Kanaighat News on Tuesday, May 31, 2011 | 8:07 PM

কানাইঘাটে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

কানাইঘাটে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে আপন ভাই-ভাতিজার হাতে এক ব্যাক্তি খুন হয়েছে। জানা যায়, ৪নং সাতবাক ইউপি'র ছদিয়লের মাটি গ্রামের মৃত হাজী আব্দুল কাদিরের দু'পুত্র আব্দুল কুদ্দস (৬৫) ও আব্দুস সুবহান (৪৮) এর মধ্যে বাড়ির সীমানা নির্ধারণ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এই বিরোধের জের ধরে গত সোমবার রাত ৮টায় স্থানীয় ভবানীগঞ্জ বাজারে আব্দুল কুদ্দুস ও তার পুত্রদ্বয় গোলাম মস্তোফা (৪৫), হারুন আহমদ (৪০), গোলাম মস্তোফার ছেলে রাসেল (১৯) ও দাবাধরনীর মাটি গ্রামের মৃত মাহমুদ আলীর পুত্র ওকিল আহমদ (৪৭) পূর্ব পরিকল্পিতভাবে একত্রিত হয়ে আব্দুস সুবহানকে উপযর্ুপরি ছুরিকাঘাত করলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এসময় তার ছেলে মামুন রশিদ (৩০) রা করার জন্য এগিয়ে আসলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে মারাত্মকভাবে জখম করে। আশপাশের লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে সিলেট ওমেক হাসপাতালে নেওয়ার সময় পথিমধ্যে আব্দুস সুবহান মৃতু্যর কোলে ঢলে পড়েন। ঘটনার খবর পেয়ে কানাইঘাট থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। এব্যাপারে নিহতের ছেলে মামুন রশিদ ৫জনকে আসামী করে কানাইঘাট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং- (২৪)(৩০/৫/০১১)।

Kanaighat News on Saturday, May 28, 2011 | 10:20 PM








সময় নেই সমর্থকদেরও

বাবুল আহমেদ:
কানাইঘাট উপজেলার ভোটাররা বেশ খুশি। ভোটারদের মধ্যে মূলত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নিয়ে আলোচনা চলছে বেশি। আগামী ১১ই জুন কানাইঘাট উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে নির্বাচনকে সামনে রেখে চেয়ারম্যান ও সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র দাখিল করে তাদের নিজ নিজ এলাকায় শুরু করেছেন উঠান বৈঠক, গণসংযোগ, নির্বাচনী মতবিনিময় সভা। প্রার্থীদের সমর্থকরাও বসে নেই, তারাও গ্রামের বিভিন্ন রাস্তাঘাট, চায়ের দোকান, যাত্রী ছাউনী ইত্যাদি এলাকায় নিজ প্রার্থীর গুণগান করছেন। এতে করে উপজেলাব্যাপী জমে উঠেছে নির্বাচনী আমেজ। প্রার্থীর সমর্থক ও প্রার্থীরা রাত দিন প্রচারণায় ব্যস্ত। উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন- সদর ইউপির অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, বর্তমান চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ, লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপির ফারুক চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান সফিকুল হক ও সিরাজ উদ্দিন। দিঘীরপার পূর্ব ইউপির আলতাফ উদ্দিন, আজির উদ্দিন। সাতবাঁক ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান মস্তাক আহমদ পলাশ, মাস্টার ফয়জুল ইসলাম ও বদরুল আমিন। বড় চতুল ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান হামিদুল হক ও মুবেশ্বর আলী (চাচাই)। বাণীগ্রাম ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ ও সাহাব উদ্দিন। ঝিঙ্গাবাড়ী ইউপির সাইফুল্লাহ, রফিক আহমদ চৌধুরী ও ওলিউর রহমান। রাজাগঞ্জ ইউপির ফখর উদ্দিন চৌধুরী, রাধিকা রঞ্জন রাথ।
চেয়ারম্যান পদে ৬৭ সদস্য পদে ৪৭৪ জন
কানাইঘাটের ৯টি ইউনিয়নের ইউপি

নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ

প্রার্থী ও সমর্থকদের উপসি'তিতে উৎসবমুখর পরিবেশে আগামী ১১জুন অনুষ্ঠিতব্য সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী চেয়ারম্যান, সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য প্রার্থীদের প্রতীক গতকাল শুক্রবার (২৭মে) উপজেলা রিটার্নিং অফিসারেরকার্যালয় থেকে লটারী ও সমঝোতার মাধ্যমে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ২৬মে মননোয়ন প্রত্যাহারের পর ৯টি ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৬৮জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩৮০, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৯৪জন প্রার্থী নির্বাচনে সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। প্রতীক বরাদ্দের সময় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল প্রার্থীদেরকে নির্বাচন আচরণবিধি মেনে চলার অনুরুধ জানানো হয়। এদিকে, পছন্দের প্রতীক পাওয়ার প্রথম দিনই চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থীদের পোষ্টার ও ব্যানারে ছেয়ে গেছে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের হাট-বাজার, রাস্তা-ঘাট। চেয়রম্যান পদে ৯টি ইউনিয়নে যারা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন তারা হলেনঃ১নং লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউপি মো: শমসের আলম (টেলিফোন), বাহার উদ্দিন (চাঁদ), আব্দুর রব (আনারস), ফয়েজ আহমদ (বালতি), গিয়াস আহমদ চৌ: (দোয়াত কলম), আহমদ সুলেমান (জাহাজ), জে.এ কাজল খান (তালা), আলা উদ্দিন (কাপ পিরিচ), আব্বাস উদ্দিন (চশমা), আবুল ওয়েস ছিদ্দিকী (মাইক), বীর মুক্তিযোদ্ধো শামসুদ্দিন চৌ: (গিঠার), ২নং লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপি বর্তমান চেয়ারম্যান শফিকুল হক (গরুর গাড়ি), সিরাজুল ইসলাম (আনারস), ফারুক চৌ: (দেয়াল ঘড়ি), আব্দুর রহিম (দোয়াত কলম),৩নং দীঘিরপার পূর্ব ইউপি বর্তমান চেয়রম্যান আলতাফ হোসেন (জাহাজ), আজির উদ্দিন (গরুর গাড়ি), আলী হোসেন কাজল (কাপ পিরিচ), আবুল হোসেন (তালা), আব্দুল মুমিন চৌ: (দেয়াল ঘড়ি), আব্দুল হাই (আনারস)৪নং সাতবাঁক ইউপি বর্তমান চেয়ারম্যান মস-াক আহমদ পলাশ (আনারস), বদরুল আমীন (দেয়ালঘড়ি), ফয়জুল ইসলাম (তালা), আব্দুল মন্নান (জাহাজ), ৫নং বড়চতুল ইউপি বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হামিদুল হক (চশমা), মাওলানা আবুল হোসেন (টেলিফোন), মুবেশ্বর আলী চাচাই (গরুর গাড়ি), মুহি উদ্দিন (আনারস), আফতাবউদ্দিন চৌ: (কাপ পিরিচ), নিজাম উদ্দিন (দেয়াল ঘড়ি), আব্দুর রশীদ (তালা), আব্দুর রকিব (জাহাজ), নজরুল ইসলাম (দোয়াত কলম), শ্রী মদন গোপাল দে (মাইক)।৬নং সদর ইউপি বর্তমান চেয়ারম্যান মামুন রশিদ মামুন (তালা),প্রিন্সিপাল সিরাজুল ইসলাম (দেয়াল ঘড়ি), হোসেন আহমদ (দোয়াত কলম), এখলাছুর রহমান (আনারস), লুৎফুর রহমান জুয়েল(জাহাজ)।৭নং দ্‌ক্িষণ বাণীগ্রাম ইউপি বর্তমান চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ (কাপ পিরিচ), শাহাব উদ্দিন (আনারস), মাওলানা আলীম উদ্দিন (চশমা), লুকমান আহমদ (দেয়াল ঘড়ি)। ৮নং ঝিঙ্গাবাড়ী ইউপি রফিক আহমদ চৌধুরী (তালা), মাওলানা আব্দূল মালিক (জাহাজ), জালাল উদ্দিন (চশমা), ওলিউর রহমান (গরুরগাড়ি), হারুন রশিদ (কাপ পিরিচ), আবু বক্কর (আনারস), নুরুল হক (দেয়ালঘড়ি), মাহমুদ হোসেন (দোয়াত কলম)।৯নং রাজাগঞ্জ ইউপি বর্তমান চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম (দোয়াতকলম), ফখর উদ্দিন চৌ: (মাইক), আহমদ হোসেন (টেলিফোন), ফখর উদ্দিন (কাপ পিরিচ), আব্দুল আজিজ আশীক (আনারস), ফখরুল ইসলাম (গরুর গাড়ি), বাহার উদ্দিন (তালা), বাহা উদ্দিন চৌধুরী (দেয়ালঘড়ি), হেলাল উদ্দিন চৌধুরী (বালতি), রাধিকা রঞ্জন নাথ (নুঙ্গর), মানিক মিয়া (গিঠার), কামাল আহমদ (চাঁদ), শহিদুর রহমান (চশমা), ইসমাইল আলী (জাহাজ)

Kanaighat News on Wednesday, May 25, 2011 | 8:18 AM

বজ্রপাতে কিশোরীর মৃত্যু আহত ২

সোমবার প্রবল বর্ষণের সময় বৃষ্টির পানি সংগ্রহ করতে গিয়ে উপজেলার ১ নম্বর লক্ষ্মীপ্রসাদ পূর্ব ইউপির দুর্গম পাহাড়ি এলাকা বড়খেওর গ্রামের আবদুস শুক্কুর আলীর মেয়ে কুলসুমা বেগম বজ্রপাতে মারা যায়। এ সময় একই পরিবারের অপর দু'সদস্য আবদুর রহমানের ছেলে হেলাল আহমদ ও মেয়ে রাজিয়া বেগম গুরুতর আহত হয়। এদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চার বছরে ৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আট বার অগ্নিসংযোগ
কানাইঘাটের কাড়াবাল্লায় আবারো একটি
এন.জি.ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগ


কানাইঘাট ১নং লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী দুর্গম পাহাড়ী এলাকা কাড়াবাল্ল্লায় আবারো দুষ্কৃতিকারী চক্র কর্তৃক এফ.আই.ভি.ডি.বি পরিচালিত একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গত শুক্রবার রাতেঅগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর গত শনিবার সিলেটের উত্তর সার্কেলের এ.এস.পি বীনা রানী দাস ও কানাইঘাট থানার ইন্সপেক্টর তদন- রুহুল আমীন ঘটনাস'ল পরিদর্শন করেছেন। স'ানীয় এলাকাবাসী জানিয়েছেন পাহাড়ী জনপদ কাড়াবাল্লায় একের পর এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটলেও মূল হুতাদের চিহ্নিত করে স'ানীয় পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন না করায় একের পর এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটছে। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ পর্যন- তিনটি মামলা দায়েরের পরও ভবিষ্যতে যাতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগের ঘটনা না ঘটে তার জন্য বার বার স'ানীয় ভাবে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হলেও প্রশাসনকে বৃদ্ধাংগুলি প্রদর্শন করে দুষকৃতিকারীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগের মতো জগন্যতম অপরাধ কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। এ পর্যন- গত চার বছরে ৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আট বার অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ গত ৩ এবং ২০মে দুষ্কৃতিকারীরা এফ.আই.ভি.ডি.বি পরিচালিত পূর্ব কাড়াবাল্লা প্রাথমিক বিদ্যালয় দু’দফা অগ্নিসংযোগ করে স্কুলের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করেছে। তার মধ্যে ২০০৮ সালের মার্চ মাসে কাড়াবাল্ল্লা ক্বৌমী মাদরাসা, একই বছরের এপ্রিল মাসে কাড়াবাল্লা বিদ্যানিকেতন উচ্চ বিদ্যালয়, ২০০০ সালের মার্চ মাসে পূর্ব কাড়াবাল্লা প্রাথমিক বিদ্যালয়, চলতি বছরে ২৫ মার্চ বড়চাতল আব্দুল মুতালেব রেজি: প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এতে এলাকার শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার অপুরনীয় ক্ষতির পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানগুলোর লক্ষ লক্ষ টাকার সম্পদ বষ্মিভূত হয়েছে। স'ানীয় লোকজন জানান, এলাকায় নিজেদের আধিপত্য প্রতিষ্ঠার জন্য প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় একের পর এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটলেও মূল অপরাধীরা আইনের আওতায় না আসায় বার বার এ ধরনের ঘটনা ঘটছে। বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা যায়, স'ানীয় একটি ইসলামী দলের অনুসারীরা দরিদ্র পাহাড়ী এলাকার জনসাধারণের সন-ানরা এন.জি.ও পরিচালিত প্রাথমিক স্কুলগুলোতে শিক্ষাগ্রহণ করতে না পারেন প্রভাবশালী গ্রাম্য মোড়লদের সহযোগীতায় নিজেদের আধিপত্য টিকিয়ে রাখার জন্য অত্র এলাকায় যাতে করে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠতে না পারে তাই স্কুলগুলোতে বার বার অগ্নিসংযোগ করে আসছে। ভবিষ্যতে যাতে আর কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগের ঘটনা না ঘটে সে লক্ষ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর হসে- প্রকৃত অপরাধীদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান- মূলক শাসি-র দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।



Kanaighat News on Sunday, May 22, 2011 | 10:08 PM

কানাইঘাটে চেয়ারম্যান পদে ৬৯
সদস্য পদে ৪৮৭জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বৈধ



আগামী ১১জুন অনুষ্ঠিতব্য কানাইঘাট উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বাছাই গত ১৯মে উপজেলা নির্বাচন রিটানিং অফিসারের কার্যালয়ে সম্পন্ন হয়েছে। গত দু'দিন মনোনয়ন পত্র বাছাইয়ের পর চেয়ারম্যান পদে ৭০জন প্রার্থীর মধ্যে ১জন, সাধারন সদস্য পদে ৩৯৮জন প্রার্থীর মধ্যে ৮জন এবং সংরতি মহিলা সদস্য পদে ৯৯জন প্রার্থীর মধ্যে ২জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। আগামী ২৭মে বৈধ চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থীদের প্রতিক বরাদ্ধের পর ১১জুন কানাইঘাট উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

Kanaighat News on Saturday, May 21, 2011 | 9:04 PM

কানাইঘাটে জমে উঠেছে নবীন-প্রবীণের লড়াই
কাওছার আহমদ:


আসন্ন ইউপি নির্বাচনে কানাইঘাট উপজেলার নয়টি ইউনিয়নে নবীন-প্রবীণের লড়াই জমে উঠেছে। প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। পাড়া-মহল্লায় ঘুরে ঘুরে ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। চায়ের দোকান, রেস্টুরেন্ট ও যানবাহনে একই আলোচনা_ কে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আসছেন, কার দ্বারা এলাকার উন্নয়ন সাধিত হবে। কর্মী ও সমর্থকরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নিজ প্রার্থীর পক্ষে সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করছেন। উপজেলারনয়টি ইউনিয়নে মোট ৬৯ প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে ভোটযুদ্ধে নেমেছেন। এদের মধ্যে জনমত জরিপ ও ভোটের হিসাবে বিভিন্ন ইউনিয়নে যেসব প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহড্ডি লড়াই হবে এবং উপজেলার সর্বত্র মূল আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এসেছেন তারা হলেন : সদর ইউনিয়নে অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম ও বর্তমান চেয়ারম্যান মামুন রশিদ; ১ নম্বর লক্ষ্মীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান শমসের আলম ও বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুদ্দিন; ২ নম্বর লক্ষ্মীপ্রসাদ পশ্চিম ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী, বর্তমান চেয়ারম্যান শফিকুল হক ও সিরাজ আহমদ; ৩ নম্বর দীঘিরপার পূর্ব ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আলতাফ উদ্দিন ও সাবেক চেয়ারম্যান আজির উদ্দিন; ৪ নম্বর সাঁতবাক ইউনিয়নে মাস্টার ফয়জুল ইসলাম, বর্তমান চেয়ারম্যান মস্তাক আহমদ পলাশ ও বদরুল আমীন; ৫ নম্বর বড় চতুল ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান হামিদুল হক ও মুবশ্বির আলী; ৭ নম্বর বাণীগ্রাম ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ ও সাবেক চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন; ৮ নম্বর ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান সাইফুল্লাহ, রফিক আহমদ চৌধুরী ও অলিউর রহমান এবং ৯ নম্বর রাজাগঞ্জ ইউনিয়নে ফখর উদ্দিন চৌধুরী ও রাধিকা রঞ্জন নাথ।তবে শেষ পর্যন্ত মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এদের টপকে অন্য প্রার্থীদের মধ্য থেকেও কারও উঠে আসার সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দেওয়া যায় না।


কানাইঘাট বড়দেশ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন
কানাইঘাট বড়দেশ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন গতকাল শনিবার বিপুল উৎসাহ উদ্বীপনা মধ্য দিয়ে ও সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে অভিভাবক সদস্য পদে মোট ৭জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করলেও স্কুলের অভিভাবক সদস্যরা তাদের ভোটাধীকার প্রয়োগ করে মধ্যে ৪জন প্রার্থীকে বিজয়ী করেন। নির্বাচীত অভিভাবক সদস্যের মধ্যে আব্দুর মতিন চৌধুরী (ছাতা) প্রতীক নিয়ে ১৫১, হাজী আব্দুল মতিন (ঘড়ী) প্রতীক নিয়ে ১৩৪, আব্দুল হক (মাছ) প্রতীক নিয়ে ১২৭, মোহাম্মদ আলী মেম্বার (চেয়ার) প্রতীক নিয়ে ১১৮ ভোট পেয়ে নির্বাচীত হন। মোট ২৯৫জন অভিভাবক সদস্য ভোটারদের মধ্যে ২৪৪জন ভোট প্রদান করেন। নির্বাচনে প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন।

সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন আকষ্মিক পাহাড়ী
ঢলে ভেঙ্গে গেছে কানাইঘাট-সুরাইঘাট রাস্তা

শুক্রবার রাতে ভারতের উজান থেকে নেমে আসা সুরাই নদীর আকষ্মিক পাহাড়ী ঢলের তুড়ে সীমান্তবর্তী কানাইঘাট-সুরাইঘাট রাস্তার নয়াগ্রাম নামক স্থানে প্রায় ৪০ফুট মুল পাকা সড়ক ভেঙ্গে প্রবল স্রোতে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। মুল সড়ক ভেঙ্গে যাওয়ায় গতকাল থেকে উপজেলা সদরের সাথে সীমান্তবর্তী সুরাইঘাট এলাকার সকল প্রকার যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়া জনদুর্ভোগ চরম আকার ধারন করছে। স্থানীয় এলাকাবাসী জানিয়েছেন,ভাঙ্গণের সম্মুখস্থল সুরাই নদী থেকে অপরিকল্পিত ভাবে বালু উত্তোলণের ফলে এবং ভাঙ্গন কবলিত সড়কের নীচ দিয়ে সুড়ং তৈরী করে পাইপ লাইন দিয়ে সুরই নদী থেকে শুকনো মৌসুমে সড়কের পশ্চিম পার্শের বোর ধান ক্ষেতের মাঠে পানি সেচের ফলে আকষ্মিক পাহাড়ী ঢলে ও প্রবল বর্ষনে সড়কটি প্রায় ৪০ ফুট ভেঙ্গে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। দ্রুত সড়কটির মেরামতের উদ্যোগ না নেয়া হলে উপজেলা সদরের সাথে সীমান্তবর্তী এলাকার মানুষের যাতায়াতে দুর্ভোগের পাশাপাশি বর্ষা মৌসুমে ভাঙ্গণ আরো মারাত্মক আকার ধারন করতে পারে
উৎসবমুখর পরিবেশে কানাইঘাট উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিন গতকাল সোমবার চেয়ারম্যান পদে মোট ৭০, সাধারণ সদস্য পদে ৩৯৮, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৯৯জন প্রার্থী উপজেলা রিটানিং অফিসারের কার্যালয়ে তাদের মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন। তার মধ্যে ১নং- লক্ষীপ্রসাদ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১৩, সাধারণ সদস্য পদে ৪৯, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৩, ২নং- লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪, সাধারণ সদস্য পদে ৪১, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৩, ৩নং- দিঘীরপার পূর্ব ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬, সাধারণ সদস্য পদে ৩৩, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১০, ৪নং- সাঁতবাক ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪, সাধারণ সদস্য পদে ৩৬, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৯, ৫নং- বড়চতুল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১১, সাধারণ সদস্য পদে ৩৫, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৭, ৬নং- সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫, সাধারণ সদস্য পদে ৪৬, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৭, ৭নং- দক্ষিণ বানীগ্রাম ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪, সাধারণ সদস্য পদে ৪৭, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৭, ৮নং- ঝিংগা বাড়ী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯, সাধারণ সদস্য পদে ৬০, মহিলা সংরক্ষিত পদে ১১, ৯নং- রাজাগঞ্জ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১৪জন, সাধারণ সদস্য পদে ৫১, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১২জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ সামছুল আজম জানিয়েছেন আগামী ১৮-১৯ মে মনোনয়ন পত্র বাছাই ও ২৬মে প্রার্থীতা প্রত্যাহার এবং ১১ই জুন ৯টি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আগামী ১১ জুন কানাইঘাট উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে একদিকে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থীরা মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ ও দাখিল অপরদিকে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা তাদের নিজ নিজ ইউনিয়নে ব্যাপক প্রচারণা উটান বৈঠক, গণসংযোগ, নির্বাচনী মতবিনিময় সভা চালিয়ে যাচ্ছেন। সম্প্রতি ৬নং কানাইঘাট সদর ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী যুবনেতা হুসেন আহমদ তার নিজ ইউনিয়নের বীরদল, উমাগড়, ভাটিদিহী, চটিগ্রাম, কচুপাড়া, জৈন্তিপুর, নিজ চাউরা উত্তর গ্রামে গনসংযোগ করে ভোটারদের সাথে মতবিনিয় করেছেন। ৪নং সাঁতবাক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল মন্নান তার ইউনিয়নের সাতপাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় জুলাই জামেয়া মাদ্রাসা চড়িপাড়া, চাপ নগর, জয়পুর, বৃহত্তর জুলাই, লন্তির মাটি, হিম্মতের মাটি, গ্রামে গত কয়েকদিন ধরে ভোটারদের নিয়ে মতবিনিময় গণসংযোগ অব্যাহত রেখেছেন। ৭নং দক্ষিন বানীগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন সম্পতি তার ইউনিয়নের বড়দেশ উত্তর, বড়দেশ দক্ষিণ, নয়াগ্রাম, সরদারী পাড়া, কায়স্তগ্রাম, বানীগ্রাম, গড়াইগ্রাম, উজানীপাড়া, ছত্রপুর, সরদারী মাটি, নিজ দলই কান্দি, ব্রাহ্মণগ্রাম, বাউরবাগ গ্রামের ভোটারদের সাথে ব্যাপক প্রচারণা এবং মতবিনিময় করেন। ৩নং দিঘিরপাড়া পূর্ব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা আলী হুসেন কাজল গত ৪দিন তার ইউনিয়নের মাজরগ্রাম, সড়কের বাজার, ব্রাহ্মনগ্রাম, সরদার মাটি, রাজপুর, দিঘীরপাড়, মাছুগ্রাম, জয়পুর, কাজীরগ্রাম, ঠাকুরের মাটি, মাটিজুরা গ্রামে গণসংযোগ, পথসভা ও মতবিনিময় করেছেন ভোটারদের সাথে। ১নং পুর্ব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান শমসের আলম গত কয়েকদিনে তার ইউনিয়নের মেছা, কান্দলা, ডাউকেরগুল, ভাল্লুক মারা, নয়াখান, কুচি, সাউদগ্রামের ভোটারদের সাথে মতবিনিময় গণসংযোগ করেন। পৃথকভাবে এসব নির্বাচনী মতবিনিময় সভায় সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ভোটারদের সহযোগিতা ও দোয়া নেওয়ার পাশাপাশি নির্বাচনে বিজয়ী হলে এলাকার উন্নয়নে তাদের কর্মপরিকল্পনার কথা তুলে ধরে ভোটারদের মন জয়লাভ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

Kanaighat News on Wednesday, May 4, 2011 | 10:10 PM

কানাইঘাট প্রেসকাবের অভিনন্দন
হাফিজ মজুমদার পূবালী ব্যাংকের পুনঃ নির্বাচিত চেয়ারম্যান
সিলেট -৫ (কানাইঘাট-জকিগঞ্জ) আসনের নির্বাচিত সংসদ সদস্য হাফিজ আহমদ মজুমদার দেশের বৃহত্তম বেসরকারী ব্যাংক পূবালী ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান পুনঃ নির্বাচিত হওয়ায় কানাইঘাট প্রেসকাবের নেতৃবৃন্দ অভিনন্দন জানিয়েছে। অভিনন্দন দাতারা হলেন- সভাপতি এম.এ.হান্নান, সহসভাপতি দেলোওয়ার হোসেন সেলিম, আব্দুর রব, বাবুল আহমদ, কোষাধ্য এখলাছুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, ক্রীড়া সম্পাদক জামাল উদ্দিন, সদস্য- ইউ.কে চৌধুরী আম্বিয়া, মাহবুবুর রশিদ, মিছবাহ উদ্দিন, কাওছার আহমদ, আব্দুন নুর, বদরুল ইসলাম, এম.এ.বাবুল প্রমুখ।
ন্যাশনাল লাইফের চেক হস্তান্তর

কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র লুতফুর রহমান বলেছেন, ন্যাশনাল লাইফ ইন্সু্যরেন্স কোম্পানী গ্রাহকদের সর্বোত্তম সেবা প্রদান, মরনোত্তর বীমা দাবী পরিশোধ অত্যন্ত সচ্ছতার সহিত প্রদান করায় গ্রাহকদের মধ্যে কোম্পানীর আস্থা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আমাদের নতুন প্রজন্ম এবং ভবিষ্যতে প্রতিটি পরিবারকে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বি করতে সবাইকে বীমার আওতায় আসার জন্য তিনি আহ্বান জানিয়েছেন। মেয়র লুৎফুর রহমান গত ২৮ এপ্রিল সকাল ১১টায় ন্যাশনাল লাইফ ইন্সুরেন্স কানাইঘাট এরিয়া অফিসের উদ্যোগে আয়োজিত কোম্পানীর বীমা গ্রাহক কানাইঘাট কৃষি ব্যাংকের ক্যাশিয়ার মরহুম ইমাম উদ্দিনের মরনোত্তর বীমা দাবীর চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। কোম্পানীর চীফ জোনাল ম্যানেজার ও এরিয়া প্রধান হরিপদ রায় টিপুর সভাপতিত্বে এবং বিএম সাহেদুল ইসলামের পরিচালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীর কানাইঘাট জোনাল ইনচার্জ মোহাম্মদ আব্দুল হাই, কানাইঘাট পৌরসভার কাউন্সিলার মাওঃ হাবিব আহমদ, সহকারী জোনাল ইনচার্জ হাফিজ নাসির আহমদ প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি মেয়র লুতফুর রহমান কোম্পানীর মরহুম বীমা গ্রাহক ইমাম উদ্দিনের নমীনি তার স্ত্রী সুলতানা বেগমের হাতে বীমা দাবীর ৬০ হাজার চেক প্রদান করেন। উল্লেখ্য যে, মরহুম ইমাম উদ্দিন ৬০ হাজার টাকা বীমা করে ১ম কিস্তির ৫ হাজার টাকা পরিশোধ করে মারা যান।
কানাইঘাটের শিক্ষার প্রচার প্রসারে
সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে।
..................মামুনুর রশিদ মামুন

ঢাকা আপডেট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক চাকসুর সাবেক আপ্যায়ন সম্পাদক বিশিষ্ট শিল্পপতি, সমাজসেবী মামুনুর রশিদ মামুন বলেছেন, কানাইঘাটের শিার অতীত গৌরব ফিরিয়ে আনতে হলে সম্মিলিত ভাবে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে শিার প্রচার প্রসারে কাজ করতে হবে। তিনি আরো বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে কানাইঘাট আর পিছিয়ে নেই, এ অঞ্চলের শিার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিশ্বের নামীদামি প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়ন করে নিজের ক্যারিয়ার গঠন করে এলাকার সুনাম বৃদ্ধি করে যাচ্ছে। তারপরও কানাইঘাটের প্রতিটি পরিবারকে তৃণমূল পর্যায়ে শিার আলোয় আলোকিত করতে সমাজের ধন্যাঢ্য ব্যক্তিবর্গ, প্রবাসী, শিামূলক সামাজিক সংগঠন ও শিানুরাগীদের এগিয়ে আসতে হবে। মামুনুর রশিদ মামুন গত রবিবার(১ মে) সকাল ১১টায় কানাইঘাট ছোটদেশ উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তন হলে ঐতিহ্যবাহী হামিদা শিা ট্রাষ্টের ১৭তম বৃত্তিপ্রদান ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। ট্রাষ্টের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস শুকুরের সভাপতিত্বে এবং ছোটদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী ক্রীড়া শিক শরীফ উদ্দিনের পরিচালনায় বৃত্তিপ্রদান অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুন রশিদ, ছোটদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক মুফজ্জিল আলী, ট্রাষ্টের ট্রেজারার ডাঃ আব্দুন নূর, ডাঃ মুজম্মিল আলী ওয়েল ফেয়ার ট্রাষ্টের সচিব মখলিছুর রহমান মেম্বার, হামিদা শিা ট্রাষ্টের সচিব হাজী ফখরুল ইসলাম, কানাইঘাট শিা ট্রাষ্টের সচিব মোহাম্মদ আলী, কানাইঘাট প্রেস কাবের দপ্তর সম্পাদক সাংবাদিক নিজাম উদ্দিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ট্রাষ্টের সদস্য, বিশিষ্ট শিানুরাগী মোঃ আব্দুল হাই, বিশিষ্ট সমাজসেবক মাষ্টার খলিলুর রহমান, ডাঃ ইয়াকুব আলী, বশির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক নূরুল আমীন, উজান বীরদল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক লুৎফুর রহমান প্রমুখ। বিভিন্ন শিা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রী, শিক ও এলাকার গণ্যমান্য লোকজনদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠান শেষে ট্রাষ্টের প থেকে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে ৫৬জন বৃত্তিপ্রাপ্ত শিার্থীদের সনদ ও এককালীন অর্থ প্রদান করেন প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ। এছাড়া প্রাথমিক পর্যায়ে ঢাকনাইল কিন্ডারগার্টেন ও মাধ্যমিক পর্যায়ে ছোটদেশ উচ্চ বিদ্যালয় সেরা প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত হওয়ায় ট্রাষ্টের প থেকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।
কানাইঘাটে মে দিবস পালিত

কানাইঘাটে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে দিয়ে মে দিবস পালনের খবর পাওয়া যায়। নায্যমজুরী আদায়ের লক্ষ্যে গত সোমবার কানাইঘাট পৌর শহরের বিভিন্ন আবাসিক ও রেষ্টুরেন্টের শ্রমিকরা র্যালী ও সমাবেশ করেছে। র্যালীটি পৌরশহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদণি করে মধ্য বাজার অস্থায়ী কার্যালয়ে বাদ মাগরীব এক সমাবেশে মিলিত হয়। শ্রমিক নেতা ইব্রাহিম লালের সভাপতিত্বে ও আশিক উদ্দিনের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন বিলাল আহমদ, আব্দুল জলিল, রাসেল আহমদ, কামাল উদ্দিন, আবুল কালাম প্রমুখ।
 
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: মো:মহিউদ্দিন,সম্পাদক : মাহবুবুর রশিদ,নির্বাহী সম্পাদক : নিজাম উদ্দিন। সম্পাদকীয় যোগাযোগ : শাপলা পয়েন্ট,কানাইঘাট পশ্চিম বাজার,কানাইঘাট,সিলেট।+৮৮ ০১৭২৭৬৬৭৭২০,+৮৮ ০১৯১২৭৬৪৭১৬ ই-মেইল :mahbuburrashid68@yahoo.com: সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত কানাইঘাট নিউজ ২০১৩