Kanaighat News on Thursday, March 31, 2011 | 9:04 PM

মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ নিহত ১ আহত ৩০


কানাইঘাটে একটি সরকারী গোপাটে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ১জন নিহত ও উভয় পক্ষের ৩০জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ৩নং দিঘীর পাড় পূর্ব ইউপির মানিকপুর ও ধনমাইর মাটি গ্রামের মধ্যে একটি সরকারী গোপাটের মালিকানা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল। গত রবিবার মানিক পুর গ্রামের লোকজন সকাল ১০টায় উক্ত বিরোধ পূর্ণ গোপাটে মাছ ধরতে যায়। এ খবর পেয়ে ধনমাইর মাটি গ্রামের লোকজন এসে মাছ ধরতে বাধাঁ দেয় এবং উক্ত সরকারী গোপাটটি তাদের গ্রামের অংশ বলে দাবী করে। এতে উভয় পরে মধ্যে বাক বিতন্ডার এক পর্যায়ে তুমুল সংঘর্ষ শুরু হয়। প্রায় ঘন্টা ব্যাপী এ সংঘর্ষে দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে উভয় প ে৩০জন আহত হয়। আহতরা হলেন, করিম উদ্দিন (৩৫), জুনেদ আহমদ (১৫), রফিকুল হক (৭০), বাহারুল ইসলাম (৪০), আব্দুল মন্নান (৫০), বাবুল আহমদ (৩৩), আব্দুল লতিফ (৩৫), নিজাম উদ্দিন (৩৫), আব্দুল ওদুদ (২৮), আনিছুল হক (৫৩), আব্দুল মনাফ (১৮), বুরহান উদ্দিন (২০), আব্দুল বাছিত (২৫), কয়ছর (২৫), রবি নমঃ (৭০), আব্দুল হাফিজ (২৬), ফয়ছল আহমদ (২৩), আব্বাস উদ্দিন (১৬), কুতুব উদ্দিন (৫৫), ফখর উদ্দিন (৫৫), শফিক উদ্দিন (৪০), নজরুল (১৮), ছামস উদ্দিন (৪৫), আলী আহমদ (৫০), আব্দুল আজিজ (৩২) ও মাহবুব উদ্দিন (২৩)। খবর পেয়ে কানাইঘাট থানার এস.আই. হাবিবসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে এবং স্থানীয় লোকদের সহায়তায় আহতদের কানাইঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েভর্তি করে। আহতদের মধ্যে ধনমাইর মাটি গ্রামের আব্দুল করিম, জুনেদ আহমদ এবং মানিকপুর গ্রামের কতুব উদ্দিনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদেরকে সিলেট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বিকেল ৪টায় উসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুবাই প্রবাসী আব্দুল করিম (৩৫) মৃতু্য বরণ করে। মৃতু্যর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করে। এ ঘটনায় মৃতের ভাই ধনমাইর মাটি গ্রামের ফয়েজ উদ্দিন বাদী হয়ে থানায় মামলা (নং ২৫) ২৭/৩/১১) দায়ের করেন। মামলার এজহারভুক্ত মানিকপুর ও হিম্মতের মাটি গ্রামের ১১জন আসামীকে পুলিশ কানাইঘাট থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ ও উপজেলা সদর থেকে গ্রেফতার করে। এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে সিলেট উত্তর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল কাদির সরেজমিন পরিদর্শন করে এলাকায় শান্তি শৃঙ্খলা রায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করেছেন বলে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুর রহমান খান জানিয়েছেন।

স্বর্ণ পদকপ্রাপ্ত মুহিব খান মাতিয়ে গেলেন কানাইঘাট

স্বর্ণ পদকপ্রাপ্ত জাগ্রত কবি মুহিব খান ইসলামী সংগীত গেয়ে মাতিয়ে গেলেন কানাইঘাটবাসীকে। চলমান অপসংস্কৃতিকে রুখতে কানাইঘাট সাংস্কৃতিক ফোরামের উদ্যোগে গত শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে ইসলামী সংগীত অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে মুহিব খান ছাড়াও ঢাকা থেকে আগত বিভিন্ন শিল্পী গোষ্ঠির সদস্যবৃন্দ ইসলামী সংগীত পরিবেশন করে শ্রোতাদের মুগ্ধ করলেন। ফোরামের সভাপতি হাফিজ রিয়াজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জকিগঞ্জ উপজেলার পরিষদের চেয়ারম্যান ছাবি্বর আহমদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট প্রেসকাবের সভাপতি এম.এ.হান্নান, কানাইঘাট বাজার বণিক সমিতির কোষাধ্য বিলাল আহমদ প্রমুখ।
কানাইঘাটে ওপেন হাউজডে অনুষ্ঠিত অপরাধী যেই হোক তা'কে আইনের আওতায় আনতে হবে ----------বিপ্লব বিজয় তালুকদার
দেশব্যাপী মরনঘাতী মাদকের ছোবল থেকে আমাদের যুব সমাজকে যে কোন মূল্যে রা করতে হবে। এ অভীষ্ট ল্যে পৌছার জন্য অভিভাবকসহ সমাজের সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। মাদকসেবী, মাদক ব্যবসায়ী ও দুর্নীতিবাজদেরকে কোন প্রকার রাজনৈতিক আশ্রয়-প্রশ্রয় দেওয়া যাবে না। অপরাধী যেই হোক তা'কে আইনের আওতায় আনতে হবে। সমাজে শান্তি শৃঙ্খলা রা, দূর্নীতি প্রতিরোধ তথা সমাজকে কলুষ মুক্ত করা শুধু পুলিশের প েএকা সম্ভব নয়। এ জন্য সমাজের প্রত্যেককে নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসতে হবে। গতকাল কানাইঘাট থানা পুলিশের উদ্যোগে আয়োজিত "ওপেন হাউজডে" তে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুর রহমান খাঁনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র লুতফুর রহমান, জকিগঞ্জ ও উত্তর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল কাদির। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, পৌর আ'লীগের আহ্বায়ক জামাল উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নাজমুল ইসলাম হারুন, কানাইঘাট প্রেসকাবের দপ্তর সম্পাদক নিজাম উদ্দিন। পুলিশ প্রশাসনকে মফস্বল এলাকার অপরাধ মূলক কর্মকান্ডের আগাম সংবাদ জানাতে সিলেটের পুলিশ সুপারের প থেকে উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ৯জন গ্রাম পুলিশ (দফাদারকে) ১টি করে সিমসহ মোবাইল সেট প্রদান করা হয়।

Kanaighat News on Tuesday, March 29, 2011 | 7:46 AM


কানাইঘাটে স্বাধীনতাকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে জৈন্তাপুর চ্যাম্পিয়ন

সিলেটের কানাইঘাট আগফৌদ নারাইনপুর সুর্য তরুন স্পোর্টিং কাব আয়োজিত তৃতীয় তম স্বাধীনতা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে জয়ী হয়েছে জৈন্তাপুর লপ্রিসাদ নবীন স্পোর্টিং কাব। বিপুল উতসাহ উদ্দীপনায় গত ২৬মার্চ শনিবার গাছবাড়ি বাজার পশ্চিম মাঠে বিকেল ৩টায় উক্ত টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয় । ফাইনালে জৈন্তাপুর নবীণ স্পোর্টিং কাব, কানাইঘাট ফ্রেন্ডশীপ কাবকে ৫Ñ৪ গোলে পরাজিত করে । সমগ্র খেলায় দু’টি দলই আক্রমণাত্বক খেলতে থাকে। ফলে ১Ñ১ গোলে ড্র হয়। প্রচলিত নিয়মে ট্রাইবেকারে খেলা সম্পন্ন হয়েছে।খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাকসুর সাবেক আপ্যায়ন সম্পাদক সমাজসেবী ও শিল্পপতি মামুনুর রশীদ মামুন। টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটির সভাপতি ওলিউর রহমানের সভাপতিত্বে এবং সুর্য তরুন স্পোর্টিং কা বের সাধারণ সম্পাদক ময়নুল হোসেন ও শিক ইমদাদুর রহমানের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাবের উপদেষ্ঠা জালাল উদ্দিন,কানাইঘাট প্রেসকাবের প্রতিষ্ঠাতা সহসভাপতি দেলওয়ার হোসেন সেলিম, লন্ডন প্রবাসী কমিউনিাট নেতা এডভোকেট আব্দুস সাত্তার, সিলেট নিউজ টোয়েন্টি ফোর ডট নেট’র ডিরেক্টর কামরুল ইসলাম,সাংবাদিক সাদিকুর রহমান সাদিক,সুবর্ণা হামিদ,রতœা তামান্না,যুবনেতা নজরুল ইসলাম, সৌদি আরব প্রবাসী আব্দুর রহিম, ক্রীড়ানুরাগী আব্দুল মালিক ও ঝিংগাবাড়ী ইউপির সাবেক সদস্য আজিজুর রহমান। অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রবীণ মুরব্বী আব্দুল খালিক,আব্দুল মালিক বাউলা,জামাল উদ্দিন,ফারুক আহমদ,আবুল হোসেন ,আম্বিয়া,সুয়াইব প্রমুখ। রেফারী ছিলেন আনেয়ার হেসেন সাজু। সহযোগীতায় চৌদুরী আবু সুফিয়ান ও আব্দুল হামিদ। ধারা ভাষ্যকার হাসান আহমদ। প্রধান অতিথি বিজয়ীদের মধ্যে একটি মোটর সাইকেল এবং বিজিতদের মধ্যে একটি রঙিন ২৪র্ র্ রঙিন টেলিভিশন বিতরণ করেন।

মহান স্বাধীনতা দিবস

Kanaighat News on Monday, March 28, 2011 | 8:47 AM

কানাইঘাটে মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত

কানাইঘাটে যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগম্বীর পরিবেশে ৪০তম মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দিবসের প্রথম প্রহরে ১২টা ১মিনিটে উপজেলা প্রশাসন, এরপর থানা পুলিশ, বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ পুষ্পমাল্য অর্পন করেন। এছাড়া দিনব্যাপী উপজেলার বিভিন্ন শিাপ্রতিষ্ঠান ও সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজ : মহান স্বাধীনতা দিবস উপল্যে কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজের উদ্যোগে দিনব্যাপী ক্রীড়া-সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্য শামসুল আলমের সভাপতিত্বে ও স্টাফ কাউন্সিলের সচিব ফরিদ আহমদের পরিচালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র লুৎফুর রহমান। বক্তব্য রাখেন সহকারী অধ্যাপক হাবিব আহমদ, সিরাজুল হক, বশির উদ্দিন আহমদ,দেলোয়ার হোসেন, শফিউল আজম চৌধুরী, ক্রীড়া শিক ওলিউর রহমান, লাইব্রেরীয়ান নুরুল আলম প্রমুখ।

বীরদল এন.এম একাডেমী: মহান স্বাধীনতা দিবস উপল েবীরদল এন.এম একাডেমীতে দিনব্যাপী ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আলোচনা সভা ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক মোঃ জার উল্লার সভাপতিত্বে এবং সহকারী প্রধান শিক মোঃ মহিউদ্দিন ও সিনিয়র শিক কাজী নজরুল ইসলাম এর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী সিলেট এম.সি কলেজের সাবেক ভিপি খসরুজ্জামান(খসরু),বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও অবসরপ্রাপ্ত প্রাইমারী শিক মো আলাউর রহমান,সদস্য মোঃইলিয়াস আলী,তরুন সমাজসেবী মো:শামীম আহমদ,বীরদল বহুমূহী সমবায় সমিতির সদস্য মামুনুর রশীদ মামুন,বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক মোঃদিলদার আহমদ,মোঃমিছবাউল আলম,স্কাউট শিক মোঃশাহাব উদ্দিন প্রমূখ।

রামিজা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়: মহান স্বাধীনতা দিবস উপল্যে কানাইঘাট রামিজা বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে দিনব্যাপী ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক মামুন আহমদের সভাপতিত্বে ও সহকারী শিক শামিম আহমদের পরিচালনায় বিজয়ী শিাথর্ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন পৌর মেয়র লুৎফুর রহমান, এডভোকেট মামুন আহমদ, কাউন্সিলার আব্দুল মালিক, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আব্দুন নুর, ছাত্রনেতা নাজমুল ইসলাম হারুন, সাংবাদিক নিজাম উদ্দিন, কাওছার আহমদ প্রমুখ।

গাছবাড়ী মডার্ণ একাডেমী: মহান স্বাধীনতা দিবস উপল্যে কানাইঘাট উপজেলার গাছবাড়ী মডার্ণ একাডেমীতে দিনব্যাপী ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। ম্যনেজিং কমিটির সভাপতি ওলিউর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন একাডেমীর সাবেক শিক, লন্ডন প্রবাসী এডভোকেট আব্দুস সাত্তার। বিশেষ অতিথি বক্তব্য রাখেন সিলেট নিউজ টোয়েন্টি ফোর ডট নেট'র পরিচালক কামরুল ইসলাম,কানাইঘাট প্রেসকাবের প্রতিষ্ঠাতা সহ সভপতি দেলওয়ার হোসেন সেলিম,সাংবাদিক সাদিকুর রহমান সাদিক,সুবর্ণা হামিদ,রত্না আহমদ তামান্না, গাছবাড়ী সমাজ কল্যাণ যুব সমিতির সভাপতি আতাউর রহমান আক্তার,অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক মাহমুদ হোসেন, সমাজসেবী জালাল উদ্দিন,প্রবাসী আব্দুল মালিক। সহকারী শিক আবু হানিফের পরিচালনায়আরো বক্তব্য রাখেন সিনিয়র শিক আব্দুল মতিন, ফরিদ উদ্দিন, আাব্দুল হক,আসাদুজ্জামান,ক্রীড়া শিক এবাদুর রহমান, শিউলি খাতুন,করম উল্লাহ,নুরে আলম সিদ্দিকী,মাহফুজুর রহমান প্রমুখ।স্বাগত বক্তব্য রাখেন আব্দুল মজিদ। কোরআন তেলাওয়াত করেন দশম শ্রেণীর ছাত্র ইমদাদুর রহমান।

মানিকগন্জ উচ্চ বিদ্যালয়: কানাইঘাট উপজেলার মানিকগন্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে আয়েজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সমাজসেবী ও শিানুরাগী মামুনুর রশিদ মামুন। প্রধান বক্তা ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান ইকবাল। বিশেষ অতিথি ছিলেন দণি বানীগ্রাম ইউপির চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ। সভাপতিত্ব করেন প্রধান শিক এখলাছে এলাহী। যৌথভাবে উপস্থাপনা করেন সহকারী প্রধান শিক শাাহাব উদ্দিন ও সিনিয়র শিক এনামুল হক। শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন ১০ম শ্রেণীর ছাত্র মহিউদ্দিন জাবের।

আগফৌদ নারাইনপুর পুরাতন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়: কানাইঘাট উপজেলার আগফৌদ নারাইনপুর পুরাতন সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে। বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কানাইঘাট পৌর সভার মেয়র লুৎফুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন সমাজসেবী নিজাম উদ্দিন আল মিজান,কানাইঘাট মহিলা কলেজের প্রিন্সিপাল সিরজুল ইসলাম,কানাইঘাট থানার অফিআর ইনচার্জ শফিকুর রহমান খান,উপজেলা সহকারী শিা অফিসার আাব্দুল বাছিত,কানাইঘাট প্রেসকাবের প্রতিষ্টাতা সহ সভাপতি দেলওয়ার হেসেন সেলিম, সিলেট নিউজ টোয়েন্টি ফোর ডট নেট'র পরিচালক কামরুল ইসলাম, সাংবাদিক সাদিকুর রহমান সাদিক,সুবর্ণা হামিদ,রত্না আহমদ তামান্না, সাবেক ইউপি সদস্য আলহাজ্ব নুরুল হক,কানাইঘাট পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক জামাল উদ্দিন, উপজেলা ছাত্র লীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম হারুন। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং সহ শিক সাবি্বর আহমদের পরিচালনায় অন্যান্রে মধ্যে বক্তব্য রাখেন ম্যানেজিং কমিটির সহ সভাপতি হাবিবুর রহমান, দাতা সদস্য শ্রী শ্যামল চন্দ্র চন্দ ,সহ শিক আবুল কালাম, আমিন উদ্দিন,আলেয়া বেগম,হালিমা বেগম। ৫ম শ্রেণীর ছাত্র আলমগীর হোসেনের কন্ঠে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে সুচিত স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক নুরুল ইসলাম।

Kanaighat News on Sunday, March 20, 2011 | 8:29 PM

কানাইঘাট সীমান্তে এক সপ্তাহ ধরে কাঠুরিয়া নিঁখোজ
কানাইঘাট সীমান্তে এক সপ্তাহ ধরে এক কাঠুরিয়া নিহতের ঘটনায় বাড়িতে কান্নার রুল বইছে। জানা যায়, উপজেলার ২নং লীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপি'র বাউরবাগ প্রথম খন্ড সিংঙ্গারী পার গ্রামের এতিম আলীর পুত্র আলমাছ উদ্দিন (২৫) গত ১৩মার্চ প্রতিদিনের মতো বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের জঙ্গলে কাঠ সংগ্রহ করতে যান। গভীর রাত পর্যন্ত বাড়িতে না ফেরায় তার স্বজনরা পরদিন সকালে সম্ভাব্য স্থানে অনেক খুঁজাখোজির পর স্থানীয় সুরইঘাট বিডিজি ক্যাম্প ও কানাইঘাট থানায় লিখিত ভাবে ঘটনাটি অবহিত করেন। এরই প্রেেিত গত ১৫ও ১৮মার্চ সুরইঘাট ও গামার পুঞ্জি ক্যাম্প পর্যায়ে দু'দফা পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত আলমাছ উদ্দিন জীবিত না মৃত কোন ধরণের তথ্য না পাওয়ায় তার স্বজনদের মধ্যে শোকের মাতম বইছে। এ ব্যাপারে সুরইঘাট ক্যাম্পের হাবিলদার ফারুক আহমদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি পতাকা বৈঠকের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিএসএফ আমাদেরকে জানিয়েছে আলমাছ উদ্দিন বা কোন বাংলাদেশীর এ ঘটনা তাদের জানা নেই, কোন তথ্য পেলে অবগত করবে।
গরু চোরের হাতে বৃদ্ধ খুন
কানাইঘাট ৭নং দক্ষিণ বাণীগ্রাম ইউপির বড়দেশ উত্তর পাঁচকুড়ি গ্রামে এক যুবকের হাতে ৭০ বছরের বৃদ্ধের মর্মান্তিক মৃতু্য ঘটেছে। এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা যায়, গত ১০/১২দিন পূর্বে বড়দেশ উত্তর পাঁচকুড়ি গ্রামের জুয়াহির আলী (৭০) এর একটি গরু চুরি হয়। এ বিষয়ে গত মঙ্গলবার(১৫ইমার্চ) রাত ৯টায় গ্রামে একটি বৈঠক বসে। বৈঠকে জুয়াহির আলী প্রতিবেশি আব্দুল মালিকের পুত্র ফাহাদ উদ্দিন (২০) কে গরু চুরির হোতা হিসেবে চি্ি#৮২০৬;হ্নত করলে বাক বিতন্ডা শুরু হয়। উপস্থিত মুরবি্বদের হস্তেেপ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে। এ ঘটনায় প্তি হয়ে পরদিন বুধবার সকাল ৮টায় জুয়াহির আলী বাড়ির দণি পাশে গরু চরাতে গেলে পূর্ব থেকে ওঁৎপেতে থাকা ফাহাদ উদ্দিন পিছন থেকে জুহাহির আলীকে দেশীয় কাঠের অস্ত্র দিয়ে মাথায় ও কোমরে আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে তার স্বজনরা আশংকাজনক অবস্থায় তাকে সিলেট ওমেক হাসপাতালে ভর্তি করেন। গতকাল শুক্রবার বেলা ২টায় সিলেট ওমেক হাসপাতালে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় নিহতের পুত্র বাদী হয়ে কানাইঘাট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

Kanaighat News on Sunday, March 13, 2011 | 12:13 PM

জনবল সংকটে কানাইঘাট স্যাটেলম্যান্ট অফিস
দীর্ঘ ২৫বছরেও সম্পন্ন হয়নি জরীপ কার্যক্রম
এখলাছুর রহমান:
কানাইঘাট উপজেলায় ১৯৮৭ সালে জরীপ কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু জনবল সংকটের কারনে প্রায় ২৫বছরেও সম্পন্ন হয়নি জরীপ কার্যক্রম। এ ব্যপারে সহকারী স্যাটেলম্যান্ট অফিসার বিধান চক্রবর্তীর সাথে আলাপ করে জানা যায়, অত্র উপজেলায় মোট ২৫০টি মৌজার মধ্যে ২৪৯টি মৌজার মাঠ জরীপ ও তসদীকের কাজ ইতি মধ্যে শেষ করা হয়েছে। ১২২টি মৌজার সকল স্থরের কাজ সমাপ্ত করে মুদ্রনের জন্য ঢাকাস্থ স্যাটেলম্যান্ট প্রেসে প্রেরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২১টি মৌজার চুড়ান্ত প্রকাশনা সমাপ্ত শেষে মুদ্রিত রেকর্ড ও নক্শা পাওয়া গিয়েছে। এখনও ৮টি মৌজার ৩০বিধি মতে আপত্তি এবং ১২০টি মৌজার ৩১বিধি মতে আপীল শুনানী চলমান রয়েছে। এই বিশাল কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিভিন্ন পদে মোট ১৯জন কমকর্তা কর্মচারীর মধ্যে মাত্র ১১জন কর্মরত আছেন। শূন্য পদগুলোর মধ্যে রয়েছে উপসহকারী স্যাটেলম্যান্ট অফিসার ১, সার্ভেয়ার ১, বেঞ্চ সহকারী ২, চেইন ম্যান ১ ও এম.এল.এস.এস ২। বিধান চক্রবর্তী আরো বলেন, অব্যাহত এই জনবল সংকটের মধ্যেও সীমিত সংখ্যক স্টাফ নিয়ে আন্তরিকতা ও দ্রুততার সাথে জনসেবা প্রদানের পাশাপাশি জরীপ কার্যের যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। আউট সোর্সিং এর মাধ্যমে অস্থায়ী ভিত্তিতে লোক নিয়োগ দেওয়া হলে সেবার মান বৃদ্ধিসহ চলমান জরীপের অসমাপ্ত কাজগুলো দ্রুততম সময়ে সম্পন্ন করা সম্ভব হবে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন। এদিকে বিভিন্ন কাজে স্যাটেলম্যান্ট অফিসে সেবা নিতে আসা লোকজনের সাথে আলাপ করে জানা যায়, সমপ্রতি অত্র অফিসে কাজের অগ্রগতি ও সেবার মান অনেকটা বৃদ্ধি পেয়েছে। জনগনকে রসিদ প্রদানের মাধ্যমে বিভিন্ন স্থরে প্রণীত খতিয়ানের অনুলিপি (পর্চা) নির্ধারীত সরকারী ফি গ্রহন পূর্বক সরবরাহ করা হচ্ছে। এছাড়াও বিভিন্ন অনিয়ম এবং দালালদের উৎপাত বন্ধ করা হয়েছে। ফলে সরকারী কাজে এসেছে স্বচ্ছতা এবং বৃদ্ধি পাচ্ছে সরকারী রাজস্ব।
কানাইঘাটে কম্পিউটার একাডেমীর সর্টিফিকেট বিতরণ করলেন মেয়র কামরান
দেলওয়ার হোসেন সেলিম:
কানাইঘাটের শারিরীক প্রতিবন্ধী বাহার উদ্দিনের পরিচালনায় এবং গ্রীণ ডিজএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ) সিলেটের সহযোগীতায় কুইক লাক কম্পিউটার একাডেমীর সার্টিফিকেট বিতরণ অনুষ্ঠান সমপ্রতি গাছবাড়ী কামিল মাদ্রাসা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়।এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। গাছবাড়ী জামি উলুম কামিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল হাফিজ মাওলানা আব্দুর রহিমের সভাপতিত্বে এবং দণি বাণীগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ ও যুবনেতা নাজিম উদ্দিনের যৌথ পরিচালনায় অনুস্টানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত সিলেট ৫ আসনের এমপি হাফিজ আহমদ মজুমদার,রুপালী ব্যাংক লিঃ এর চেয়ারম্যান ডঃ আহমদ আল কবির,কানাইঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মতিউল ইসলাম চৌধুরী,কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র লুৎফুর রহমান,সিলেট সিটি কাউন্সিলার আজাদুর রহমান আজাদ,কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন আল মিজান,কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ শফিকুর রহমান খান, কানাইঘাট পলি্ল উন্নয়ন অফিসার কামরুল হাসান, গ্রীণ ডিজএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ) সিলেটের চেয়ারম্যান ডাঃ শাহ্ জামান চৌধুরী বাহার, ঝিংগাবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান সইফ উল্লাহ ও সাতবাক ইউপি চেয়ারম্যান মস্তাক আহমদ পলাশ। বিপুল সংখ্যক ছাত্র শিক, অভিবাবক ও এলাকাবাসীর উপস্থিতিতে উৎসব মুখর পরিবেশে এ অনুস্টানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কানাইঘাট প্রেসকাবের প্রতিষ্টাতা সহসভাপতি সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিম। শুরুতে পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত করেন হাফিজ বিলাল উদ্দিন। অতিথিবৃন্দকে ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করেন এলাকাবাসীর প েএমাদ উদ্দিন মানিক,হামজা হেলাল,ফয়ছল আহমদ,আব্দুল কুদ্দুছ, কামাল উদ্দিন , জামিল আহমদ ও শ্রী শ্যামল চন্দ্র চন্দ। বদর উদ্দিন কামরান বলেন,শারিরীক প্রতিবন্ধীরা আজ সমাজের বোঝা নয়, তারা সম্পদ হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। প্রতিবন্ধী মানুষেরা ও উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় সম্পৃক্ত হতে পারেন। তারই প্রমান বাহার উদ্দিন। শারিরীক প্রতিবন্ধী হলেও পড়াশোনা শিখে ব্যক্তিগত জীবনে যতেষ্ট দতার পরিচয় রেখে চলেছেন। তিনি বলেন,বাহার তুমি একা নও আমরা আছি তুমার পাশে । সিলেট ৫ আসনের এমপি হাফিজ আহমদ মজুমদার বলেন, শারিরীক প্রতিবন্ধী বাহার উদ্দিন গ্রামীন জনপদে একজন কম্পিউটার প্রশিক হিসেবে প্রতিদিন বহু তরুন,যুবক ও শিতি বেকার লোকজনকে কম্পিউটার শেখাচ্ছেন । এতে স্বল্প খরচে স্থানীয় প্রশিণাথর্ীরা যেমনি উপকৃত হচ্ছেন, তেমনি ঘরে বসে বাহার প্রতিমাসে কয়েক হাজার টাকা উপার্জন ও করছেন। ডঃ আহমদ আল কবির বলেন,তথ্য প্রযুক্তির চরম উৎকর্ষতার এ যুগে তরুন যুবকদের কম্পিউটার শিখে নিজেদের বিকশিত করে দেশের বিভিন্ন সেক্টরে অবদান রাখার আহবান জানান। অনুস্টানে প্রতিবন্ধী বাহার উদ্দিনের পরিচালনায় এবং গ্রীণ ডিজএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ) সিলেটের সহযোগীতায় কুইক লাক কম্পিউটার একাডেমীর ১৫ জন প্রশিণার্থীকে সার্টিফিকেট বিতরণ করেন প্রধান অতিথি। অতিথিবৃন্দ প্রতিবন্ধী বাহার উদ্দিনের সুচিকিৎসা ও তার পরিচালনায় কুইক লাক কম্পিউটার একাডেমীর উন্নয়নে সবধরনের সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন। #
ভারতীয় খাসিয়া কর্তৃক অপহরণের ৯দিন পর
কানাইঘাট সীমান্তে দু'বাংলাদেশীর গলিত লাশ উদ্ধার
কানাইঘাট উপজেলার ১নং লীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের ডোনা সীমান্তে দুই বাংলাদেশীকে ভারতীয় খাসিয়া কতর্ৃক অপহরণের ৯দিন পর সীমান্তের ১৩৩২নং মেইন পিলারের নিকট বাংলাদেশ অভ্যন্তরে গতকাল লাশ দু'টি ফেলে রাখা হয়। ডোনা বিজিবি ক্যাম্প সূত্রে জানা যায়, গত ২২ফেব্রুয়ারী উপজেলার ১নং ইউপির ডোনা সীমান্তে মিকির পাড়া গ্রামের আজিজুল হকের পুত্র আলতাফ মিয়া (২৬) ও একই গ্রামের আব্দুল মালিকের পুত্র ইউনুস মিয়া (২২) কে সীমান্ত থেকে ভারতীয় খাসিয়ারা অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ বিষয়টি তাদের স্বজনরা স্থানীয় ডোনা বিজিবি ক্যাম্প কতর্ৃপকে অবহিত করেন। পরে ক্যাম্প কতর্ৃপ উক্ত অপহরণের প্রতিবাদ জানিয়ে ২৩ফেব্রুয়ারী ভারতীয় বিএসএফ এর আমখিয়াং ক্যাম্প কর্তৃপকে পতাকা বৈঠকে বসার আহ্বান জানান। এতে বিজিবি বার্তা পাঠানোর দু'দিন পর গত ২৫ ফেব্রুয়ারী ১৩৩২নং মেইন পিলারের পাশে পতাকা বৈঠকে মিলিত হয়। আলোচনার পর অপহরণকৃত ২বাংলাদেশী নাগরিকের ছবি চাইলে বিজিবি কতর্ৃপ বিএসএফ কে ছবি দু'টি হস্থান্তর করেন। কিন্তু আলোচনার দু'দিন পরও অপহরণকৃত ২বাংলাদেশী নাগরিকের কোন সন্ধান দিতে না পারায় বিজিবির অনুরোধে পুণরায় ২৮ফেব্রুয়ারী আবারও বিজিবি ও বিএসএফ পতাকা বৈঠকে মিলিত হয়। এসময় বাংলাদেশের প েনেতর্ৃত্ব দেন নায়েব সুবেদার নুরুল ইসলাম এবং ভারতের প েআমখিয়াং ক্যাম্পের ইন্সপেক্টর এমএজি খান ও রাজিব কুমার। উক্ত পতাকা বৈঠকে বিএসএফ অপহরণ কৃত ২বাংলাদেশীকে খুঁজে বের করে ফেরত দেওয়ার আশ্বাস প্রদান করে। এদিকে গতকাল অপহরণকৃত ২বাংলাদেশীর গলিত লাশ সীমান্তের ১৩৩২নং পিলারের বাংলাদেশ অভ্যন্তরে পড়ে থাকতে দেখা যায়। লাশ দু'টির আত্মীয়-স্বজনরা তাদের দেহের গড়ন ও পরনের কাপড় দেখে মৃতদের লাশ সনাক্ত করেন। পরে বিষয়টি তারা ডোনা ক্যাম্প কতর্ৃপকে অবহিত করলে ক্যাম্প কতর্ৃপ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে থানা-পুলিশকে লাশ দু'টি উদ্ধারের জন্য খবর দিলে কানাইঘাট থানার এসআই ওয়াহীদ একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ দুটি উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে সিলেট ওমেক হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে নিহতের ভাই বাদশাহ আলম বাদী হয়ে অজ্ঞাত নামা ব্যাক্তিদের আসামী করে কানাইঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন, মামলা নং-১, তারিখ ০২/০৩/২০১১ইং।
 
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: মো:মহিউদ্দিন,সম্পাদক : মাহবুবুর রশিদ,নির্বাহী সম্পাদক : নিজাম উদ্দিন। সম্পাদকীয় যোগাযোগ : শাপলা পয়েন্ট,কানাইঘাট পশ্চিম বাজার,কানাইঘাট,সিলেট।+৮৮ ০১৭২৭৬৬৭৭২০,+৮৮ ০১৯১২৭৬৪৭১৬ ই-মেইল :mahbuburrashid68@yahoo.com: সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত কানাইঘাট নিউজ ২০১৩