Kanaighat News on Thursday, April 28, 2011 | 8:56 AM

কানাইঘাট শিক্ষা কার্যক্রম
উপজেলা প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাসহ গুরুত্বপূর্ণ পদগুলো শূন্য
কাওছার আহমদ:

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার শিক্ষাকার্যক্রম ভেঙ্গে পড়েছে। বিপর্যস্ত হচ্ছে শিক্ষা বিভাগ। হাজার হাজার মেধাবী শিক্ষার্থী প্রত্যাশিত পাঠদান থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ফলে অনেক প্রতিভা অকালেই ঝরে যাচ্ছে। শূন্যপদের ছড়াছড়ি আর বদলীজনিত কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও হিসাব রক্ষকসহ গুরুত্বপূর্ণ পদগুলো দীর্ঘ দিন থেকে শূন্য থাকায় শিক্ষার হার দিন দিন নিম্নগামী হচ্ছে। এতে উপজেলাবাসী হতাশ। বর্তমানে উপজেলার শিক্ষার হার শতকরা ৪১.০২ যা সিলেটের অন্যান্য উপজেলার চেয়ে অনেক পিছিয়ে। সুষ্টু তদারকি ও পাঠদানের অভাবে সিলেট শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্টিত বিগত পরীাগুলোতে বোর্ডের সেরা বিশ স্কুলের মধ্যে কানাইঘাটের কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই স্থান দখল করতে পারেনি। এ ব্যর্থতার দায়ভার কে নিবে? স্বচ্ছল ও সচেতন অভিভাবকবৃন্দ তাদের সন্তানের উজ্জ্বল ভবিষৎ নিশ্চিত করতে দিন দিন নগর মুখী হচ্ছেন। এছাড়া বিদ্যালয় গুলোতে লেখাপড়ার গুনগত মান ভাল না হওয়ায় কোন সরকারী চাকুরীজীবি যোগদানের পর নির্দিষ্ট মেয়াদ পর্যন্ত এখানে থাকতে চান না। অন্যত্র বদলী হওয়ার জন্য বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে তদবীর শুরু করেন। এসব সমস্যা থেকে উত্তরনের জন্য শিক্ষা কার্যক্রমকে গতিশীল করার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করতে হবে। এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরী জানান, উপজেলা শিক্ষা বিভাগের শূন্যপদ পূরণসহ বিবিধ সমস্যা নিয়ে উর্ধত্বন কর্তৃপক্ষকে বার বার অবহিত করা হলেও অদ্যাবধি কোন কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহন করা হয় নি।
কানাইঘাটে বিশ্ব ম্যালেরীয়া দিবস উদযাপিত

কানাইঘাটে সীমান্তিকের উদ্যোগে বিশ্ব ম্যালেরিয়া দিবস উপলক্ষ্যে গত সোমবার সকাল ১০টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্ থেকে এক বর্ণাঢ্য রেলী বের হয়। রেলীটি বাজার প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা ইউ.টি.ডি.সি হলে গিয়ে শেষ হয়। পরে সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ শামছুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে উপজেলা ইউ.টি.ডি.সি হলে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাতী রানী দাস, ডাঃ অরুপ কুমার ভৌমিক, কানাইঘাট সীমন্তিকের কর্মকর্তাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্রজেক্ট ম্যানেজার আবুল হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে জনগণের কাছ থেকে সংগৃহীত মশারি কীটনাশক মিশ্রিত পানিতে চুবিয়ে দেওয়া হয় এবং মশার উপদ্রব থেকে বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করা হয়। বিকেল ৪টায় গণসচেতনতা সৃষ্টির ল্যে ম্যালেরীয়া সংক্রান্ত একটি জারি গানের আয়োজন করা হয়।
কানাইঘাট বড়দেশ শামীম কিন্ডারগার্টেনে
বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান

কানাইঘাট বড়দেশ শামীম কিন্ডার গার্টেনের উদ্যোগে স্কুলের চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির বৃত্তি প্রাপ্ত কৃতি শিক্ষার্থীদের এক সংবর্ধনা অনু্ষ্ঠান গত ১০ এপ্রিল সকাল ১১টায় স্কুল প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। শামীম কিন্ডারগার্টেনের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ডাক্তার শামীম আহমদের সভাপতিত্বে এবং উবায়দুর রহমানের পরিচালনায় উক্ত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কানাইঘাট মহিলা কলেজের অধ্য সিরাজুল ইসলাম, ৭নং দণি বানীগ্রাম ইউপি'র চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ, ৭নং বানীগ্রাম ইউপি আ'লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদ, বড়দেশ ডাঃ মুজম্মিল আলী ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্টের সচিব, মখলিছুর রহমান মেম্বার। বক্তব্য রাখেন ডাঃ ফারুক আহমদ, সমাজসেবী জামিল আহমদ, স্কুলের প্রধান শিকিা আলেয়া বেগম, সহকারী শিক শাহীন আহমদ, বিদায়ী সংবর্ধিত সহকারী শিক আজমল হোসেন, বৃত্তিপ্রাপ্ত শিার্থী হেনা বেগম প্রমুখ। ছাত্র ছাত্রীদের অবিভাবক ও এলাকার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে প্রতিষ্ঠান থেকে বৃত্তি প্রাপ্ত ২০জন মেধাবী শিার্থী কে সংবর্ধনা ও ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। এছাড়া স্কুলের সহকারী শিক আজমল হোসেনের বিদায় উপল্যে প্রতিষ্ঠানের প থেকে তাকেও সংবর্ধনা ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।
কানাইঘাট পৌর মিনিকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

কানাইঘাট পৌর মিনিকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলা গত বুধবার স্থানীয় ডালাইচর মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। যুবলীগ নেতা এনামুল হকের সভাপতিত্বে কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আ'লীগের লুৎফুর রহমান প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী দলের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, জেলা যুবলীগ নেতা আব্দুল হেকিম শামীম, পৌর কাউন্সিলার তাজ উদ্দিন প্রমুখ।
জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের অর্থায়নে
কানাইঘাট পৌরসভার প্রকল্প বাস্তবায়নে কর্মশালা অনুষ্ঠিত

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের উদ্যোগে গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টায় কানাইঘাট উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে কানাইঘাট পৌর এলাকার নাগরিকদের বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন, ড্রেনেজ ও বজর্্য ব্যবস্থাপনার আওতায় আনার ল্যে খসড়া মাষ্টার প্ল্যানের উপর এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের উধর্্বতন কর্মকর্তা পৌরসভার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও পৌর কাউন্সিলারদের উপস্থিতিতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের অর্থায়নে উল্লেখিত প্রকল্প বাস্তবায়নের চিত্র তুলে ধরে কর্মশালায় প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করেন সিলেট জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের কর্মকর্তা আব্দুল কাদির চৌধুরী ও বাবুল আখতার। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত) এমরান হুসেনের সভাপতিত্বে উক্ত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র লুৎফুর রহমান। কর্মশালায় পৌর এলাকার জনসাধারণের জন্য বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন, ড্রেনেজ ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনার উপর মতামত তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রফিক আহমদ, জালাল আহমদ, পৌর বিএনপির সভাপতি হাজী ইফজালুর রহমান, সমাজসেবী আলাউদ্দিন মামুন, বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী আব্দুল হেকিম শামীম, সাংবাদিক নিজাম উদ্দিন প্রমুখ। উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশের ১২টি পৌরসভার জন্য জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের অর্থায়নে উক্ত প্রকল্প সমূহ বাস্তবায়নের অধীনে কানাইঘাট পৌরসভাকে অন্তর্ভর্ূক্ত করা হয়েছে। এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রায় ৫০ কোটি টাকা ব্যয় হবে বলে পৌর মেয়র লুৎফুর রহমান জানিয়েছেন।

Kanaighat News on Friday, April 15, 2011 | 11:02 AM

নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে র্ষ উদযাপিত


কানাইঘাটে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও আনন্দঘন পরিবেশে এবং বাঙ্গালীর চিরাচরিত নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ উদ্যাপিত হয়েছে। শুভ বাংলা নববর্ষ ১৪১৮, ১লা বৈশাখের শুভণে মেঘলা আকাশ, মৃদু বাতাসের মধ্য দিয়ে এক অন্যরকম পরিবেশে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক, সামাজিক সংগঠন ছাড়া শিা প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে দিনভর নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বাঙ্গালী জাতির ঐতিহ্যধারায় কিশোর-কিশোরী, তরুণ-তরুণীসহ সবপেশার মানুষ বাঙ্গালীর চিরচেনা নকশী কাঁথার নানা ডিজাইনের অনেক রকম বাংলা ফ্যাশনের পোশাক পরে, হৈ-হুল্লোড় করে বর্ষবরণের দিনটি উদ্যাপিত করেন। বাংলা নববর্ষ উপল্েয কানাইঘাট বাজারে রাতে কানাইঘাট বাউল বহুমুখী সমবায় সমিতির উদ্যোগে বাংলার ঐতিহ্য তুলে ধরে বাউলগান পরিবেশন করে অনুষ্ঠানস্থল মাতিয়ে তুলেন সংগঠনের সভাপতি বিশিষ্ট্য বাউল শিল্পী বিশিষ্ট দেওয়ান কালা মিয়া। এদিকে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় গাছবাড়ী মডার্ণ একাডেমি শাখার উদ্যোগে দিনভর একাডেমি মাঠে এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পান্তা - ডাল ভাতের উৎসব, আলোচনা সভা ও বর্ণাঢ্য র‌্যালীর আয়োজন করা হয়।এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন কানাইঘাট প্রেসকাবের প্রতিষ্ঠাতা সহসভাপতি,সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিম। সমাজসেবি ওলিউর রহমানের সভাপতিত্বে এবং শিক আবু হানিফের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন আলহাজ বশির আহমদ উচ্ছবিদ্যালয়ের প্রধান শিক নুরুল আমিন.লন্ডন প্রবাসী এডঃআব্দুছ ছাত্তার,গাছবাড়ী ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ এর শিক আল-আমিন আকন্দ.হাছন চিশতি।স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাউবির সমন্বয়কারী আব্দুল হক। এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে বর্ষবরণ উপল্েয র‌্যালী ও ভ্রাম্যমান বাউল গানের আয়োজন করা হয়।
৪৬ বোতল অফিসার্স চয়েস মদসহ দু’জন গ্রেফতার
কানাইঘাট থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সকাল ১১টায় থানার পশ্চিম পাশের বুরহান উদ্দিন রোডে’র লতিফ ম্যানশনের পাশ থেকে সিএনজি সহ ৪৬ বোতল ভারতীয় অফিসার্স চয়েস মদসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে। জানা যায়, চতুল ইউপি’র কুড়ার পাড় গ্রামের নূর উদ্দিন (৪০) এর বাড়ি থেকে উপজেলা সদরে থানার সম্মুখে আসা মাত্র গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার এস.আই.হাবিব আহমদ একদল পুলিশ ফোর্স নিয়ে সীমান্তের সুরাইঘাট থেকে আসা (সিলেট-থ-১২-৩৭০৭) নাম্বারের সিএনজি লতিফ ম্যানশনের সামনে গতিরোধ করলে একজন পালিয়ে গেলেও ৪৬ বোতল মদ ও সিএনজিসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করতে সম হয় পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হল, কানাইঘাট ৭নং দণি বাণীগ্রাম ইউনিয়নের সরদারী পাড়া গ্রামের সুন্দর আলীর পুত্র মাদক ব্যবসায়ী সেলিম উদ্দিন (২৫) এবং একই গ্রামের গোলাম হায়দারের পুত্র সিএনজি চালক শহিদ আহমদ (২০) কে আটক করা হলেও আজমল নামে অপর এক মাদক ব্যবসায়ী পলায়ন করে। গ্রেফতার কৃতদের বিরুদ্ধে পুুলিশ বাদী হয়ে গতকাল মাদক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করেছে।
গাছবাড়ীতে সংবর্ধনা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্টান
সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার সামাজিক,অরাজনৈতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গাছবাড়ী সমাজ কল্যাণ যুব সমিতির উদ্যোগে সংবর্ধনা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান গতকাল মংগলবার বিকেল ৪ টায় অনুষ্টিত হয়। স্থানীয় গাছবাড়ী কামিল মাদ্রাসা মাঠে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা পরিষদের নির্বাহী অফিসার,উপ সচিব হারুনুর রশিদ মোল্লা। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, যুব সমাজকে একটি সুখী সুন্দর ও জন কল্যাণমুখী সমৃদ্দশালী সমাজ গড়ার কাজে এগিয়ে আসতে হবে । নিরলসভাবে নিজেকে সমাজ কল্যাণমুলক কার্যক্রম পরিচালনায় অংশ নিলে সার্র্বিক সমাজ ব্যবস্থায় উন্নয়ন অগ্রগতি সুনিশ্চিত হবে। তিনি গাছবাড়ী সমাজ কল্যাণ যুব সমিতির বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের ভুয়শী প্রশংসা করেন।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরী , গাছবাড়ী জামি উল উলুম কামিল মাদ্্রাসার প্রিন্সিপাল হাফিজ মাওলানা আব্দুর রহিম,গাছবাড়ী মডার্ণ একাডেমীর প্রধান শিক মিফতাহুল বর চৌধুরী, সহ প্রধান শিক ভানুরাম বৈদ্য, আব্দুল মজিদ, কাকুরাস্থ জমশেদ আহমদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক জালাল উদ্দিন, আলহাজ্ব বশির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক নুরুল আমীন, ঝিংগাবাড়ী ইউপির চেয়ারম্যান সইফ উল্লাহ, সাবেক চেয়ারম্যান মাওলানা ফজলে হক, দণি বানীগ্রাম ইউপির চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ, গাছবাড়ী সমাজ কল্যাণ যুব সমিতির সাবেক সভাপতি শিাবীদ আব্দুল মতিন, মাহমুদ হোসেন, আবু শহিদ শিকদার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এখলাছুর রহমান এখলাছ, কানাইঘাট প্রেসকাবের প্রতিষ্ঠাতা সহসভাপতি দেলওয়ার হোসেন সেলিম, প্রবীন মুরব্বী হাজি শামসুদ্দীন, প্রবাসী আবুবক্কর সিদ্দিকী, গাছবাড়ী বাজার ব্যাবসায়ী কমিটির সভাপতি হাজী আব্দুল মৌলা ও উত্তর বাজার ব্যাবসায়ী কমিটির সভাপতি হাজী কুতুব উদ্দীন। গাছবাড়ী সমাজ কল্যাণ যুব সমিতির সভাপতি আতাউর রহমান আক্তার- এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শাহ নেওয়াজ খসরু পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন নাজিম উদ্দীন, রেজওয়ানুল করিম, আব্দুর রহিম,বজলুর রহমান, শ্রী শ্যামল চন্দ চন্দ্র, আব্দুল লতিফ প্রমুখ।শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন ফিরুজ বখত। স্বাগত বক্তব্য রাখেন হারুণ রশিদ। প্রধান অতিথিকে মানপত্র প্রদান করেন মতিউর রহমান। উক্ত অনুষ্ঠানে এলাকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে এসএসসি- দাখিল উত্তির্ণ, ৫ম ও ৮ম শ্রেণীতে বৃত্তিপ্রাপ্ত, ৪র্থ শ্রেণীর মেধা যাচাই প্রতিযোগিতায় উত্তির্ণ মোট ৪৭ জন কৃতি শিার্থীদেরকে বৃত্তি হিসেবে নগদ টাকা এবং প্রশংসাপত্র এবং সমিতির ২৯ জন আজীবন সদস্যকে সংবর্দনা ও সার্টিফিকেট বিতরন করেন প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ। (বিজ্ঞপ্তি)।

Kanaighat News on Tuesday, April 12, 2011 | 3:04 PM

কানাইঘাট কুরআনী আইন সংরক্ষণ কমিটির সমাবেশ আজ
নারী উন্নয়ন নীতিমালার কুরআন সুন্নাহ বিরোধী ধারাসমূহ বাতিল এবং ফতোয়া বিরোধি রায় নিষিদ্ধকরণের প্রতিবাদে আজ ১২ এপ্রিল মঙ্গলবার বিকাল ২ ঘটিকার সময় কানাইঘাট ডাকবাংলা মাঠে কুরআনী আইন সংরক্ষণ কমিটি কানাইঘাট উপজেলা শাখার উদ্যোগে এক বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন কুরআনী আইন সংরক্ষণ কমিটি, সিলেট জেলা শাখার উপদেষ্টা মন্ডলীর অন্যতম সদস্য আল্লামা শফীকুল হক আমকুনী। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন কুরআনী আইন সংরক্ষণ কমিটি, সিলেট জেলা শাখার সিনিয়র সহসভাপতি আল্লামা আলীমুদ্দীন দুর্লভপুরী, সহসভাপতি আল্লামা ইউছুফ শ্যামপুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মোস্তাক আহমদ খাঁন রস্তুমপুরী সহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।প্রতিবাদ সমাবেশকে স্বার্থক করে তোলার জন্য সর্বস্তরের মুসলিম জনসাধারণের প্রতি আহবান জানিয়েছেন কুরআনী আইন সংরক্ষণ কমিটি। -বিজ্ঞপ্তি
কানাইঘাটে ধনাঢ্য ব্যবসায়ীর বাড়ীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি নগদ ১১লক্ষ টাকা, ৩০ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুট
কানাইঘাট উপজেলার ৩নং দীঘিরপার ইউনিয়নের ছত্রনগর গ্রামে গত রবিবার গভির রাতে স'ানীয় সড়কের বাজারের এক ধনাঢ্য ব্যবসায়ীর বাড়ীতে এক দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংগঠিত হয়েছে। ১৫/১৬ জনের একদল সশ্বস্ত্র ডাকাতদল ঐ ব্যবসায়ীর এক তলা পাকা বাড়ির কলাপ্সেবল গেইটের তালা ভেঙ্গে ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ অনুমানিক ১১লক্ষ টাকা এবং ৩০ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৫টি মোবাইল সেট লুট করে নিয়ে যায়। গতকাল সকালে সরজমিনে ঘটনাস'লে গেলে বাড়ির গৃহকর্তা হাজী সৈয়দুর রহমান ও তার পুত্র সড়কের বাজারের আল রহমান ট্রেডার্সের সত্ত্বাধিকারী ও কাতার প্রবাসী মোঃ আব্দুল্লাহ জানান, রবিবার রাত অনুমানিক সাড়ে ৩টার সময় ১৫/১৬জনের একদল ডাকাত ঘরের কলাপ্সেবল গেইটের তালা ভেঙ্গে প্রথমে বাড়ির গৃহ পরিচারক কুতুব উদ্দিনের হাত-পা বেঁধে ফেলে। পরে ডাকাতরা গৃহকর্তা সৈয়দুর রহমানের কক্ষে প্রবেশ করে তাকেসহ পরিবারের নারী-পুরুষ সবাইকে মারধর করে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত-পা বেধে রাখে। এ সময় ডাকাতরা বাড়ির মহিলাদের গলায়-কানে-হাতে থাকা স্বর্ণালঙ্কার জোর পূর্বক ভাবে কেড়ে নিয়ে একে একে পাকা বাড়ির ৮টি কক্ষে প্রবেশ করে ৪টি কক্ষের ১১টি কাঠের সোকেস, আলমারী ও ওয়াডড্রফ ভেঙ্গে দামী জিসিনপত্র তছনছ ও ভাংচুর করে ফেলে রেখে বিভিন্ন স'ানে রক্ষিত ১১লক্ষ টাকা, ৩০ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৫টি মোবাইল সেট লুট করে প্রায় আধ ঘন্টাব্যাপী ডাকাতি সংগঠিত করে বাড়ির সবাইকে টয়লেট রুমে আটকে রেখে নির্বিঘ্নে পালিয়ে যায়। পরে তাদের আর্তচিৎকারে গ্রামবাসী এগিয়ে এসে বাড়ির সবাইকে জিম্মি থেকে উদ্ধার করেন। ঘটনার খবর পেয়ে ভোরে উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরী ও পরে ভাইস চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান ইকবাল সহ সড়কের বাজারের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ ও এলাকার শত শত লোকজন ব্যবসায়ীর বাড়িতে গিয়ে তাদের শান-না দেন ও ভিড় জমান। ডাকাতির ঘটনাটি গতকাল ভোরে কানাইঘাট থানা পুলিশ প্রশাসনকে অবহিত করার পরও থানার অফিসার ইনচার্জ শফিকুর রহমান খান ও ওসি তদন- রুহুল আমিন একদল পুলিশ নিয়ে সকাল ১১টার সময় ঘটনাস'লে পৌঁছেন বলে স'ানীয় লোকজন জানান। এদিকে ধনাঢ্য ব্যবসায়ীর বাড়ীতে এ দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনায় এলাকায় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে। স'ানীয় লোকজন জানান, কানাইঘাট ও জকিগঞ্জ থানা পুলিশের পেট্রল ডিউটিরত পুলিশ ফোর্সের টহল সত্বেও জকিগঞ্জ-সিলেট সড়কের পাশে এবং সড়কের বাজারের অদূরে অবসি'ত ব্যবসায়ীর বাড়িতে নির্বিঘ্নে ডাকাতি সংগঠিত হওয়ায় তারা হতবাক হয়েছেন। এ দিকে সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালূকদার ও নবাগত সিলেট উত্তর সার্কেলের এ.এস.পি দিনা রাণী দাস গতকাল বেলা ১২টার দিকে ঘটনাস'ল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় ব্যবসায়ী মো: আব্দুল্লাহ বাদী হয়ে গতকাল থানায় অজ্ঞাতনামা বেশ কয়েকজনকে আসামী করে একটি ডাকাতি মামলা দায়ের করেছেন। উল্লেখ্য, সমপ্রতি কানাইঘাটের বিভিন্ন স'ানে বেশ কয়েকটি দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা সংগঠিত হওয়ায় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
কানাইঘাটে ক্যারীকাব সহ গাছের ছাল আটক
কানাইঘাট উপজেলা বিট অফিসের কর্মকর্তারা গতশনিবার রাতে কানাইঘাট পূর্ব বাজারের ডাক বাংলো ডালাইচর সড়কে এক অভিযান চালিয়ে। ৩০বস্তা ভারতীয় মেন্দা (চ্যাং ফিসলা) গাছের ছাল আটক করেছে। দীর্ঘদিন ধরে একটি চোরাকারবারী চক্র কানাইঘাটের সীমান্তবর্তী লোভা নদী দিয়ে ভারত থেকে চোরাই পথে উক্ত গাছের ছাল নিয়ে এসে সিলেট শহর ও জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুর বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করে আসছিল। গত শনিবার রাত ১১টার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা বিট কর্মকর্তা মায়রুফ বিল্লার নেতৃত্বে এক অভিযান চালিয়ে ৩০বস্তা মেন্দা গাছের ছাল এবং বহন কারী (সিলেট, ছ-১১-০৯৯৩) নাম্বারের একটি ক্যারিকাব আটক করে বিট অফিসে নিয়ে যান। আটককৃত মেন্দা গাছের ছালের মূল্য অনুমানিক ৪০হাজার টাকা হবে বলে জানা গেছে। উক্ত গাছের ছাল দিয়ে মশার কয়েল এবং আগরবাতি তৈরি করা হয় বলে বিট কর্মকর্তা জানিয়েছেন। এ ঘটনায় বিট অফিসের কর্মকর্তা মায়রুফ বিল্লাহ বাদী হয়ে গতকাল বন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

Kanaighat News on Saturday, April 2, 2011 | 4:14 PM

কানাইঘাটে নানা অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে

দুর্নীতি প্রতিরোধ সপ্তাহ পালিত

উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে বিভিন্ন শিা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে ২৬শে মার্চ কানাইঘাট চড়িপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দিনব্যাপী দুর্নীতি বিরোধী বক্তিতা, কবিতা আবৃত্তি, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতাসহ দুর্নীতি বিরোধী স্লোগান সম্বলিত লিফলেট বিতরণ সভা-সেমিনারের আয়োজন করা হয়। প্রতিরোধ সপ্তাহের সমাপনী দিনে ১এপ্রিল শুক্রবার বেলা ৪টার সময় কানাইঘাট বাজারে বিভিন্ন পেশার লোকজনের অংশগ্রহনে মানব বন্ধন র্যালী পরবর্তীতে ডাক বাংলোয় আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মাষ্টার ফয়জুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সাংবাদিক নিজাম উদ্দিনের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, প্রতিরোধ কমিটির সহসভাপতি প্রভাষক আহমদ হোসেন, সদস্য ডাঃ হোসেন আহমদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলীম উদ্দিন, সাংবাদিক মাহবুবুর রশিদ, কানাইঘাট শিক কল্যাণ ট্রাষ্টের সচিব মাষ্টার মোহাম্মদ আলী, সাংবাদিক কাওছার আহমদ, আব্দুন নুর, কানাইঘাট বাজার ুদ্র ব্যবসায়ী সমিতির কোষাধ্য নজরুল ইসলাম (রুকন), ব্যবসায়ী রফিক আহমদ, ফরিদ উদ্দিন প্রমুখ। সভায় বক্তারা দুর্নীতিমুক্ত সমৃদ্ধ দেশ গঠনে সবার আগে রাজনৈতিক দলের নেতা মন্ত্রি, এম.পি, প্রশাসনিক কর্মকর্তা কর্মচারী এবং জনপ্রতিনিধিদের দুর্নীতি বন্ধে দুদককে পূর্ণ স্বাধীনতার জন্য সরকারের প্রতি জোর-দাবী জানান।
 
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: মো:মহিউদ্দিন,সম্পাদক : মাহবুবুর রশিদ,নির্বাহী সম্পাদক : নিজাম উদ্দিন। সম্পাদকীয় যোগাযোগ : শাপলা পয়েন্ট,কানাইঘাট পশ্চিম বাজার,কানাইঘাট,সিলেট।+৮৮ ০১৭২৭৬৬৭৭২০,+৮৮ ০১৯১২৭৬৪৭১৬ ই-মেইল :mahbuburrashid68@yahoo.com: সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত কানাইঘাট নিউজ ২০১৩