায় ইতি টানতে হয় তার লেখা পড়ায়। ডাক্তাররা তাকে দুই বৎসর বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেন। পরে আবার বাহার উদ্দিন উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে এইচএসসি পোগ্রামে ভর্তি হয়। সে লেখা পড়ার পাশাপাশি কম্পিউটার প্রশিক্ষন নিতে থাকে। এক পর্যায়ে আবার তার হাতে ব্যারাম দেখা দেয়ে। তাই চিরতরে তার লেখা পড়া বন্ধ হয়ে যায়। বাহার উদ্দিন ঘরে বসে কম্পিউটারের সহায়ক বই পড়ে পড়ে কম্পিউটারের অনেক পোগ্রাম শিখে ফেলে। তাই সে জীবিকা নিবর্াহের জন্য ২০০৮ সালে নিজ বাড়ীতে গড়ে তুলেন ”কুইক লাক কম্পিউটার একাডেমী”। প্রতি দিন গড়ে ৪/৫ জন করে তরুন যুবক ও শিক্ষিত লোকজনকে কম্পিউটার প্রশিক্ষন দিয়ে আসছিলেন। এতে কিছুটা আর্থিক উর্পাজন হতো। কিন' কঠোর পরিশ্রমী ও উদ্যমী বাহার এখন আর ঘরে বসে কম্পিউটার প্রশিক্ষন দিতে পারছেন না।হাতের উপর ভর কওে চলতো বিধায় অসুখ এক পর্যায়ে তার হাতে ও ভর করে। এখন বাহার উদ্দিনের হাতের শক্তি ধীরে ধীরে কমে আসছে। চিকিৎসকরা দেশের বাইরে গিয়ে উন্নত চিকিৎসার পরামর্শ দিয়েছেন। অন্যতায় তার হাতের শক্তি চিরতরে নিঃশেষ হয়ে যাবে। প্রতিবন্ধী যুবক বাহার উদ্দিনের পায়ের অসুখ সারতে না সারতেই ভুগছেন শারিরীক দুর্বলতা সহ হাতের অসুখে। দরিদ্র পরিবারের পক্ষে তার চিকিৎসা করানো কোন ভাবেই সম্ভব নয়। তার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন প্রায় ১০ লক্ষ টাকার। তাই নিরুপায় হয়ে চিকিৎসার জন্য সে সহযোগিতা চায় সমাজের চিত্ত বিত্তবানদের।সম্প্রত্তি সিলেটের মেয়র কামরান অসুস্থ বাহারের চিকিতসার জন্য ২৫ হাজার টাকা তুলে দিয়েছেন বাহারেরে হাতে। প্রতিবন্ধী বাহার বর্তমানে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে চিকীতসাধীন সাহায্য পাঠানোর টিকানা ঃ বাহার উদ্দিন, সঞ্চয়ী হিসাব নং ৫১৪৫, অগ্রণী ব্যাংক, গাছবাড়ী বাজার শাখা, উপজেলা ঃ কানাইঘাট, সিলেট। মোবাইল ঃ ০১৭১৫১৩৭৪০০


ঝোঁপে জঙ্গলে ভরে গেছে কানাইঘাট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার

কাওছার আহমদ :



অবহেলা আর অযত্নে পড়ে আছে কানাইঘাট উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার। সংস্কারের অভাবে ঝোঁপ-ঝাড় আর জঙ্গলে ভরে গেছে শহীদ মিনার চত্ত্বর। বিষাক্ত সাপ ও বন্যপ্রাণীর নিরাপদ আবাসনে পরিণত হয়েছে শহীদ মিনার চত্ত্বর ও আশপাশের এলাকা। ভাষা আন্দোলন ও মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর শহিদদের স্মরণে ২০০৮সালের ২৪ মার্চ উপজেলা প্রশাসন চত্ত্বরে প্রধান সড়কের সংলগ্ন করে শহীদ মিনারটি নির্মাণ করা হয়। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে জাতীয় দিবস গুলো বিশেষ করে ২১শে ফেব্রুয়ারী, ২৬শে মার্চ ও ১৬ই ডিসেম্বর উপজেলা প্রশাসন, বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন, বিভিন্ন শিা প্রতিষ্ঠান ও সুশীল সমাজের লোকজন মহান শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। এ সময় স্থানীয় প্রশাসন জাতীয় দিবস উপল্যে কিছুটা পরিষ্কার করে লোক সমাগমের উপযোগী রাখে। কিন্তু এরপর আর খেয়াল না রাখায় জঙ্গল আর কাদায় ঘিরে ফেলেছে শহীদ মিনারটি। এই দৈন্য দশা দেখলেই যে কোন দেশপ্রেমিকের হৃদয়ে নাড়া দিবে। ৫২'র ভাষা আন্দোলনে বাংলার দামাল ছেলে সালাম, বরকত, জব্বার, ও রফিক সহ অগনিত শহীদের বুকের তাজা রক্ত আর ৭১\'এর মহান মুক্তিযুদ্ধে বীরশ্রেষ্ঠ ফাইট লেঃ মতিউর রহমান, নুর মোহাম্মদ শেখ ও ক্যাপ্টেন জাহাঙ্গীরসহ ৩০লাখ শহীদের এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয় স্বাধীন বাংলাদেশ। আর এই স্বাধীন দেশের মাটিতে শহীদ মিনারের এই বেহাল দশা কোন দেশপ্রেমিক নাগরিক মেনে নিতে পারবে না। এব্যাপারে উপজেলা কর্মকর্তা মতিউল ইসলাম চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, শহীদ মিনার চত্ত্বরটি পরিষ্কার করার জন্য পৌর মেয়রকে বলবেন বলে জানান।

Kanaighat News on Thursday, August 4, 2011 | 4:55 PM

জানাযায় হাজার হাজার মানুষের ঢল
কানাইঘাট দারুল উলূম মাদ্রাসার

মুহাদ্দিস মাওঃ আব্দুল লতিফ(চাউরীর)ইন্তেকাল
কানাইঘাট দারুল উলূম দারুল হাদিস মাদ্রাসার মুহাদ্দিস এবং কানাইঘাট লংলার পার কৌমিয়া মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মুহতমিম বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন হযরত মাওলানা আব্দুল লতিফ চাউরী হুজুর গতকাল বুধবার ভোর ৬টার সময় তার নিজ বাড়ি চাউরা পশ্চিম গ্রামে ইন্তেকাল করিয়াছেন (ইন্না লিল্লাহী................রাজিউন)। মৃতু্যকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২বছর। মৃতু্যকালে তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে ও তিন মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহীসহ তার হাতে গড়া শত শত কৌমি মাদ্রাসার ছাত্র শিক রেখেগেছেন। মাওলানা আব্দুল লতিফের মৃতু্যর সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে। গতকাল বেলা ২টার সময় দারুল উলূম মাদ্রাসা মাঠে মরহুমের জানাযার নামায অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় পূর্ব সিলেট আজাদী দ্বীনিশিা বোর্ডের অনর্্তভুক্ত মাদ্রাসার ছাত্র শিকসহ সিলেট জেলার বিভিন্ন উপজেলার প্রায় ১৫হাজারেরও বেশি লোকজন জানাযায় শরীক হন। পরে মরহুমের লাশ তার হাতে গড়া লংলার পার কৌমিয়া মাদ্রাসা প্রাংঙ্গনে সমাহিত করা হয়। পারিবারিক সূত্র থেকে জানাগেছে তিনি গত ৩মাস ধরে বার্ধক্য জনিত রোগে নিজ বাড়িতে অসুস্থ অবস্থায় চিকিৎসাধীন ছিলেন।
দূরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত
পিতৃহীন শিক্ষার্থী কোরআনে হাফিজ

আব্দুল মুনিম জাবেদ বাঁচতে চায়
নিজাম উদ্দিন :
দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত কানাইঘাট গাছবাড়ী জামিউল উলূম কামিল মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্র কোরআনে হাফিজ আব্দুল মুনিম জাবেদ (১৫) মস্তিষ্কে পানি জমে বর্তমানে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তৃতীয় তলার ৫নং ওয়ার্ডে অর্থের অভাবে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃতু্যর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। ডাক্তাররা বলেছেন তার সু-চিকিৎসার জন্য লাধিক টাকার প্রয়োজন। হতদরিদ্র ঘরের সন্তান পিতৃহীন অসহায় আব্দুল মুনিম জাবেদের মাতা নুরেজা বেগমের প েতার সন্তানের সু-চিকিৎসার জন্য এতটাকা সংগ্রহ করা অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত আব্দুল মুনিম জাবেদের মা জানিয়েছেন, মাদ্রাসার ছাত্রদের কিছু অনুদান দিয়ে তার সন্তানের ঔষধের খরচ প্রথম দিকে চালিয়ে গেলেও বর্তমানে অর্থের অভাবে সন্তানের কোন ধরনের চিকিৎসা করাতে পারছেন না তিনি। নুরেজা বেগম তার সন্তান যাতে করে পুণরায় সুস্থ হয়ে লেখাপড়া করে পরিবারের মুখে হাঁসি ফুটাতে পারে তার জন্য সমাজের সু-হৃদয় বিত্তবানদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য আকুল আবেদন জানিয়েছেন। অসুস্থ কোরআনে হাফিজ আব্দুল মুনিম জাবেদ কাতর জড়িত কন্ঠে বলে সে বাঁচতে চায়, লেখাপড়া করে পরিবারের ভরন পোষণ তথা সমাজের সেবা করতে চায়। তার জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য বিত্তবানদের প্রতি আবেদন জানিয়েছে সে। অসুস্থ হাফিজ আব্দুল মুনিম জাবেদকে সাহায্যের জন্য মোঃ সেলিম উদ্দিন (হিসাব নং- ৭১৮৯) ইসলামী ব্যাংক, কানাইঘাট শাখায় যে কেউ টাকা পাঠাতে পারবেন অথবা, ০১৭১৯-৮২০৯৮৭ নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন।
কানাইঘাটে জাতীয় মতস্য সপ্তাহ ২০১১ পালিত
নিজাম উদ্দিন:

জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১১ উদযাপন উপল্যে কানাইঘাট উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গত ২০জুলাই বর্ণাঢ্য র্যালী বের হয়। র্যালী শেষে উপজেলা মিলনায়তনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন পুকুরে পোনা অবমুক্তকরন, আন্দু - বরাক বিলে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৩হাজার মিটার কারেন্ট জাল উদ্ধার করে আগুনে পুড়ানো হয়। সপ্তাহ ব্যাপী কর্মসূচী শেষে ২৬জুলাই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মতিউল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও মৎস্য কর্মকর্তা দ্বিজরাজ বর্মণের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সফল মৎস্য চাষী দুদু মিয়া, মাছ উৎপাদনকারী নুরুল হক ও পোনা মাছ উৎপাদনকারী আব্দুল কুদ্দুসকে পুরস্কৃত করা হয়। এছাড়া মৎস্য বিষয়ের উপরে রচনা প্রতিযোগিতায় শিার্থীদের মধ্যে ১ম স্থান লাভ করেন বীরদল এন.এম.একাডেমীর দশম শ্রেণীর ছাত্রী সানিয়া আক্তার, একই বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র সালমান উদ্দিন ২য় স্থান ও ৮ম শ্রেণীর ছাত্র শাহাদত হোসেন ৩য় স্থান অধিকার করে পুরস্কার লাভ করেন।

Kanaighat News on Wednesday, August 3, 2011 | 3:05 PM

নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও সদস্যদের শপথ গ্রহন অনুষ্ঠান
সেবার মনোভাব নিয়ে জনগণের অর্পিত

দায়িত্বসততা ও নিষ্ঠার সাথে পালন করুন
------------জেলা প্রশাসক।


নিজাম উদ্দিন/কাওছার আহমদ:

সিলেটের নবাগত জেলা প্রশাসক খান মোহাম্মদ বিলাল বলেছেন, স্থানীয় সরকার ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করার ল্যে সরকারের সকল উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড ও সেবা নিশ্চিত করার জন্য সরকার ইউনিয়ন পরিষদকে শক্তিশালী করার জন্য যুগান্তকারী প্রদপে গ্রহন করেছেন। তিনি আরো বলেন, জনগণ যে আশা প্রত্যাশা নিয়ে তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে আপনাদের নির্বাচিত করেছেন, সেবার মনোভাব নিয়ে তাদের প্রত্যাশা পূরণে আপনাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করতে হবে। তৃণমূল পর্যায়ে এলাকার অবকাঠামো নির্মাণ, শিার প্রসার, জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রন, পরিবেশ রায় বৃরোপণ কর্মসূচি গ্রহন এবং নিজ নিজ এলাকায় আইন শৃঙ্খলার উন্নয়নে পুলিশিং ব্যবস্থাকে জোরদার করতে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের কাজ করতে হবে। জেলা প্রশাসক গতকাল বেলা ২টায় ইউটিডিসি হলে কানাইঘাট উপজেলার নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যদের শপথ গ্রহন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মতিউল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রথমে জেলা প্রশাসক খান মোহাম্মদ বিলাল সকল ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দকে এবং পরে নির্বাহি কর্মকর্তা মতিউল ইসলাম চৌধুরী ইউপি সদস্যবৃন্দকে শপথ বাক্য পাঠ করান। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেটের পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসন কানাইঘাটকে শান্তির জনপদ আখ্যায়িত করে বলেন, সদ্য সমাপ্ত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিকারী সকল প্রার্থী এবং স্থানীয় জনসাধারণের সহযোগিতা প্রশাসন অত্যান্ত অবাদ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন উপহার দিতে সম হয়েছে। এজন্য তিনি উপজেলাবাসীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি এলাকার আইন শৃঙ্খলার উন্নয়ন এবং জনগণের পাশে থেকে জনপ্রতিনিধিদের কাজ করার আহ্বান জানান। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শামসুল ইসলাম এবং যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা নুরুজ্জামানের যৌথ পরিচালনায় শপথ গ্রহন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক চৌধূরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিা) শাহাব উদ্দিন, কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র লুৎফুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান ইকবাল ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শ্রীমতি প্রভাতি রানী দাস। এছাড়াও অনুষ্ঠানে এলাকার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিক ও প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের সরকারী কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
 
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: মো:মহিউদ্দিন,সম্পাদক : মাহবুবুর রশিদ,নির্বাহী সম্পাদক : নিজাম উদ্দিন। সম্পাদকীয় যোগাযোগ : শাপলা পয়েন্ট,কানাইঘাট পশ্চিম বাজার,কানাইঘাট,সিলেট।+৮৮ ০১৭২৭৬৬৭৭২০,+৮৮ ০১৯১২৭৬৪৭১৬ ই-মেইল :mahbuburrashid68@yahoo.com: সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত কানাইঘাট নিউজ ২০১৩